বাদলের নাকে দুর্গন্ধ


স্টাফ করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ১০:৫৩ পিএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, শনিবার
বাদলের নাকে দুর্গন্ধ

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সেক্রেটারী আবু হাসনাত শহীদ বাদল লিংক রোডের দুই পাশে ময়লা আবর্জনা ফেলানোতে দুর্গন্ধ পাচ্ছেন। তিনি দাবী করেছেন, এসব ময়লা আবর্জনা সিটি করপোরেশন ফেলছে। এসব কারণে আমাদের বদনাম হচ্ছে।

১৭ সেপ্টেম্বর রাতে শহরের পাইকপাড়ায় ১৭নং ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের কর্মীসভায় বাদল প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তবে বাদলের এসব বক্তব্যের সঙ্গে বাস্তবতার আদৌ কোন মিল নাই। কারণ সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্ন কর্মীরা রাস্তায় বা খালে কোন ময়লা আবর্জনা ফেলে না। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৮নং ওয়ার্ডের শহীদ নগর এলাকায় জায়গা দেওয়া হয়েছে। সেখানে ময়লা আবর্জনা ফেলা হচ্ছে। বন্দরের ময়লা বন্দরে ডাম্পিং করা হয় আর সিদ্ধিরগঞ্জ ও শহরের ময়লা আবর্জনা শহীদ নগর ফেলা হয়।

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডে এখন কারা ময়লা আবর্জনা ফেলছে? জবাবে সিটি করপোরেশনের সংশ্লিষ্টরা বলেন, ‘স্থানীয় লোকজন ও ইউনিয়ন পরিষদ থেকেই এখানে ময়লা আবর্জনা ফেলা হচ্ছে। যারা ফেলছে তাদের জিজ্ঞাসা করলেই পাওয়া যাবে।’

সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ আফসানা আফরোজ বিভা সময়ের নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘সিটি করপোরেশন এলাকার বর্জ্য বাইরে কোথাও ফেলা হয় না। এখানে ১২০০ পরিচ্ছন্ন কর্মী কাজ করে। তারা ট্রাকে করে ময়লা আবর্জনাগুলো ওয়ার্ডগুলোতে থেকে সংগ্রহ করে শহীদ নগর ডাম্পিংয়ে ফেলে। যারা বলছেন সিটি করপোরেশনের ময়লা আবর্জনা খালে বা রাস্তায় ফেলে তাদের অভিযোগ মিথ্যা। রাজনীতির জন্য এসব কথা বলতে পারে। তাছাড়া এর কোন প্রমাণ দিতে পারবে না।’

এর আগে মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, জালকুড়িতে যদি সিটি করপোরেশনের কেউ ফেলে প্রমাণ দিতে পারলে ওইসব ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ভবিষ্যতে সিটি করপোরেশনের ময়লা থেকে বিদ্যুৎ হবে। সেহেতু ময়লা পাওয়া তখন সংকট হয়ে যাবে।’

প্রসঙ্গত ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের জালকুড়িতে আগে আবর্জনা ফেলতো সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ। সেখানে কিছুদিন পর পর বাধা দেওয়ার কারণে ঘটে নানা ঘটনা। সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ ক্ষুব্ধ হয়ে এক সময়ে জেলা প্রশাসকের বাড়ির সামনে আবর্জনার ট্রাক রেখে ক্ষোভ প্রকাশ করে। ওই সময়ে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি এ আবর্জনা ফেলা নিয়ে অনেক সমালোচনা করেন। কিন্তু দুই বছর ধরে জালকুড়িতে লিংক রোডের পাশের সেই স্থানে সিটি করপোরেশন আবর্জনা ফেলা বন্ধ করে দিয়েছে। তারা ফেলছে শহীদ নগর এলাকাতে। তবে ওই জালকুড়িতে এতদিন ধরে আবর্জনা ফেলতো ফতুল্লা থানার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদ এলাকার লোকজন। ভ্যানগাড়ি দিয়ে কয়েকটি এনজিও সংস্থা এসব আবর্জনা বাড়ি বাড়ি থেকে সংগ্রহ করে ফেলতো। ২০২০ সালের ২০ আগস্ট থেকে সেখানে আবর্জনা ফেলতে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে পাশেই থাকা বিজিবি ক্যাম্পের লোকজন।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর