শোকের মাসে জন্মদিন উৎসবে বিরত খোকন সাহা

ডেস্ক রিপোর্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৭:২৭ পিএম, ১১ আগস্ট ২০২০ মঙ্গলবার

শোকের মাসে জন্মদিন উৎসবে বিরত খোকন সাহা

সান নারায়ণগঞ্জের তথ্যসূত্র মতে, মহান স্বাধীনতার স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের সদস্যদের ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। সেই থেকে আগস্ট মাসটি শোকের মাস হিসেবে মাসব্যাপী শোক পালন করা হয়। ১৯৭৫ পরবর্তী ১৯৭৬ সাল থেকে শোকাবহ আগস্ট মাসে নিজের জন্ম হলেও সেই জন্মদিন উদযাপন করেন না নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা।

তিনি পুরো মাসটি শোক পালন করে আসছেন। ১১ আগস্ট অ্যাডভোকেট খোকন সাহার জন্মদিন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আওয়ামীলীগ নেতাকর্মী ও আইনজীবীরা তাকে শুভেচ্ছা জানালেও এ বিষয়ে খোকন সাহার কোন উদযাপন নাই।

জানা গেছে, ১৯৭৫ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শহীদ হওয়ার পরে রাজনীতিতে আসেন খোকন সাহা। সেই সময় তিনি এই নির্মম হত্যাকান্ড মেনে নিতে পারেননি। ছাত্র রাজনীতি দিয়ে শুরু খোকন সাহার রাজনীতি। ১৯৭৭ সাল থেকে ১৯৮১ সাল পর্যন্ত দুই মেয়াদে নারায়ণগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। ১৯৮০ সালে সরকারি তোলারাম কলেজ বাণিজ্য শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হন তিনি। পরবর্তীতে শহর ছাত্রলীগের সদস্য হন। ১৯৮৩ সালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৮২ সালে এরশাদ বিরোধী ছাত্র আন্দোলন ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ছিলেন।

১৯৮২ সালে এরশাদ সরকার যখন মার্শাল ‘ল’ জারি করে তখন ওইদিন সকাল ১১টায় নারায়ণগঞ্জ থেকে এরশাদ বিরোধী সর্বপ্রথম যে ১২ জন মিলে মিছিল বের করেছিল সেই মিছিলে খোকন সাহাও ছিলেন। এরশাদ বিরোধী আন্দোলনে অংশগ্রহণ করার কারনে তৎকালীন এরশাদ সরকার খোকন সাহার বিরুদ্ধে তিনটি মামলা দায়ের করে। যার মধ্যে একটি হত্যা মামলা ও একটি বিস্ফোরক মামলা হয়। এসব রাজনৈতিক মামলা থেকে খালাস পেয়েছেন।

এছাড়াও আরও জানা গেছে, খোকন সাহা এরশাদের আমলে গ্রেপ্তার হয়ে কারাবরণ করেন। ১৯৯২ সালে নারায়ণগঞ্জ শহর আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক নির্বাচিত হন এবং ১৯৯৬ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত তিন মেয়াদে ১৭ বছর তিনি নারায়ণগঞ্জ শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৩ সালের ১১ সেপ্টেম্বর গণভবনে সারাদেশের আওয়ামীলীগের নেতাদের নিয়ে সভা হয়। ওই সভাটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় আনোয়ার হোসেনকে সভাপতি ও খোকন সাহাকে সেক্রেটারি করে নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের কমিটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে ঘোষণা দেন।


বিভাগ : আমার আমি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও