শাহীন ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় মায়ের মৃত্যু, শিশুর অবস্থা আশঙ্কাজনক

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৭:২২ পিএম, ২০ নভেম্বর ২০২০ শুক্রবার

শাহীন ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় মায়ের মৃত্যু, শিশুর অবস্থা আশঙ্কাজনক

নারায়ণগঞ্জ শহরের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় সাথী আক্তার (৩০) নামে প্রসুতির মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় নবজাতক শিশুর অবস্থাও আশঙ্কাজনক। নিহতের স্বজনদের দাবি,‘দুপুরে শিশু প্রসব করার পর ভালো থাকলেও রাতে ডাক্তার ভুল ইঞ্জেকশন দেওয়ায় তার মৃত্যু হয়েছে। ডাক্তার ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কঠোর শাস্তি দাবি করেন তারা। তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ অভিযোগ অস্বীকার করেন।

বৃহস্পতিবার রাতে খানপুর এলাকার ‘শাহীন জেনারেল হাসপাতাল’ নামে ক্লিনিকে ওই ঘটনা ঘটে।

নিহত সাথী আক্তার গোদনাইল এসএ রোড এলাকার বাক প্রতিবন্ধী বাদল মিয়ার স্ত্রী।

বাদলের ভাই মিলন মিয়া বলেন, ‘দুপুরে ব্যাথা শুরু হওয়ার পরই বাড়িওয়ালার পরামর্শ অনুযায়ী আমরা সাথীকে শাহীন মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে আসি। পরে তাকে হাসপাতালের লোকজন গুরুতর বলে সিরাজ করার পরামর্শ দেয়। ডাক্তারের কথা অনুযায়ী আমরাও সিজার করতে অনুমতি দেই। দুপুর দেড়টায় ডাক্তার জাহাঙ্গীর আলম সিজার করলে মা ও শিশু দুইজনই সুস্থ ছিল। কিন্তু রাত ১০টায় ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী একটা ইঞ্জেকশন দেয় তারপরই সাথী মারা যায়। এরপর থেকে তার বাচ্চার অবস্থাও অবনতি হতে থাকে। তাকে নিবির পর্যবেক্ষনে রেখেছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা গরিব ও অশিক্ষিত। ডাক্তারের এতো কিছু বুঝি না। ডাক্তার বলেছে আমরা রাজি হয়েছি। আমাদের মেয়েও সুস্থ ছিল কিন্তু হঠাৎ করে এমন কি করলো যে মারা গেলো। ডাক্তার ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের ভুল চিকিৎসায় সাথীর মৃত্যু হয়েছে। আমরা তাদের বিচার চাই।’

এদিকে এ ঘটনায় রাত সোয়া ১১টায় হাসপাতালে যান সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) পরিমল। তিনি বলেন,‘আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’


বিভাগ : স্বাস্থ্য


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও