নারায়ণগঞ্জ ক্রিকেট একাডেমীর সহজ জয়


প্রেস বিজ্ঞপ্তি : | প্রকাশিত: ০৭:০৪ পিএম, ১০ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার
নারায়ণগঞ্জ ক্রিকেট একাডেমীর সহজ জয়

পঞ্চম ম্যাচেও পরাজয়ের বেদনা নিয়ে মাঠ ছাড়লো ঐতিহ্যবাহী রেইনবো এসি। হোসাইন গ্রুপ বঙ্গবন্ধু প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগ ২০২০-২১ এ ১৬ তম ম্যাচে তারা গেছে ৫ উইকেটে। ম্যাচ জিতেছে সামসুজ্জোহা স্মৃতি একাদশ। নাইম ইসলাম করেছেন সেঞ্চুরি।

সামসুজ্জোহা ক্রীড়া কমপ্লেক্সের ক্রিকেট মাঠে সকালে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করেও জেতার জন্য প্রতিপক্ষকে চ্যালেঞ্জ দেবার মত স্কোর গড়তে পারেনি রেইনবো। মিডল অর্ডারে আবু তাওয়ামা ও মেহেরাব জসির চতুর্থ উইকেট জুটিতে ৬৩ রান দলের রানের ভিত্তি। তাওয়ামা ৬৫ রানে রান আউট হবার আগে খেলেছেন ৮২ বল। ৪ মেরেছেন ৫টি ছক্কা মেরেছেন ৩টি। মেহেরাব ফিরেন ৩৮ রানে ৪০ বল মোকাবেলা করে। ৩ চার ও ২ ছয়ে। ওপেনার ফাহাদ ভালই খেলছিলেন। ১ চার ও ২ ছক্কায় আউট হন ২৪ রানে। ধৃুব ৫৫ বলে ২ বাউন্ডারিতে ফিরেন ২৮ রানে। রাফসান ১৮ এবং কিপার জাকির করেন ১৬ রান। অতিরিক্ত থেকে পাওয়া ১৭ রানের সুবাদে রান দাঁড়ায় ২২৬। সামসুজ্জোহা স্মৃতি একাদশের নাইম ও জুয়েল রানা ৩টি করে উইকেট পান।

চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেবার মত স্কোর না হলেও শুরুতেই ধাক্কা দেন রেইনবো। সামসুজ্জোহা স্মৃতি একাদশের রানের খাতা খোলার আগেই উইকেট হারায়। ওপেনার ইকবাল বাবু ৫০ বলে ৭ বাউন্ডারিতে ৪৩ রানে আউট হলে মাঠে নামেন অভিজ্ঞ মার্শাল আইয়ুব ও ছক্কা নাইম খ্যাত নাইম ইসলাম। ধৈর্যের প্রতিমূর্তি এ দুই ব্যাটসম্যান দেখিয়েছেন কিভাবে মাঠে থেকে খেলতে হয়। মারার বল মেরেছেন। ভাল বলকে সম্মান দিয়েছেন। মার্শাল আইয়ুব ৯৯ বলে ৪ বাউন্ডারিতে ৬১ রানে ফিরলেও অবিচল ছিলেন নাইম ইসলাম। দলের জেতার জন্য দরকার ১ রান। নাইম ইসলাম সেঞ্চুরি করতে চাইলে দরকার ৬ রান। ছক্কা মেরে নিজের সেঞ্চুরি পূরণ করেন তিনি ৯৮ বল খেলে। ৪ মেরেছেন ১৪টি ছক্কা মেরেছেন ১টি। রেইনবোর ফিল্ডারদের ক্যাচ মিসের মহড়া ছিল জঘন্য। স্পিনার আবু সাইদ পান ২ উইকেট।

রেইনবো এ্যাথলেটিক ক্লাব : ২২৬/১০ (৪৯ ওভার) আবু তাওয়ামা ৬৫, মেহেরাব জসি ৩৮, ধ্রুব ২৮, ফাহাদ ২৪, রাফসান ১৮, জাকির ১৬। অতিরিক্ত ১৭। নাইম ইসলাম-৩/২৮,জুয়েল রানা-৩/৫৯।

সামসুজ্জোহা স্মৃতি একাদশ : ২৩২/৫ (৪৭.৪ ওভার) নাইম ইসলাম ১০০, মার্শাল আইয়ুব ৬১, ইকবাল বাবু ৪৩। অতিরিক্ত-৪। আবু সাইদ-২/২৫।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর