মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু আত্মহননে


স্টাফ করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:১৯ পিএম, ২৮ এপ্রিল ২০২১, বুধবার
মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু আত্মহননে

হত্যা নয়। আত্মহত্যাই করেছিলো সিদ্ধিরগঞ্জের নাসিক ১০নং ওয়ার্ডের রসুলবাগ রওজাতুল উলুম মাদ্রাসার ছাত্র সাব্বির (১৪)। ময়নাতদন্ত রিপোর্টে তেমনটাই বলা হয়েছে বলে জানান সিদ্ধিরগঞ্জ থনা পুলিশ। কিন্তু এর আগে পরিবারের দাবীর প্রেক্ষিতে পুলিশ হত্যা মামলা নিতে বাধ্য হয়েছিলো। এ ঘটনায় পুলিশ সাত জনকে গ্রেফতার করেছিলো। গ্রেফতার কৃতদের মধ্যে তিনজন মাদ্রাসা শিক্ষক ও চারজন ছাত্র।

উল্লেখ্য চলতি বছরের ১০ মার্চ নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের নাসিক ১০নং ওয়ার্ডের রসুলবাগ রওজাতুল উলুম মাদ্রাসার ছাত্র সাব্বির (১৪) গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। মাদ্রাসা থেকে সাব্বিরের আত্মহত্যার খবর তার পরিবারকে জানানো হয়। পরবর্তীতে পরিবারের লোকজন মাদ্রাসায় এসে তার লাশ নিয়ে যায়। এবং গ্রামের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের রুপগঞ্জে দাফন করা হয়। এর আগে গোসলের সময় নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন আছে বলে দেখতে পায় লোকজন। বিষয়টি মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষকে জানায় পরিবার। পরে মাদ্রাসা থেকে অজ্ঞাত এক শিক্ষক নিহত ছাত্রের পরিবারকে সাব্বিরের মৃত্যুর বিষয়টি পুলিশকে না জানানোর পরামর্শ দেন। ওই ফোনের পর নিহতের পরিবারে ছাব্বিরের মৃত্যু নিয়ে সন্দেহের সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে পরিবারের অভিযোগের প্রেক্ষিতে হত্যা মামলা নেয়া হয়।

নিহত ওই মাদ্রাসা ছাত্র সাব্বিরের ময়না তদন্ত প্রতিবেদন ইতোমধ্যে পুলিশের হাতে এসে পৌছেছে। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মশিউর রহমান জানায়, মাদ্রাসা ছাত্র সাব্বির হত্যাকান্ডের অভিযোগে দায়ের করা মামলার ময়না তদন্ত প্রতিবেদন আমাদের হাতে এসে পৌছেছে। রিপোর্টে সাব্বিরের মৃত্যুর কারণ আত্মহত্যা বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর