ছাগল মোটা দেখাতে জোর করে পানি পান

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১২:০৯ এএম, ১৪ জুলাই ২০২১ বুধবার

ছাগল মোটা দেখাতে জোর করে পানি পান

২১ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে পবিত্র ঈদুল আজহা। তাই ইতোমধ্যে বসতে শুরু করেছে কোরবানীর পশুর হাট। আর কোরবানীর পশুকে আরো আকর্ষনীয় ও মোটাতাজা দেখানোর জন্য ব্যস্ত অসাধু ব্যবসায়ীরা। চিকন এক ছাগলকে পাইপ দিয়ে জোর করে নদীর পানি খাওয়ানো হচ্ছে।

১৩ জুলাই মঙ্গলবার বিকেলে সদর উপজেলার ফতুল্লা ডিআইটি মাঠের পশুর হাটের পাশে বুড়িগঙ্গা নদীর তীরে দেখা গেছে এ দৃশ্য। শুধু যে ছাগলকে খাওয়ানো হচ্ছে এমনটা নয় অভিযোগ রয়েছে গরুকেও অতিরিক্ত খাবার খাওয়ানো হচ্ছে।

সরেজমিনে বিকেলে দেখা যায়, ‘ফতুল্লা ঘাটের পাশে একটি ছাগলকে দুইজনে ধরে মুখে চিকন পাইপ ঢুকিয়ে দেন। আরেকটি পাত্র দিয়ে পাইপ দিয়ে ছাগলকে খাওয়ানো হচ্ছে পানি। এভাবে প্রায় ১৫ থেকে ২০টি ছাগলকে খাওয়ানো হয়েছে। আশে পাশে মানুষ দেখে প্রতিবাদ করতে শুরু করেন। তারপর ছাগলকে পানি খাওয়ানো বন্ধ হয়।’

ওইসময় ব্যাপারী বলেন, ‘রোদে ছাগলের সমস্যা হয়েছে। তাই জোর করে পানি খাওয়ানো হচ্ছে। অন্য কোন কিছু না। অনেক দূর থেকে আনা হয়েছে তাই পানি খাওয়াতে হয়।’

পশুর হাটের এক ব্যাপারী বলেন, ‘রোদে ছাগলের কি হবে। কারণ ছাগলতো সারাদিন রোধে থেকেই ঘাস খায়। এ ব্যবসায়ীরা ছাগলকে সুন্দর ও মোটাতাজা দেখানোর জন্য জোর করে পানি খাওয়ায়। ছাগল এমনিতে এক গ্লাসও পানি খায় না। তাই পাইপ দিয়ে জোর করে পাখি খাওয়ায়। এতে করে পানিতে ছাগলের পেট ফুলে যায়। পেটে পানি জমে থাকায় ছাগল আর কিছু খেতেও চায় না। ফলে যেসব ক্রেতা আসে সবাই ছাগল দেখে মনে করে মোটা। তখন বেশি দামে ব্যাপারী ছাগল বিক্রি করতে পারে। এমনিতে শুকনা ছাগল দেখলে বেশি লাভ করতে পারবে না।’

হাটে ঘুরতে আসা হাসেম মিয়া বলেন, ‘ছাগল না শুধু গরুকেও এখানে প্রচুর খাবার দেওয়া হয়। এতো বেশি খাবার খেয়ে গরুগুলো দাঁড়াতে পারে না। পেট যাতে ভরা দেখায় সেজন্য এটা করে।’

তিনি বলেন, ‘যারা হাটের ইজারা নেয় তাদের অবশ্যই এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত। এসব অসাধু ব্যবসায়ীদের জন্য কোরবানীর পশু কিনে মানুষ ঠকে যায়।’

ফতুল্লা ডিআইটি মাঠের এখনও ইজারা না হওয়ায় হাটের ইজারাদার কাউকে পাওয়া যায়নি।


বিভাগ : ফিচার


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও