জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সহ ভাতিজাকে হুঁশিয়ার


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০২:৫৪ পিএম, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার
জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সহ ভাতিজাকে হুঁশিয়ার

নারায়ণগঞ্জ শহরের মাসদাইর এলাকায় লিজকৃত জমি থেকে উচ্ছেদ ও একই জমিতে অবৈধভাবে পুনরায় লীজ দেওয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছেন দোকানদার ও কর্মজীবীরা।

বৃহস্পতিবার ১৭ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টায় মাসদাইর কবরস্থান এলাকায় নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের নবনির্মিত যাত্রী ছাউনির সামনে ওই মানববন্ধন করা হয়।

এসময় নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, তাঁর ভাতিজা ও ঠিকাদারের বিরুদ্ধে হুশিয়ারী দিয়ে বলেন, অবিলম্বে এ অবৈধ সিদ্ধান্ত বাতিল না করা হলে প্রয়োজনে সড়কমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, এমপি শামীম ওসমান, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে এ বিষয়ে স্মারকলিপি দেয়া হবে।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদ থেকে লীজদারী আসলাম মন্ডল, নাসির মাইজভান্ডারী, উহিদ ফকির, সিরাজুল ইসলাম, মনির হোসেন, আলী প্রধান, মনির হোসেন মনু, তোফাজ্জল মিয়া, সালাউদ্দিন, রাজ্জাক মিয়া, কাশেম মিয়া, আশরাফ, মেহেদী হাসান, মো. জাহাঙ্গীর, জাকির হোসেন, সৈয়দুল ইসলাম, শাহজাহান মাইজভান্ডারী, রাজা মন্ডল, রমজান সহ প্রায় ২ শতাধিক কর্মজীবী শ্রমিকেরা।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, জেলা পরিষদের যাত্রী ছাউনী নামে এখানে অনেক দোকান (লীজকৃত জমি) উচ্ছেদ চালায় চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন। সওজ থেকে এই উচ্ছেদ করা হচ্ছে বলে অনেক ব্যবসায়ীরা প্রতিবাদ করেনি। কিন্তু পরে জানা গেছে, যাত্রী ছাউনী নামে এই উচ্ছেদ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে বুধবার জেলা পরিষদের মার্কেট নামে আবারো উচ্ছেদের ঘোষণা দিয়ে চেয়ারম্যান, তার ভাতিজা ও ঠিকাদারের লোকজন। এভাবে সওজ জমি জেলা পরিষদ থেকে লিজ দিয়ে হঠাৎ উচ্ছেদ চালাবে, তা মেনে নিবো না।

এখানে প্রায় ২০/২৫ প্রতিষ্ঠান রয়েছে, সে সাথে প্রায় ৫ হাজার পরিবার এর সাথে পেট চলে। আমরা তো লীজের টাকা দেই, ২০১৫ সালে সওজ থেকে একটি রিটের কারণে জেলা পরিষদ থেকে নবায়ন করা যাচ্ছে না। চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনের সাথে আমরা ব্যবসায়ীরা সাক্ষাৎ করেছিলাম। তিনি আমাদের অবৈধ জায়গা বলে আমাদের চলে যেতে বলেছে। চেয়ারম্যান আবার কিভাবে এই অবৈধ জমিতে মার্কেট নির্মাণ করে দোকান বরাদ্ধ নামে ৫/১০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে চেয়ারম্যান লোকজনেরা। ঠিকাদার ও তার লোকজন ইতিমধ্যে মার্কেটের অর্ধেক দোকান বরাদ্ধ হয়েছে বলে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর