সুফিয়ানের বাবা পেনশনের টাকা ব্যয় করেন মাদ্রাসা এতিমখানায়


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৬:৩৯ পিএম, ০২ জানুয়ারি ২০২১, শনিবার
সুফিয়ানের বাবা পেনশনের টাকা ব্যয় করেন মাদ্রাসা এতিমখানায়

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম আবু সুফিয়ান বলেছেন, আমরা যখন রাজনৈতিক কারণে কোন মিছিল মিটিং করি তখন আমাদের লোকের অভাব হয়না, আমাদের সামাজিক অনুষ্ঠানেও লোকের অভাব হয়না। একজন স্কুল শিক্ষক যিনি আমাদের শিক্ষার আলো জ্বালিয়েছেন আমাদের মানুষ করেছেন তারা কিন্তু আমাদের বাবা মায়ের দায়িত্ব পালন করে আমাদেরকে শিক্ষিত করে গড়ে তোলেন। বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে হয়তো অনেক আগেই এই শিক্ষক জাতির ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটতো। আমরা এখনো আমাদের শিক্ষকদের সঠিক মূল্যায়ন করতে পারিনি। আগে শিক্ষকদের যে বেতন কাঠামো ছিল মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সেই বেতন এখন একটি মানসম্মত জায়গায় এসে পৌছেছে।

২ জানুয়ারী শনিবার বেলা ১১টায় ৫৭নং লক্ষণখোলা বালিকা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফরিদা বেগম ও ম্যানেজিং কমিরি সভাপতি নুর হোসেন বিদায় সংবর্ধনা ও আলোচনা সভার প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

৫৭নং লক্ষণখোলা বালিকা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজ কমিটির নতুন সভাপতি মোঃ বসির আহম্মেদের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন, বন্দর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মোঃ আতাউর রহমান, আওয়ামীলীগ নেতা আবুল ফজল আযম প্রমুখ।

তিনি বলেন, আমি সেদিন বাবার ইনকাম ট্যাক্সের ফাইল জমা দিতে গিয়ে দেখলাম আমার বাবা এখন পেনশন পায় ৯ হাজার ৬৬৭ টাকা। এর মানে এটি একটি মানসম্মত জায়গায় রয়েছে। যদিও আমার বাবা তার পেনশনের টাকা দুটি মাদ্রাসায় দেন এবং ৪টি এতিম বাচ্চার সবসময় খরচ দেন। আরো কিছু খরচ উনি সারাবছর শিক্ষার পেছনে ব্যয় করেন। আমাদের মিছিল মিটিংয়ে কোয়ান্টিটি অনেক হয় তবে কোয়ালিটি কম থাকে। এখানে সবাই কোয়ালিটি সম্পন্ন লোক। আশা করি ভবিষ্যতে আমাদের সমাজ শিক্ষকদের সর্বোচ্চ সম্মান দেবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর