মেয়র এমপি দুই হাত ভরে দেন

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৪২ পিএম, ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ সোমবার

মেয়র এমপি দুই হাত ভরে দেন

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শওকত হাশেম শকুকে দুই হাত ভরে দিচ্ছেন মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী ও এমপি সেলিম ওসমান। গত কয়েক বছরে এ দুই জনপ্রতিনিধি শকুর ওয়ার্ডে প্রচুর উন্নয়ন মূলক কাজ করছেন। শকু বিএনপি নেতা হলেও উন্নয়নের ক্ষেত্রে সরকার দলীয় মেয়র ও এমপি সেটা বিবেচনা করছেন না।

এর মধ্যে গঞ্জে আলী খাল পুনখনন করে রীতিমত ১২নং ওয়ার্ডবাসীকে বিশাল উপহার দিচ্ছেন মেয়র। বিপরীতে করোনার সময়ে খানপুর হাসপাতালে শৃঙ্খলা ফেরানোর কাজটি করেন এমপি সেলিম ওসমান। নিজ অর্থায়নে হাসপাতালের ডাক্তার নার্স সহ স্বাস্থ্যকর্মীদের আবাসন খাবারের ব্যবস্থা করেন যার তদারকি করেন শকু।

গত সংসদ নির্বাচনের আগে শকু বলেছিলেন দল যার যার সেলিম ওসমান সবার। আমি বিএনপির রাজনীতি করি। ওই দলের মহানগরের সাংগঠনিক সম্পাদক। তারপরও আমি উনার জন্য এসেছি। সর্ব প্রথম ২০০৩ সালে উনার কাছে গিয়েছিলাম। উনি আমাকে প্রশ্ন করেছিলেন তুই ভালো হবি কি-না? আমি বলেছিলাম ভালো হয়ে যাব। এরপর আমাকে আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। টানা ৩ বার এই ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছি।

শকু আরও বলেন, আমার ওয়ার্ডে তিনি নিজ তহবিল থেকে প্রায় ২ কোটি ৫০ লাখ টাকার উন্নয়ন করেছেন। যেখানে সুপেয় বিশুদ্ধ খাবার পানির ব্যবস্থা, রাস্তায় এলইডি লাইট, ওয়াইফাই জোন, এলাকার নিরাপত্তায় সিসি টিভি ক্যামেরা স্থাপন, ৪টি মসজিদের উন্নয়নে অর্থায়ন করেছেন। যাকে দিয়ে এলাকার উন্নয়ন হবে তাকে আগামী নির্বাচনে বিজয়ী করতে না পারলে ক্ষতি আমাদেরই হবে।

এদিকে ৩১ জানুয়ারী নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন ও ঢাকা ওয়াসার যৌথ উদ্যোগে ৮০ লাখ টাকা ব্যয়ে নিউ খানপুর বউ বাজার এলাকায় জরুরী ওয়াটার সাপ্লাই প্রজেক্ট আওতায় খানপুর ব্যাংক কলোনী গভীর নলকূপের কাজ উদ্বোধন করা হয়েছে।

নাসিক ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শওকত হাসেম শকু বলেন, নাসিকের উদ্যোগে এই গভীর নলকূপ স্থাপন করা হচ্ছে। আমাদের দাবি কারণে ইসদাইরের পর খানপুর বউ বাজার এলাকায় এই পাম্প করা হয়েছে। ৬৪ লাখ ব্যয়ে ২০০৬ সালে এই পাম্প স্থাপন করা হয়। কিন্তু বিগত বছরগুলোতে পানি লেয়ার কমে যাওয়ায় ৮০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে আরেকটি পাম্প স্থাপন করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে ১২নং ওয়ার্ডে ৪টি গভীর নলকূপ রয়েছে, খানপুর পুরাতন ট্যাংকি, বউ বাজার, বাগে জান্নাত ও ইসদাইর এলাকায়। এই পাম্প থেকে ওয়াসা পানি লাইনের মাধ্যমে এলাকার বিশুদ্ধ পানি বাড়ি বাড়িতে যায়। এই পাম্প কাজ হতে সময় লাগবে প্রায় ২ মাস। এর পর থেকে আপনারা সুপেয় পানি পাবেন। ইতোমধ্যে এলাকায় এমপি সেলিম ওসমানের উদ্যোগে ৮টি বিশুদ্ধ গভীর নলকূপ স্থাপন করা হয়েছে। নাসিকের উদ্যোগে খানপুর বউ বাজার এলাকায় ৬০ লাখ টাকা ব্যয়ে আরেকটি পুকুর ও ঘাটলা নির্মাণ করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে ঘাটলায় নির্মাণ শেষে টাইলস বসানো হচ্ছে। স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে সাধারণ মানুষ এখানে আসতে পারবে। মেয়র মহোদয় ইতিমধ্যে ১২নং ওয়ার্ডে রাস্তা ড্রেন সংস্কারে আরো সাতটি কাজ টেন্ডার করেছেন। এলাকাবাসী এই মহতী কাজের জন্য মেয়রকে ধন্যবাদ জানিয়েছে।

এর আগে ২৮ জানুয়ারী ১২নং ওয়ার্ডের খানপুর প্রধান সড়ক (ভাষা সৈনিক শফি হোসেন খান সড়ক) ও ড্রেনেজ সংস্কার কাজ উদ্বোধন করা হয়েছে।

ওই সময়ে শওকত হাসেম শকু বলেন, সপ্তাহ খানে আগে মেয়র মহোদয় ৭টি টেন্ডার কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। ভাষা সৈনিক শফি হোসেন খান সড়কটি ৩৮ লক্ষ টাকা ব্যয়ে টেন্ডার হয়েছে। উত্তর চাষাঢ়া বায়তুল আমান সামনে থেকে রাইফেল ক্লাব পর্যন্ত রাস্তাটি মেরামতে ৩১ লক্ষ টাকা টেন্ডার দিয়েছে। ব্যাংক কলোনী, মিশনপাড়া এক যুগ্ম সচিবের বাড়ি সামনে থেকে শ্যামল ভাই বাড়ি পর্যন্ত সড়ক টেন্ডার হয়েছে ৩১ লক্ষ টাকা। সব রাস্তা সাথে ড্রেন নির্মাণ করা হবে। এই খানপুর প্রধান সড়কটি মেরামতের মাধ্যমে প্রধান প্রধান সড়কের কাজ সম্পন্ন করা হল আমার ওয়ার্ডে।

তিনি আরো বলেন, ৬ মাস যাবৎ ১২নং ওয়ার্ডের বেশি ভাগ কাজ করা হচ্ছে। আমার ওয়ার্ডের খানপুর আমার নিজের এলাকা। তাই উন্নয়নের কাজ দেরি করেছি, অন্যান্য কাজ শেষ করা মাধ্যমে। ২ মাস আগে দেড় কোটি ব্যয়ে ইসদাইরের রাস্তা ড্রেন নির্মাণ সম্পন্ন করা হয়েছে। বাগেজান্নাত, মিশনপাড়া, ডনচেম্বার ইতিমধ্যে কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। সার্বিক সহযোগিতা করেছে নাসিকের ইঞ্জিনিয়ার সফিউল, নাজমুল, মোস্তাফিজ এবং মেয়র মহোদয় আমাদের অনেক সহযোগিতা করেছেন। ৭২ ঘণ্টার মধ্যে রাস্তাটি মেরামত সম্পন্ন করা হবে, ইনশাআল্লাহ। ইতিমধ্যে ড্রেনটি পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা করার জন্য নাসিকে ডিও লেটার দেয়া হয়েছে।


বিভাগ : ফিচার


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও