ওসির পরামর্শেই আদালতে মামলা

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:১৭ পিএম, ৪ জানুয়ারি ২০২১ সোমবার

ওসির পরামর্শেই আদালতে মামলা

নিজের বিরুদ্ধে আপত্তিজনক মন্তব্য করার অভিযোগে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় ডিজিটাল আইনে মামলার আবেদন করেছিলেন সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী। তবে আদালত সেটা গ্রহণ করেনি।

পরবর্তীতে ৪ জানুয়ারী সোমবার দুপুরে মেয়র আইভীর সাইবার ট্র্যাইবুন্যালে ওই মামলার আবেদন করেন। বিচারক জগলুর হোসেনের আদালত আইভীর আর্জি গ্রহণ করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ সিআইডিকে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দিতে বলেছেন। আগামী ৮ ফেব্রুয়ারী মামলার শুনানী অনুষ্ঠিত হবে।

মামলায় বিবাদী করা হয়েছে নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সেক্রেটারী খোকন সাহা ও কানাডা প্রবাসী প্রদীপ দাসকে। তিনি মূলত ‘হিন্দুস লাইভস মেটারস’ নামের একটি ইউটিউব চ্যানেল পরিচালনা করেন।

মামলার এক পর্যায়ে তিনি লিখেন, গত ২১ ডিসেম্বর ২০২০ইং তারিখে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় হাজির হয়ে মামলার আবেদন করা হয়। সেদিন ডিউটি অফিসার ও ওসি শাহজামানের কাছে আবেদন দাখিল করা হয়। কিন্তু তিনি মৌখিকভাবে জানান যে উক্ত বিষয় তদন্ত করার জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি নাই। তখন ওসি আদালতে মামলার পরামর্শ দেন।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, ‘নারায়ণগঞ্জ মেয়র আইভীকে খোকন সাহা : হাজার কোটি টাকা মূল্যের হিন্দুদের দেবোত্তর সম্পত্তি ফিরিয়ে দিন ও ১ হাজার কোটি টাকার মূল্যের হিন্দুদের দেবোত্তর সম্পত্তি মেয়র আইভীর পরিবারের দখলে। মন্দিরের সেবায়েত গুম। আতঙ্কে হিন্দুরা’ শীর্ষক শিরোনামে ভিডিও আপলোড হয়। ওই ভিডিওতে খোকন সাহাও বক্তব্য রাখেন। মূলত প্রদীপ এ ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল করে।

ভিওিতে খোকন সাহা বলেন, ‘মেয়র আইভী হিন্দুদের ভোট নেয়। নিয়া কালীপূজা করে সিন্দুর দিয়া কালী মাকে প্রণাম করে। আমি হিন্দু সমাজকে একতাবদ্ধ করার চেষ্টা করছি। এবং বলেছি যারা দেবোত্তর সম্পত্তি গ্রাস করে তাদেরকে আপনারা ভোট দিবেন না। যারা দেবোত্তর সম্পত্তি খায় তাদের যেন জননেত্রী শেখ হাসিনা নমিনেশন না দেয়। এবং হিন্দু সম্প্রদায়কে বলছি যারা দেবোত্তর সম্পত্তি খায় তাদেরকে আপনারা ভোট দিবেন না।’

ভিডিওতে খোকন সাহা বলেন, ‘আপনি সরকারী দল করবেন, আওয়ামী লীগ করবেন আবার দেবোত্তর সম্পত্তি দখল করবেন সেটা হবে না। আমি অলরেডি নেত্রীকে মেসেজ পাঠিয়েছি।’

প্রকৃত সত্য হলো আগামী মেয়র নির্বাচনকে সামনে রেখে মেয়রের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে খোকন সাহা মিথ্যা বানোয়াট বিভ্রান্তকর মানহানিকর বক্তব্য প্রচার করছে। এতে মেয়র ও রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে। আন্তর্জাতিকভাবেও মেয়রকে হেয় প্রতিপন্ন করা হচ্ছে।

এখানে উল্লেখ্য, কথিত সম্পত্তি নিয়ে নারায়ণগঞ্জ আদালতে বিচারাধীন মামলায় আইভী কোন পক্ষ না। ফলে প্রদীপ ও খোকন সাহা মিলে মেয়রকে অপমান অপদস্ত করতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বক্তব্য দিয়ে ডিজিটাল আইনে দন্ডনীয় অপরাধ করছেন।


বিভাগ : আইন আদালত


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও