মহাঅষ্টমী বুধবার, নারায়ণগঞ্জে জীবন্ত কুমারী পূজা হবে না


স্টাফ করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ১০:৫৫ পিএম, ১২ অক্টোবর ২০২১, মঙ্গলবার
মহাঅষ্টমী বুধবার, নারায়ণগঞ্জে জীবন্ত কুমারী পূজা হবে না

শারদীয় দুর্গাপূজার পুষ্পাঞ্জলি ও রাতে আরতির মধ্যে দিয়ে মঙ্গলবার মহাসপ্তমী পালিত হয়েছে। বুধবার মহাষ্টমী। তবে এবার নারায়ণগঞ্জের রামকৃষ্ণ মিশন আশ্রমে হচ্ছে না জীবন্ত প্রতিমায় কুমারী পূজা। ঘট বসিয়ে পূজা করবেন আশ্রমের পূজারীরা। কিন্তু শহরের নিতাইগঞ্জ এলাকায় ব্যক্তিগত পূজায় কুমারী পূজা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

সোমবার মহাষষ্ঠীর মধ্যে দিয়ে শারদীয় দুর্গাপূজা শুরু হলেও পূজা অর্চনার বিশেষ দিন মহাসপ্তামীতেই। ফলে মঙ্গলবার সকাল থেকে শহরের বিভিন্ন পূজামন্ডপে মহাসপ্তমী পূজার অনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। সেই সঙ্গে ভীড় করতে থাকেন ভক্ত দর্শনার্থীরা।

সরেজমিনে দেখা যায়, ‘ক্ষণে ক্ষণে উলুধ্বনি, শঙ্খ, কাঁসর আর ঢাকের বাধ্যি পূজা শুরু হয়। দেবী দুর্গার প্রতিবিম্ব আয়নায় ফেলে বিশেষ ধর্মীয় রীতিতে স্নান সেরে, বস্ত্র ও নানা উপাচারে সজ্জিত করা হয়। এরপর ত্রিনয়না দেবীর তৃতীয় চক্ষুদান করা হয়। নবপত্রিকা প্রবেশ ও স্থাপন শেষে দেবীর মহাসপ্তমী বিহিত পূজা অনুষ্টিত হয়। এরপর দুপুরে পূজার প্রথম অঞ্জলি দেয়া হয়।

উপোস থেকে মায়ের পায়ে অঞ্জলি দিয়ে দিন শুরু করেন ভক্তরা। অঞ্জলি দিতে দেবীর দুর্গার সামনে ফুল বেলপাতা দুই হাতের মুঠোয় আঁকড়ে ধরে দাঁড়িয়েছিলেন অনেক ভক্ত। এবারের শারদীয় দুর্গোৎসবে মহাসপ্তমীর দিনে প্রথম অঞ্জলি দেয়া হয়।

মহাষ্টমী। সকাল সাড়ে ৮টা থেকে দুর্গা দেবীর মহাষ্টম্যাদিবিহিত পূজা প্রশস্ত ও মহাষ্টমীর ব্রতবাস শুরু হয়। রাত ১১টা ৫৫ মিনিটের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে সন্ধিপূজা। মহাষ্টমীর মূল আকর্ষণ চাষাঢ়ায় রামকৃষ্ণ মিশনে এবার কুমারী পুজা হবে না।

রামকৃষ্ণ মিশন আশ্রমের অধ্যক্ষ স্বামী একনাথানন্দ বলেন, ‘কোভিড-১৯ সুরক্ষায় সরকার থেকে দিক নির্দেশনা দিয়েছে। দেশ ও জাতির মঙ্গলে আমরা ভক্ত দর্শনার্থীদের ভীড় এড়াতে জীবন্ত প্রতিমায় কুমারী পূজা স্থগিত করা হয়েছে। তবে ‘ঘট’ বসিয়ে মায়ের পূজা হবে। আশা করছি আগামী বছর পরিস্থিতি ভালো হলে অবশ্যই কুমারী পূজা হবে। এছাড়া ২০২০ সালেও একইভাবে ঘট বসিয়ে কুমারী পূজার নিয়ম পালন করা হয়।’

এদিকে মহাষষ্ঠী থেকেই রাতে শহরের পূজা মন্ডপ ঘুরে বেড়িয়েছেন ভক্ত দর্শনার্থীরা। তবে সপ্তামী থেকে ভক্ত দর্শনার্থীদের ভীড় বেশি হয়। এদিন থেকেই মন্ডপেমন্ডপে ধর্মীয় থিম পরিবেশ করা হয়।

উল্লেখ বিশুদ্ধ লোকনাথ পঞ্জিকা অনুযায়ী আগামী ১১ অক্টোবর ষষ্ঠীতে দেবীর দুর্গার বোধন, আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্যে দিয়ে শুরু হবে পাঁচদিনের শারদীয় দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা। ১২ অক্টোবর সপ্তমী, ১৩ অক্টোবর মহাষ্টমী ও কুমারী পূজা, ১৪ অক্টোবর মহানবমী এবং ১৫ অক্টোবর বিজয় দশমীতে প্রতিমা বিসর্জন ও বিজয়া শোভাযাত্রার মধ্যে দিয়ে শেষ হবে এই বর্ণিল উৎসব।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর