চার চাঁদাবাজ ও পলাতক আসামী গ্রেপ্তার

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:০৪ পিএম, ৩১ আগস্ট ২০২১ মঙ্গলবার

চার চাঁদাবাজ ও পলাতক আসামী গ্রেপ্তার

র‌্যাব-১১ এর পৃথক অভিযানে নারায়ণগঞ্জের বন্দর ও রূপগঞ্জ হতে ৪ জন চাঁদাবাজ এবং ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

র‌্যাব জানায়, ৩০ আগস্ট সন্ধ্যায় র‌্যাব-১১ সিপিএসসি এর বিশেষ অভিযানে বন্দর থানাধীন ফরাজীকান্দা এলাকায় পরিবহনে চাঁদাবাজি করার সময় ২ জন চাঁদাবাজকে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো ফয়সাল (৩০) ও মোঃ আরিফ (৪০)। তাদের দখল হতে চাঁদাবাজির নগদ ২৪০০ টাকা উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ ফয়সাল নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর থানাধীন বেপারীপাড়া এলাকার লাল বাদশাহ এর ছেলে এবং মোঃ আরিফ একই এলাকার নিজাম উদ্দিনের ছেলে।

পৃথক অভিযানে রূপগঞ্জ থানাধীন হাটিপাড়া এলাকায় চাঁদাবাজি করার সময় হাতেনাতে আরও ২জন চাঁদাবাজকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো রাসেল (৩৭) ও মোঃ নূর আলম (৩২)।

তাদের দখল হতে চাঁদাবাজির নগদ ১,৯৫০ টাকা উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ রাসেল নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানাধীন তারাব হাটিপাড়া এলাকার মৃত মোশারফ হোসেন এর ছেলে এবং মোঃ নুর আলম একই এলাকার মৃত রজন আলীর ছেলে।

উপস্থিত সাক্ষী, ট্রাক চালক এবং গ্রেফতারকৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, চাঁদাবাজ চক্রের সক্রিয় সদস্যরা নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর থানাধীন ফরাজীকান্দা ও রূপগঞ্জ থানাধীন হাটিপাড়া এলাকায় রাস্তায় চলাচলরত ট্রাক চালকদের ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করে জোরপূর্বক চাঁদা আদায় করে আসছিল। চালক ও স্থানীয় জনসাধারনের কাছ থেকে জানা যায় কোন চালক চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে তাদের মারধরসহ জীবন নাশের হুমকি প্রদান করে। র‌্যাব-১১, সিপিএসসি এর অনুসন্ধানে চাঁদাবাজি সংক্রান্ত ঘটনার সত্যতা পেয়ে চাঁদাবাজি বন্ধ ও জড়িতদের আইনের আওতায় আনার জন্য ৩০ আগস্ট ২০২১ খ্রিষ্টাব্দে সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জের নারায়ণগঞ্জের বন্দর থানাধীন ফরাজীকান্দা ও রূপগঞ্জ থানাধীন হাটিপাড়া এলাকায় পৃথক অভিযান পরিচালনা করে জোরপূর্বক পরিবহনে চাঁদা আদায়কালে উপরোক্ত ৪ জন চাঁদাবাজকে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়। চাঁদাবাজি বন্ধে র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

৩০ আগস্ট রাতে র‌্যাব-১১, সিপিএসসি’র অপর একটি আভিযানিক দল কর্তৃক নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানাধীন উত্তর রূপসী এলাকা হতে সিআর মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত পলাতাক আসামী ইয়াকুব ভূঁইয়াকে (৩৫) গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত আসামী ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে চেক ইস্যু করে বিভিন্ন সময় ঋণ নিয়ে দীর্ঘদিন অতিবাহিত হওয়ার পর পাওনাদার তার কাছে পাওনা টাকা ফেরত চাইলে বিভিন্ন তালবাহানা করে সে সময়ক্ষেপণ করতে থাকে এবং পাওনাদারকে ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করে। পরবর্তীতে ভূক্তভোগী পাওনাদার বাদী হয়ে ইয়াকুব ভূঁইয়া (৩৫) এর বিরুদ্ধে আদালতে সিআর মামলা দায়ের করেন।


বিভাগ : আইন আদালত


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও