ফতুল্লায় ছুরিকাঘাতে মা-ছেলে খুনের ঘটনায় স্বামী রিমান্ডে


ফতুল্লা করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ১০:৩৮ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার
ফতুল্লায় ছুরিকাঘাতে মা-ছেলে খুনের ঘটনায় স্বামী রিমান্ডে

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীর ছুরিকাঘাতে স্ত্রী ও তার ছেলে খুনের ঘটনায় স্বামী হারেজ মিয়ার বিরুদ্ধে ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। ২৪ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে তদন্তের স্বার্থে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ কাউসার আলমের আদালতে তোলা হলে আদালত ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ড প্রাপ্ত স্বামী হারেজ ময়মনসিংহ ত্রিশালের দূর্গাপুর এলাকার আবুল কাশেমের ছেলে। সে পশ্চিম ভোলাইল শাহ আলমের টিনের তৈরি ভাড়াটিয়া ঘর নিয়ে ভাড়া হিসেবে বসবাস করতেন। রিমান্ডের সত্যতা নিশ্চিত করে কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান জানান, মামলার তদন্তের স্বার্থে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে আদালত শুনানী শেষে ২ দিনের মঞ্জুর করেছেন।

ঘটনা সূত্রে জানা যায়, ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার রিকশা চালক হারেস মিয়া পরিবার নিয়ে ফতুল্লার পশ্চিম ভোলাইল এলাকায় শাহ্ আলমের টিনের ঘরে ভাড়া থাকেন। তার স্ত্রী মনোয়ারা বেগম স্থানীয় একটি মিনি গার্মেন্টসে এবং ছেলে সোহাগ স্থানীয় একটি গার্মেন্টসে কাজ করতেন। তাদের ১২ বছর বয়সী মেয়ে বীথি আক্তার স্থানীয় ভোলাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়তেন। তাদের সংসারে প্রায়ই ঝগড়া-বিবাদ লেগে থাকত। ঘটনার দিন রাতেও পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া হয়।

ঝগড়ার এক পর্যায়ে রাত ২টার দিকে হারেস মিয়া ধারালো ছোরা নিয়ে স্ত্রীকে আঘাত করেন। এ সময় মাকে বাঁচাতে সোহাগ এগিয়ে গেলে তাকেও আঘাত করেন। পরে হারেস নিজে তার পেটে ছুরিকাঘাত করেন। এই ঘটনায় পরে স্ত্রী ও তার ছেলে নিহত হন।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর