ঘাতক জাহাজ আটক


স্টাফ করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৩:১৪ পিএম, ০৮ এপ্রিল ২০২১, বৃহস্পতিবার
ঘাতক জাহাজ আটক

নারায়ণগঞ্জে শীতলক্ষ্যায় সাবিত আল হাসান নামের লঞ্চ ডুবিতে ৩৪ যাত্রী নিহত হওয়ার ঘটনায় ধাক্কা দেওয়া সেই কার্গো ‘এমভি-এসকেএল-৩’ জাহাজ সহ ১৪ নাবিক আটক করা হয়েছে।

৮ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়া এলাকা থেকে জাহাজটি আটক করা হয়।

নারায়ণগঞ্জের ডিসি মোস্তাইন বিল্লাহ জানান, লঞ্চটিকে ধাক্কা দিয়ে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া কোস্টগার্ড স্টেশনের কাছে গিয়ে নোঙ্গর করেছিল এসকেএল-৩ নামের জাহাজটি। এই সময়ের মধ্যে তারা জাহাজটির রঙ পরিবর্তন করে ফেলেছে। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে কোস্ট গার্ড সদস্যরা তাদের আটক করে। জাহাজে থাকা আটককৃতরা লঞ্চটিকে ধাক্কা দেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন।

রোববার সন্ধ্যার দিকে নারায়ণগঞ্জ শহরের বিআইডব্লিউটিএ টার্মিনাল থেকে ছেড়ে যাওয়া যাত্রীবাহী লঞ্চ এমএল সাবিত আল হাসানকে শহরের কয়লাঘাট এলাকায় কার্গো জাহাজ এসকেএল-৩ পেছন থেকে ধাক্কা দিলে ডুবে যায়। লঞ্চের অনেকে সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও নিখোঁজ থাকেন অনেকে। পরে ৩৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

প্রসঙ্গত গত ৪ এপ্রিল সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে সৈয়দপুর কয়লাঘাট এলাকায় কার্গো জাহাজ ধাক্কা দিয়ে ‘সাবিত আল হাসান’ নামে লঞ্চটি অর্ধশতাধিক যাত্রীসহ ডুবিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় সাঁতরে ১৫ থেকে ২০জন তীরে উঠতে পারলেও নিখোঁজ ছিল ৩৬জন। পরে রোববার রাত থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত ৩৪জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। যার মধ্যে এখনও নিখোঁজ রয়েছে দুইজন। এ ঘটনায় জেলা প্রশাসন, বিআইডব্লিউটিএ ও নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় পৃথক তিনটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন। তদন্ত কমিটিকে ৭ কার্য দিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়। এ ঘটনায় ৬ এপ্রিল রাতে বন্দর থানায় অজ্ঞাত আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর