আমার মাথা ফাটিয়ে রক্ত বের করবেন


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ১১:২৬ এএম, ১৬ অক্টোবর ২০২১, শনিবার
আমার মাথা ফাটিয়ে রক্ত বের করবেন

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ বলেছেন, আমরা কোথায় কী হল তা জানতে চাই না বুঝতে চাই না। আমাদের প্রত্যাশা থাকবে এই নারায়ণগঞ্জ শহরে হিন্দু মুসলিমকে কেন্দ্র করে কেউ কোনদিন কোন বিশৃঙ্খলা করতে পারবে না ইনশাআল্লাহ। আর যদি কেউ করার চেষ্টাও করে এই হিন্দু মুসলমান নারায়ণগঞ্জে আমরা যেখাবে গত পাঁচশ বছর ধরে ভাই ভাই হিসেবে একত্রে এক বাড়িতে বসবাস করেছি। তেমনি আমরা রাম-রহিম সকলে নিজেরা মিলে একে প্রতিহত করবো। কেউ বিন্দুমাত্র টেনশনে ভুগবেন না। আপনারা আপনাদের আনন্দ নির্মল ভাবে পালন করবেন।

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) রাতে শহরের আমলাপাড়া পূজা মন্ডপ পরিদর্শন ও নিরাপত্তা ব্যাবস্থা পর্যবেক্ষণ শেষে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে সকলের উদ্দেশ্যে একথা বলেন তিনি।

এসময় খোরশেদ বলেন, বিশৃঙ্খলাকারীদের কোন ধর্ম নেই, কোন দল নেই। তাদের একটাই পরিচয় তারা সমাজ বিরোধী। ধর্ম মানুষকে আলোকিত করে।একজন প্রকৃত মানুষ কোনদিন অন্য ধর্মকে আঘাত করতে পারে না।

এসময় খোরশেদ আরো বলেন, আমি বিশেষভাবে আনন্দিত আমি গত আঠারো বছর ধরে এই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর। নারায়ণগঞ্জে যতগুলো পূজা মন্ডপ হয়, তার মাঝে সবচেয়ে সেরা পূজা মন্ডপটি এই আমলাপাড়ায় আমাদের ওয়ার্ডে হয়। এজন্য আমি এর আয়োজক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক শ্যামল দা সুজিদ দা সহ আমি সকলকে আমি অন্তরের অন্তস্থল থেকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাই। করোনার কারণে গত বছর অত বড় করে আয়োজন করা যায়নি আমরা জানি। আগামী দিনগুলোতে যেন আরও ব্যাপক পরিসরে আয়োজন হয় সে চেষ্টা কমিটিও করবে আমরাও করবো।

তিনি বলেন, আমি এ মুহূর্তে আপনাদের কাছে একটা বিনীত অনুরোধ রাখতে চাই। সবাই যেন করোনার ব্যাপারে সতর্ক থাকি এবং মাথায় যেন কোন দুশ্চিন্তা না রাখি। কারণ আমাদের বিশ্বাস সকল ধর্মই মানুষকে আলোকিত করে। একজন প্রকৃত ধার্মিক সে হিন্দু হোক মুসলিম হোক সে কোনদিন বিশৃঙ্খলায় বিশ্বাসী হতে পারে না। আমি নিজেকে একজন প্রকৃত মুসলিম দাবী করে বলতে চাই কোন প্রকৃত মুসলিম কোন হিন্দুকে বিরক্ত করতে পারে না কোন প্রকৃত হিন্দু কোন মুসলিমকে বিরক্ত করতে পারে না।

তিনি আরও বলেন, যারা বিশৃঙ্খলা করতে চান, যারা উস্কানিমূলক কথাবার্তা বলেন তাদের প্রতি আমার অনুরোধ, আমি ক্ষুদ্র মানুষ। আমিতো সারা নারায়ণগঞ্জের দায়িত্ব নিতে পারব না। আমি আমার ওয়ার্ডের দায়িত্ব নিতে পারব। কারও যদি মারামারি করতে ইচ্ছে হয়, রক্তপাত করতে ইচ্ছে হয়, কারও মাথা ফাটাতে মনে চায় দয়া করে আমাকে খবর দেবেন। আমি মাথা পেতে দেব, আমার মাথা ফাটিয়ে রক্ত বের করবেন। তবুও ধর্মের নামে কোন বিশৃঙ্খলা কেউ করবেন না।

তিনি বলেন, সবচেয়ে সেনসেটিভ ইস্যু এই ধর্ম। আমরা প্রত্যেকটা দুর্যোগ সম্মিলিত ভাবে হিন্দু মুসলমান ভাই ভাই মিলে প্রতিহত করবো। সেটা কোন মানুষের তৈরি করা দুর্যোগ হোক বা প্রাকৃতিক দুর্যোগ হোক।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর