অনেক আইনজীবী পেশা পরিবর্তন করেছে


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:৪৫ পিএম, ১০ জুন ২০২১, বৃহস্পতিবার
অনেক আইনজীবী পেশা পরিবর্তন করেছে

নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সিনিয়র সদস্য অ্যাডভোকেট রফিক আহমেদ বলেন, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে সরকারি সকল প্রতিষ্ঠান চলমান আছে। শুধুমাত্র আদালত আর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। ইতোমধ্যে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলার আইনজীবীরা নিজেদের জীবন জীবিকার তাগিদে নিজেদের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে আসছে। আমরা মানুষ আমাদের সংসার আছে আমাদের চলতে হয়। আমাদের চলার পথে বাধা সৃষ্টি করবেন না।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে নিয়মিত আদালত চালু করার দাবীতে নারায়ণগঞ্জ জেলা সাধারণ আইনজীবীদের ব্যানারে আয়োজিত মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ১০ জুন বৃহস্পতিবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির ভবনের সামনে এই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

রফিক আহমেদ বলেন, অনেক আইনজীবী পেশা পরিবর্তন করছেন। কারণ এই পেশায় এসে নিজেদের জীবিকার চাহিদা মেটাতে পারছেন না। বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমনও শুনা যাচ্ছে আইনজীবী তরকারি ব্যবসা করছে। কারণ আইনি পেশায় থেকে নিজের সংসার চালাতে পারছে না। একজন আইনজীবীর সামাজিক চাহিদা অনুযায়ী অনেক খরচ বহন করতে হয়। কিন্তু সেই খরচ মেটাতে বার কাউন্সিল কিংবা সরকার কেউ এগিয়ে আসে নাই। এগিয়ে আসবে কিনা তাও জানি না।

তিনি আরও বলেন, আমরা আশা করবো সরকারি যদি আমাদেরকে রাষ্ট্রের নাগরিক ভেবে থাকেন তাহলে নিয়মিত কোর্ট চালু করবেন। ভার্চুয়াল কোর্টে লুকোচুরির বিচার হয়। এই বিচার কেউ দেখে না ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা হয় না। ভাচুয়াল কোর্টের মাধ্যমে কচুক্রী মহল গোপনে কাজ করে ন্যায়বিচার ব্যাহত করছে। ভার্চুয়াল আদালতের কারণে সামাজিক অপরাধ বৃদ্ধি পাচ্ছে। কারণ খুন করেই খুনের আসামী সামান্য সময়ের মধ্যেই জামিন পেয়ে যায়। আমরা অচিরেই নিয়মিত আদালত চালুর দাবী জানাই।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর