নারায়ণগঞ্জে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো চলবে ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৬:৫২ পিএম, ৪ অক্টোবর ২০২০ রবিবার

নারায়ণগঞ্জে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো চলবে ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত

একদিনের পরিবর্তে এবার নারায়ণগঞ্জে দুই সপ্তাহব্যাপী ৬ থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশুদের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো শুরু হয়েছে। যা চলবে আগামী ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত।

৪ অক্টোবর রোববার সকালে শহরের নিতাইগঞ্জ এলাকায় কিন্ডার কেয়ার স্কুল প্রাঙ্গনে সিটি করপোরেশনের অধীনে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা শেখ মোস্তফা আলী। প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত সিটি করপোরেশনের ১৪৭টি ইপিআই টিকাদান কেন্দ্রে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

শেখ মোস্তফা আলী বলেন, ‘করোনা মহামারীর জন্য একদিনের পরিবর্তে এবার দুই সপ্তাহব্যাপী (সরকারি ছুটিতে বন্ধ) ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। যাতে অভিভাবকেরা তাদের সন্তানদের নিয়ে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর জন্য ভীড় করতে না হয়। এছাড়াও যারা ক্যাপসুল খাওয়াতে আসবেন অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার সহ স্বাস্থবিধি মেনে আসতে হবে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে ভিটামিন ‘এ’ এর অভাবজনিত সমস্যা প্রতিরোধে প্রতি বছরের মতো আজ থেকে ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত (দুই সপ্তাহ কর্মদিবস) ইপিআই রুটিন অনুযায়ী খাওয়ানো হবে। এর ধারাবাহিকতায় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১৪৭টি ইপিআই টিকাদান কেন্দ্রে ৩৪০টি সেশনের মাধ্যমে ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ২১ হাজার ৭৪৩ শিশুকে নীল রঙের ও ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশুকে লাল রঙের ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। এছাড়াও ক্যাম্পেইন চলাকালীন সময়ে জনসাধারণের মধ্যে বিভিন্ন স্বাস্থ্য ও পুষ্টি বার্তা প্রচার করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, ‘৬ থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশুদের মধ্যে ভিটামিন-এ এর অভাবজনিত রাতকানা রেগের প্রাদূর্ভাব এক শতাংশের নীচে কমিয়ে আনা এবং তা অব্যাহত রাখা। এছাড়া শিশুদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে অপুষ্টিজনিত মৃত্যু প্রতিরোধ করা। বর্তমান সময়ে করোনা মোকাবেলায় শিশুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করা জরুরী।’

শিশুর স্বাস্থ্যবার্তা সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘জন্মের পর পরই নবজাতককে শালদুধ সহ মায়ের বুকের দুধ খাওয়াতে হবে। জন্মের পর প্রথম ৬ মাস (১৮০ দিন) শিশুকে শুধুমাত্র মায়ের দুধ খাওয়াতে হবে। পানি, মধু, চিনি বা মিসরির পানি ইত্যাদি খাওয়ানো যাবে না। শিশুর বয়স ৬ মাস পূর্ণ হলে মায়ের দুধের পামাপাশি পরিমানমত ঘরে তৈরী সুষম খাবার খাওয়াতে হবে।’

এছাড়া নারায়ণগঞ্জ সিভিল সার্জন ডা. মুহাম্মদ ইমতিয়াজ জানান, ‘নারায়ণগঞ্জ জেলার ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ৩৭ হাজার ৩৯৩ জন শিশুকে নীল রঙের ভিটামিন এ ক্যাপসুল ও ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী ২ লাখ ৯০ হাজার ৫৮০ শিশুকে লাল রঙের ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো শুরু হয়েছে।


বিভাগ : স্বাস্থ্য


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও