পাগলার আমতলায় একটি পরিবারের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ


ফতুল্লা করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:২০ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, শুক্রবার
পাগলার আমতলায় একটি পরিবারের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ

ফতুল্লার পাগলা আমতলায় একটি পরিবারের তিনজনকে গ্রেফতারের দাবিতে ফতুল্লা থানার সামনে বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী। শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) রাতে ভুক্তভোগী এলাকাবাসী রাবিয়া, তার বোন জামাই শ্যামল, ভাগ্নে ইমন ও সুমনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সহ লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন পূর্ব শাহি মহল্লা নিশ্চিন্তপুর পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি শফিকুল ইসলূম সরকার, সাধারণ সম্পাদক আলী আরশাদ সহ প্রায় অর্ধ শতাধিক ভুক্তভোগী এলাকাবাসী।

জানা যায়, পাগলা নিশ্চিন্তপুর আমতলা এলাকার রাবিয়া (৪৬), তার স্বামী শ্যামল (৩০) ও রাবিয়ার দুই পুত্র ইমন (২৭) ও সুমনের (২০) অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে পরেছিলো স্থানীয় সকল শ্রেনীর পেশাজিবী মহল। বিশেষ করে রাবিয়ার স্বামী শ্যামল ও তার দুই পুত্র ইমন, সুমনের চাঁদাবাজীতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিলো স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

স্থানীয় ব্যবসায়ী মো. রহমত উল্লাহ জানান তার দোকানে এসে ইমন দুইদিন পূর্বে ৫ হাজার টাকা বিকাশ করে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে সে টাকা ফেরত চাইলে তাকে মারধর করার হুমকি প্রদান করে।

হকার আজিজ জানান, বৃহস্পতিবার সকালে ইমন ও তার ভাই সুমন বাবা শ্যামলের উপস্থিতিতে তার নিকট থেকে জোর পূর্বক ২ হাজার টাকা নিয়ে যায়। এ বিষয়ে সে প্রতিবাদ করলে তাকে মারধর করা হয়।

ভাঙ্গারী ব্যবসায়ী মহিউদ্দিন জানান, প্রতিদিন ইমন ও সুমন তার দোকান থেকে দৈনিক ৩০০ টাকা করে চাঁদাদাবী করে আসছে। আর এ কারণে সে গত কয়েকদিন ধরে তার দোকান বন্ধ করে রেখেছে। অটোরিক্সা ব্যবসায়ী আসলাম জানায় তার নিকট থেকে চাঁদা দাবী করে আসছে তিনি চাঁদা প্রদানে অস্বীকার করলে তাকে হুমকি দিচ্ছে।

পাগলা পূর্ব শাহি মহল্লা নিশ্চিন্তপুর পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি শফিকুল ইসলাম সরকার জানায়, রাবিয়ার পরিবারকে এলাকার সকলেই সমীহ করে চলে। রাবিয়া তার স্বামী শ্যামল দুই পুত্র ইমন ও সুমন এলাকায় নানা অপরাধের জন্ম দিচ্ছে। চাঁদাবাজী, ছিনতাই সহ নানা অপরাধের জন্ম দিয়ে স্থানীয়বাসীকে জিম্মি করে রেখেছে। এ সকল বিষয়ে সে সহ এলাকার মুরুব্বিদের অনেকেই প্রতিবাদ করতে গিয়ে নাজেহাল হয়েছেন।

ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (আইসিপি) শহিদুল ইসলাম খান হক জানান, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের প্রমান মিলেছে। ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর