টাইগার মোমেন সহযোগি সহ গ্রেপ্তার

সোনারগাঁ করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৬:১৯ পিএম, ৩০ এপ্রিল ২০২১ শুক্রবার

টাইগার মোমেন সহযোগি সহ গ্রেপ্তার

নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁয়েও কাঁচপুর ওলামানগর এলাকা হতে হত্যা, ছিনতাই, ডাকাতি ও মাদকসহ প্রায় ডজন খানেক মামলার আসামী ‘মোমেন বাহিনী’র প্রধান সাব্বির হোসেন মোমেন ওরফে টাইগার মোমেন (৩১) ও তার সহযোগীকে মো. বুলবুল ভূঁইয়াকে (৩৭) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১১।

৩০ এপ্রিল শুক্রবার দুপুর ২টার ওই অভিযানে গ্রেফতারকৃত আসামীদের হেফাজত হতে ম্যাগাজিন ভর্তি বিদেশী পিস্তল, ২রাউন্ড তাজা গুলি, ২০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ১ লিটার বাংলা মদ, মাদক বিক্রয়ের নগদ ১০ হাজার টাকা ও ৩টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা করা হয়।

র‌্যাব জানায়, ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সংযোগস্থল কাঁচপুর এলাকায় মাদক ব্যবসা, তেলচুরি, ডাকাতি ও ছিনতাইসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িত শতাধিক দুস্কৃতিকারীদের সমন্বয়ে মোমেন এর নেতৃত্বে একটি সন্ত্রাসী বাহিনী গড়ে উঠেছে যা এলাকায় ‘মোমেন বাহিনী’ নামে পরিচিত। এলাকার মূর্তিমান আতঙ্কের নাম এই ‘মোমেন বাহিনী’। এই বাহিনীর ভয়ে এলাকার কেউ মুখ খুলতে সাহস পায় না। ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে এই সন্ত্রাসী বাহিনী গাড়ি হতে জ্বালানি তেল চুরি, পরিবহনে ছিনতাই ও ডাকাতি এবং মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন ধরনের অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িত। ‘মোমেন বাহিনী’র প্রধান সাব্বির হোসেন মোমেন টাইগার মোমেন নিজেকে কখনও র‌্যাব আবার কখনও পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে পরিচয় দিয়ে তার অপরাপর সহযোগীদের যোগসাজশে অভিনব কৌশলে মহাসড়কে ছিনতাই ও ডাকাতি করে।

হত্যা, ছিনতাই, ডাকাতি ও মাদকসহ প্রায় ডজনখানেক মামলার আসামী ধূর্ত অপরাধী মোমেনকে নিয়ে সম্প্রতি বেশ কয়েকটি পত্র-পত্রিকায় অনুসন্ধানীমূলক রিপোর্ট হয়। উক্ত অনুসন্ধানী রিপোর্টের পরিপ্রেক্ষিতে র‌্যাব-১১ এর একটি চৌকস গোয়েন্দা দল কাঁচপুর এলাকার মূর্তিমান আতঙ্ক সন্ত্রাসী গ্রুপ ‘মোমেন বাহিনী’র প্রধান সাব্বির হোসেন মোমেন টাইগার মোমেনসহ তার অন্যান্য সহযোগীদের উপর কঠোর গোয়েন্দা নজরদারী শুরু করে। পরবর্তীতে গোপন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে ৩০ এপ্রিল দুপুর ২টায় অভিযান চালিয়ে মাদক ও বিদেশী পিস্তলসহ উল্লিখিত আসামীদের হাতে-নাতে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।


বিভাগ : আইন আদালত


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও