করোনা মুক্তি কামনায় বাড়ৈইভোগ বটতলায় বুড়োবুড়ির পূজা


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:১০ পিএম, ১৪ জানুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার
করোনা মুক্তি কামনায় বাড়ৈইভোগ বটতলায় বুড়োবুড়ির পূজা

করোনা মহামারি থেকে দেশ ও জাতি সহ সমগ্র বিশ্বের মুক্তি কামনায় নারায়ণগঞ্জের সদর উপজেলায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বুড়োবুড়ি পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পৌষ সংক্রান্তি তিথিতে বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) বিকেলে উপজেলার বাড়ৈইভোগ এলাকার বটতলায় ওই পূজা করা হয়।

জানাগেছে, প্রায় ৩’শ বছরেরও বেশি সময় ধরে এ এলাকায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে ঐতিহ্যবাহী এ পূজা। পূজায় দূর দূরান্ত থেকে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা ছুটে আসেন তাদের মনের নানা বাসনা নিয়ে। শুধু সনাতন ধর্মাবলম্বীরাই নয়, জাতি ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে এ পূজা দেখতে উৎসুক মানুষ ভীর জমান এ বটতলায়। তাদের মনের বাসনা পূর্ণ হওয়ার বিশ্বাসে এ পূজায় বিভিন্ন জনকে মানদ করতেও দেখা যায়।

এদিন পূজাস্থল ঘুরে দেখা যায়, প্রদীপ ও ধূপকাঠি জ্বালিয়ে উলুরধ্বনীতে দেবীকে সন্তুষ্ট করার চেষ্টা করে সনাতন ধর্মাবলম্বী নারীরা। এরপর দেবীকে ভোগ দিয়ে শুরু হয় পূজা। পুরোহিতের মন্ত্র বলার সাথে পূজারীরা ধ্যান মগ্ন হয়ে মন্ত্র যপেন। মন্ত্র যপের পর করোনার মহামারি থেকে মুুক্তিসহ পৃথিবীর সকল মানুষের মঙ্গল কামনায় প্রার্থণা করা হয়। প্রার্থণা শেষে ঢাক ঢোলের শব্দ পুরো পূজামন্ডপকে মাতিয়ে তুলে।

এবারের পূজার বিষয়ে ভক্তবৃন্দের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন, এবার আর ¯্রফে পরিবারের মঙ্গল কামনায় নয়, করোনা ভাইরাস থেকে পৃথিবীর সকল মানুষের মুক্তি চেয়ে মা বুড়োবুড়ির কাছে প্রার্থণা করেছি। মা যেন সব কিছু ভালো করে দেন, সবাইকে ভালো রাখেন, সুস্থ্য রাখেন আর সকলের মঙ্গল করেন।

একই বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি রঞ্জিত মন্ডল বলেন, প্রায় ৩ শ বছরের অধীক সময় ধরে এ পূজা চলে আসছে। আমরা মায়ের কাছে আর্শিবাদ চাই, করোনা মহামারি থেকে যেন আমরা সবাই মুক্ত হতে পারি। এ পূজাটা শুধু সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শুধু নয়, আপনারা দেখুন এখানে অনেক মুসলিম মানুষও এসেছে। তারা এ পূজার দিনে বিভিন্ন মানদ করে যাতে তাদের সন্তানেরা ভালো থাকে। মা-ও তাদের মনের সেই বাসনা পূর্ণ করে।

এছাড়াও তিনি বলেন, আজকের এ দিনে আমি মা বুড়োবুড়ির কাছে একটাই প্রার্থণা করি, তিনি যেন এ মহামারি থেকে মুক্ত সহ সকল ধর্মের মানুষদের ভালো রাখেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর