১৬ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান ৫৮


স্টাফ করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ১০:৪৮ পিএম, ২১ অক্টোবর ২০২১, বৃহস্পতিবার
১৬ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান ৫৮

দ্বিতীয় ধাপে নারায়ণগঞ্জের ১৬টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান, মেম্বার ও সংরক্ষিত নারী মেম্বারদের মনোনয়ন পত্র বাছাই হয়েছে। ২১ অক্টোবর এসব মনোনয়ন পত্র বাছাই করা হয়। জেলা নির্বাচন অফিসার মতিয়ুর রহমান সাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে। এর মধ্যে ১৬ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৬৪ জনের মধ্যে ৬ জনের মনোনয়ন বাতিল, সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডে ১৬৯ জনের মধ্যে ৬ ও পুরুষ সদস্য পদে ৬১১ জনের মধ্যে ২৮ জনের মনোনয়ন পত্র বাতিল হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ সদর : সদর উপজেলার আলীরটেক ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এর মধ্যে জাকের পার্টির প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র বাতিল হয়। এখানে বৈধ চেয়ারম্যান প্রার্থী ৩ জন। এছাড়া ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে (নারী) মেম্বার পদে ৯ জনের সকলের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়। ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে মেম্বার পদে ৩০ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন যাদের মধ্যে ২ জনের বাতিল ও ২৮ জনের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

বক্তাবলী ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করলেও ২জনের বাতিল হওয়ায় বর্তমান চেয়ারম্যান শওকত আলী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয়ের পথে। এছাড়া ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে (নারী) মেম্বার পদে ১১ জনের সকলের মনোনয়ন বৈধ হয়েছে। ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে মেম্বার পদে ৪২ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন যাদের মধ্যে একজনের মনোনয়ন বাতিল হয়েছে।

এনায়েতনগর ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছে যাদের মধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে (নারী) মেম্বার পদে ১০ জনের মধ্যে ২ জনের বাতিল ও ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে মেম্বার পদে ৪০ জন প্রার্থীর মধ্যে ৩ জনের মনোনয়ন বাতিল হয়েছে।

গোগনগর ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন প্রার্থীর সকলের মনোনয়ন বৈধ হয়েছে। ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে (নারী) মেম্বার পদে ৯ জনের সকলের মনোনয়ন বৈধ, ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে মেম্বার পদে ৩৬ জন প্রার্থীর মধ্যে একজনের মনোনয়ন অবৈধ হয়েছে।

কাশিপুর ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থীর সকলের মনোনয়ন বৈধ হয়েছে। ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে (নারী) মেম্বার পদে ১০ জনের সকলের মনোনয়ন বৈধ হয়েছে। ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে মেম্বার পদে ৩৫ জন প্রার্থীর মধ্যে ৩৩ জনের মনোনয়ন বৈধ হয়েছে।

কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন যাদের সকলের মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছে। তার মধ্যে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী ১ জন, ইসলামী আন্দোলন মনোনীত প্রার্থী ১ জন, বাসদ মনোনীত প্রার্থী ১জন ও জাকের পার্টি মনোনীত প্রার্থী ১ জন। ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে (নারী) মেম্বার পদে ১১ জনের মনোনয়ন বৈধ হয়েছে। ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে মেম্বার পদে ৫১ জন প্রার্থীর মধ্যে ৪৬ জনের মনোনয়ন বৈধ হয়েছে।

বন্দর উপজেলা : মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ হয়েছে। ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ মেম্বার পদে ২৭ জনের ২ জনের মনোনয়ন বাতিল ও সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার পদে ১০ জনের সকলের মনোনয়ন বৈধ হয়।

ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৮ জনের সকলের ও সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার পদে ১০ জনের সকলের মনোনয়ন বৈধ হয়েছে। ৯টি ওয়ার্ডের সাধারন মেম্বার পদে ৪৮ জনের মধ্যে ৬ জনের মনোনয়ন বাতিল হয়েছে।

মদনপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন ও সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার পদে ১১ জন মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা হয়েছে। ৯টি ওয়ার্ডের সাধারন মেম্বার পদে ৩৯ জনের মধ্যে ১জনের মনোনয়ন বাতিল হয়েছে।

কলাগাছিয়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন ও সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার পদে ১১ জন মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা হয়েছে। ৯টি ওয়ার্ডের সাধারন মেম্বার পদে ৩৯ জনের সকলের মনোনয়ন বৈধ হয়েছে।

বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩ জনের একজনের মনোনয়ন বাতিল ও ৯টি ওয়ার্ডের সাধারন মেম্বার পদে ৩১ জনের মধ্যে ২ জনের মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার পদে ১১ জনের সকলের মনোনয়ন বৈধ হয়েছে।

রূপগঞ্জ উপজেলা : মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ২ জনের সকলের মনোনয়ন বৈধ হয়েছে। ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে (নারী) মেম্বার পদে ৯ জনের সকলের মনোনয়ন বৈধ ও ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে মেম্বার পদে ৪১ জনের মধ্যে ১ জনের মনোনয়ন বাতিল হয়েছে।

গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত একক প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। অর্থাৎ এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ের পথে। এছাড়া ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে (নারী) মেম্বার পদে ৯ জনের সকলের মনোনয়ন বৈধ ও ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে মেম্বার পদে ৩৬ জনের মধ্যে ২ জনের মনোনয়ন বাতিল হয়েছে।

ভুলতা ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত একক প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। অর্থাৎ এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ের পথে। ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে (নারী) মেম্বার পদে ৭ জনের সকলের ও ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে মেম্বার পদে ৩৩ জন প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ১০ জন প্রার্থীর সকলের মনোনয়ন বৈধ হয়েছে। তার মধ্যে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী ১ জন, জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী ১ জন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ৮ জন। এছাড়া ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে (নারী) মেম্বার পদে ২১ জন প্রার্থীর মধ্যে ৪ জনের ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে মেম্বার পদে ৫৩ জনের মধ্যে একজনের মনোনয়ন পত্র বাতিল হয়েছে।

ভোলাব ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। তার মধ্যে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী ১ জন, ইসলামী আন্দোলন মনোনীত প্রার্থী ১ জন, জাকের পার্টি মনোনীত প্রার্থী ১ জন ও স্বতন্ত্র ২ জন। এছাড়া ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে (নারী) মেম্বার পদে ১০ জন এবং ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে মেম্বার পদে ৩০ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ছিল ১৭ অক্টোবর। মনোনয়নপত্র বাছাই ২০ অক্টোবর, বাছাইয়ের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল ২১ থেকে ২৩ অক্টোবর, আপিল নিষ্পত্তি ২৪ ও ২৫ অক্টোবর, প্রার্থিতা প্রত্যাহার ২৬ অক্টোবর, প্রতীক বরাদ্দ ২৭ অক্টোবর এবং ভোট গ্রহণ ১১ নভেম্বর।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর