তদন্ত শুরু করেছে সিআইডি

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১১:৫২ পিএম, ১৭ জুলাই ২০২১ শনিবার

তদন্ত শুরু করেছে সিআইডি

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় হাসেম ফুড অ্যান্ড বেভারেজ কারখানায় অগ্নিকান্ডের ঘটনায় চারটি ক্লু ধরে তদন্ত শুরু করতে যাচ্ছে দায়িত্বরত পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

মামলার দায়িত্বভার পেয়ে ১৭ জুলাই শনিবার দুপুরে কারখানাটি পরিদর্শনে এসে জানান সিআইডির ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি ইমাম হোসেন।

৮ জুলাই সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার রূপগঞ্জ উপজেলার কর্ণগোপ এলাকায় অবস্থিত ওই কারখানায় অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ৫২ জনের মৃত্যু ঘটেছে যাদের ৪৮ জন আগুনে পুড়ে মারা গেছে। ওই ঘটনায় রূপগঞ্জ থানায় ১০ জুলাই একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক নাজিমউদ্দিন।

মামলায় আসামীদের বিরুদ্ধে হত্যার চেষ্টা ও হত্যার উদ্দেশ্যে সামান্য ও গুরুতর জখমের অভিযোগ করা হয়। ওই মামলায় পুলিশ কারখানা মালিক এম এ হাসেম (৭০), তার ছেলে হাসীব বিন হাসেম ওরফে সজীব (৩৯), তারেক ইব্রাহীম (৩৫), তাওসীব ইব্রাহীম (৩৩), তানজীম ইব্রাহীম (২১)শাহান শান আজাদ (৪৩), কারখানার উপ মহাব্যবস্থাপক মামুনুর রশিদ (৫৩) ও মো. সালাউদ্দিনকে (৩০) গ্রেপ্তার করা হয়। সেদিনই তাদের ৪ দিন করে রিমান্ডে নেওয়া হয়। এরই মধ্যে ১৪ জুলাই তাওসীব ইব্রাহীম (৩৩) ও তানজীম ইব্রাহীম (২১) আদালত থেকে জামিন পান। ১৫ জুলাই মামলাটির তদন্তভার সিআইডিকে হস্তান্তর করা হয়।

সিআইডির ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি ইমাম হোসেন বলেন, ‘আমাদের তদন্ত কার্যক্রমের জন্য তদন্তকারী কর্মকর্তা মাঠ পর্যায়ে কিভাবে কাজ করবেন, আমি ও আমার সিনিয়র অন্যান্য কর্মকর্তারা ওনাকে ১০টা পয়েন্টের একটি নির্দেশনা দিয়েছি। এ দুর্ঘটনার সম্ভাব্য তিন চারটা কারণ আমরা ধরে নিয়েছি। সেগুলো ধরেই আমরা কাজ করবো। এ তিন চারটা লাইনের মধ্যেই দুর্ঘটনার কারণ আছে। কেন এবং কারা দায়ি বের হয়ে আসবে। প্রথম অবস্থায় কারণগুলো বলা যাচ্ছে না। এটি একটি বড় ঘটনা এর জন্য কোয়ালিটি তদন্ত করতে সময় দিতে হবে। আমরা আশা করি যত দ্রুত সম্ভব এর সুরাহা করতে পারবো।’


বিভাগ : আইন আদালত


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও