নারায়ণগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর রিকশায় চড়া ছবি ভাইরাল

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:১৭ পিএম, ৫ জানুয়ারি ২০২১ মঙ্গলবার

এস এম রাশেদুল হক রাসেলের ফেসবুক হতে নেওয়া
এস এম রাশেদুল হক রাসেলের ফেসবুক হতে নেওয়া

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমানের একটি দুর্লভ ছবি এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে উঠতে শুরু করেছে। এতে দেখা যায়, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার বক্তাবলীতে একটি অনুষ্ঠানে আসেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর তখন নেত্রীর পাশেই ছিলেন শামীম ওসমান। এছাড়া ছিলেন ফিরোজ আহমেদ।

ফতুল্লা থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি এস এম রাশেদুল হক রাসেল তাঁর ফেসবুকে ওই ছবি পোস্ট করেন। সেখানে ছবি সম্পর্কে তিনি কিছু তথ্যও দেন।

ছবির বিস্তারিতে লেখা হয়, ‘ছবিটি ৯০ সালের কোন এক সময়ের বিশ্ব মানবতার মা বঙ্গবন্ধু কন্যা আজকের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা নারায়ণগঞ্জ সদরের বক্তাবলীতে এসেছিলেন, আওয়ামী লীগ অফিসের পিয়ন এবং মুজিব আদর্শের সাচ্চা কর্মী শহীদ মিয়ার রিকশায় চড়ে ঘুরে বেরিয়েছেন বৃহত্তর চরাঞ্চলের এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত।’

‘‘ছবিটির ডানে দেখা যাচ্ছে, নারায়ণগঞ্জের উন্নয়নের রূপকার গণমানুষের নেতা, সারা বাংলার রাজনৈতিক আইকন সংসদ সদস্য, বাংলাদেশের রাজনীতিতে সেকালের একালের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা হাসু আপা বিশ্বস্ত ভ্যানগার্ড, বাংলাদেশ এবং শেখ হাসিনার প্রশ্নে যিনি আপোষহীন জননেতা একেএম শামীম ওসমান শামীম ভাই! (তৎকালীন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি)।

‘আর ছবিটির বামে দেখা যাচ্ছে, তৎকালীন আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রভাবশালী নেতা, একসময়কার তুখোড় ছাত্রনেতা তোলারাম মহাবিদ্যালয়ের, নারায়ণগঞ্জ শহর তারপর নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির ছাত্রলীগের পোড় খাওয়া বিপ্লবী ছাত্রনেতা পরবর্তীতে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও কেন্দ্রীয় যুবলীগের রাজপথের রাজনীতিতে অসামান্য অবদান রাখা বক্তাবলীর কৃতিসন্তান ফিরোজ আহমেদ (কাকা) বর্তমানে যিনি সমগ্র ইউরোপের আওয়ামী লীগের অভিভাবক। প্রিয় নেত্রী সফরসঙ্গী হিসেবে এখনো যিনি এদেশ ওদেশ ঘুরে বেড়ান বহির্বিশ্বের আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত রাখার লক্ষ্যে। ফিরোজ আহমেদ (কাকা) বর্তমানে অস্ট্রিয়ার ভিয়েনায় পরিবার নিয়ে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন! কিন্তু দেশ থেকে সে এক মিনিটের জন্য দূরে সরে যাননি ! দেশ বিরোধী ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে এখনও তিনি নিষ্কণ্টক প্রতিবাদী। এখনো তিনি দেশ-বিদেশ ঘুরে মিটিং মিছিল সভা সমাবেশ করে বাংলাদেশ এবং বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সকলকে ঐক্যবদ্ধ করে দেশেরপক্ষে জনমত সৃষ্টি করে যাচ্ছেন।’

এদিকে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মহান মুক্তিযুদ্ধের গৌরবময় ইতিহাসে একাত্তরের ২৯ নভেম্বর দিনটি ছিল নারায়ণগঞ্জবাসীর জন্য বেদনাবিধুর দিন। ওই দিন নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লা থানার দুর্গম চরাঞ্চল বুড়িগঙ্গা নদী বেষ্টিত বক্তাবলীতে হত্যাযজ্ঞ চালায় পাক হানাদার বাহিনী। স্বাধীনতা যুদ্ধে নারায়ণগঞ্জে একসাথে এত প্রাণের বিয়োগান্ত ঘটনা দ্বিতীয়টি আর নেই।

১৯৯২ সালের ডিসেম্বরে বক্তাবলীর কানাইনগর ছোবহানিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে শহীদদের স্মরণে শোকসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।


বিভাগ : ফিচার


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও