বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হওয়ার কারণ জানালেন সেলিম ওসমান


স্টাফ করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ১১:৩৫ পিএম, ১১ অক্টোবর ২০২১, সোমবার
বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হওয়ার কারণ জানালেন সেলিম ওসমান

বাংলাদেশ নিটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিকেএমইএ) পরিচালনা পর্ষদের নব নির্বাচিত সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান বলেছেন, এই নির্বাচনটা এককভাবে নির্বাচন হয়ে গেছে। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতা নির্বাচন হয়ে গেছে। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচন হওয়ার কারণ হচ্ছে বর্তমান অবস্থা খুবই খারাপ। আর আমাকে এখানে আসা ষষ্ঠবারের মতো প্রয়োজন ছিল না। যেহেতু আমার দীর্ঘদিনের একটা অভিজ্ঞাতা আছে সেই অভিজ্ঞতার আলোকে সকল সদস্যরা মিলে আমাকে অনুরোধ করাতে আমি সভাপতি হিসেবে আরেকবার দায়িত্ব নিলাম।

সোমবার (১১ অক্টোবর) বিকেএমইএ ঢাকা কার্যালয়ে ২০২১-২৩ মেয়াদে দায়িত্ব গ্রহণকারী নেতৃবৃন্দের নাম ঘোষণা শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

সেলিম ওসমান বলেন, এই নির্বাচনের মাধ্যমে আমাদের মধ্যে একটা নতুন সম্পর্ক হলো। নির্বাচন অনেক কষ্ট করেই নির্বাচনটা করেছেন। তবে নির্বাচনটা নির্বাচনের মতো হয় নাই। আগে আমরা ২৭ জন বাংলাদেশ নিটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিকেএমইএ) পরিচালনা করতাম। এবার আমরা এটা ৩৫ জনে উন্নীত করেছি। ৩৫ জনের মধ্যে কে কি কাজ করবো সেটা ভাগ করে নিবো।

তিনি আরও বলেন, আমাদের পুরানো কিছু লোক রয়েছেন যারা এখনও বেঁচে আছি তাদের সাথে রয়েছে ইয়ং ব্যাচ। সকলে মিলে কাজ করলে বর্তমান যে দূরাবস্থা চলছে আমাদের সুতার প্রবলেম আমাদের দেশে কোনো র ম্যাটারেলস হয় না আমরা বাইরে আমদানি করে নিয়ে এসে পণ্য উৎপাদন করে রপ্তানি করতে হয়। এর সমস্ত কৃতিত্ব আমাদের শ্রশিকদের। আমাদের শ্রমিকদের হাতে কাঁচামাল তুলে না দিলে শ্রমিকদের অবস্থা খারাপ হয়ে যাবে আমার যারা উদ্যোক্তা আছি তাদের অবস্থাও খারাপ হয়ে যাবে। আমরা বিপদে পড়ে যাবো। সেই সাথে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন বন্ধ হয়ে যাবে।

সেলিম ওসমান বলেন, আমাদের ৬৫ পার্সেন্ট মহিলা শ্রমিক। এই সেক্টর বন্ধ হয়ে গেলে তারা বিকল্প কোনো পথ পাবে না। সুতরাং দেশের স্বার্থে প্রায় দুই কোটি মানুষের রুটি রোজগারের স্বার্থে এই অবস্থার উত্তরণ ঘটাতে হবে। জীবনের শেষ সময়টুকু চাচ্ছি এই সেক্টরে সুসময় ফিরে আসুক। এই ক্ষেত্রে উন্নয়ন হলে দেশের উন্নয়ন হবে। সরকারের সহযোগিতা কামনা করছি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআই এর সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলী, বাংলাদেশ ইয়ার্ন মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি মো. সোলায়মান, নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবি সমিতির সাবেক সভাপতি হাসান ফেরদৌস জুয়েল, এফবিসিসিআই এর সাবেক পরিচালক প্রবীর কুমার সাহা চেয়ারম্যান, এনসিসিআই এর সাবেক সহ-সভাপতি রাশেদ সারোয়ার এবং নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আরিফ আলম দীপু প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর