মায়ের পেট থেকেই জয় বাংলা স্লোগান জানি


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ১০:৪২ পিএম, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, শনিবার
মায়ের পেট থেকেই জয় বাংলা স্লোগান জানি

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ডা. সেলিনা হায়াত আইভী মেয়র আইভী মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ২০১১ এর কথা আমি ভুলবনা। যখন মুক্তিযোদ্ধারা আমার পাশে এসে দাঁড়িয়েছিল। তারা আমাকে তাদের মুক্তিযোদ্ধা সংসদে বসিয়েছিল এবং আমার সাথে বেরিয়েছিল। বাবার মুখে মুক্তিযোদ্ধাদের কথা শুনে শুনেই বড় হওয়া। জয় বাংলার স্লোগান যেন মায়ের পেটের ভেতর থেকেই জানি। জন্ম থেকেই শুনে আসছি, রক্তে মাংসে মিশে আছে জয় বাংলা, বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ। বাংলাদেশ, বঙ্গবন্ধু এবং মুক্তিযোদ্ধা এই তিনটাকে স্বরণ রেখে এই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।

শনিবার (১৬ জানুয়ারি) বিকেলে সিদ্ধিরগঞ্জে জালকুড়ি বাস স্ট্যান্ড থেকে ২নং ঢাকেশ্বরী পর্যন্ত সংযোগ সড়কের ‘মুক্তিযোদ্ধা সড়ক’ নামকরণ সহ ৩টি সড়কের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন এবং ৫ শতাধিক শীতার্তকে কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে এসে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

আইভী আরো বলেন, যারা বাংলাদেশকে, মুক্তিযোদ্ধাকে এবং বঙ্গবন্ধুকে অস্বীকার করবে, তাদের অস্তিত্বতো বাংলাদেশে থাকারই কথা নয়। বঙ্গবন্ধুকে স্বীকার করে মুক্তিযোদ্ধাদের মেনে এবং সম্মান করেই এ দেশ চালাতে হবে। সে যে-ই হোক না কেন। কারণ কোন দেশ-ই তাদের ইতিহাসকে মুছে দেয়না। বিভিন্ন দেশের মধ্যেই কিন্তু দল পরিবর্তন হয়। কিন্তু দেশের ইতিহাস কেউই অস্বীকার করতে পারেনা। মাঝে মাঝে আমরা বাঙালীরা শুধু ভুলে যাই যে, আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। যার নেতৃত্বে এই দেশ স্বাধীন হয়েছে।

উন্নয়ন বিষয়ে মেয়র আইভী বলেন, আমার কাজ হলো মানুষের উন্নয়ন করা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বিগত ৫ বছরে আমাকে যে পরিমাণ টাকা অনুদান দিয়েছেন, যদি তা না দিতো তাহলে আমি উন্নয়ন করতে পারতামনা। আর উনি কখনও আমাকে বলে নাই, ‘তুমি শুধু আওয়ামীলীগের লোকদেরই উন্নয়ন করবা, বিএনপির কোন উন্নয়ন করবেনা’ এমন কথা প্রধানমন্ত্রী কখনও বলেনাই। সমানভাবে উন্নয়ন করতে বলেছেন।

নাসিক ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইসরাফিল প্রধানের সভাপতিত্বে এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন প্যানেল মেয়র-১ আফসানা আফরোজ বিভা, ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রুহুল আমিন মোল্লা, সংরক্ষীত নারী কাউন্সিলর আয়েশা আক্তার দিনা, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামলীগের সদস্য বদিউজ্জামান বদু, মহানগর যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি কামরুল হুদা বাবু, জালকুড়ি স্কুল অ্যান্ড কলেজের সভাপতি এস.এম. কামাল হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা শাজাহান ভূইয়া জুলহাস, আয়াত আলী, আব্দুল মতিন, এহসান কবির রমজান, মহিউদ্দিন মোল্লা, রেজাউল করিম কুদরত, আব্দুল মালেক, মজিবুর রহমান সাউদ, বায়েজিদ আহমেদ, সমাজ সেবক মোঃ সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, বশির আহমেদ প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর