না.গঞ্জ আদালতে শো ডাউন বিএনপি নেতাকর্মীদের

|| নিউজনারায়ানগঞ্জ২৪.নেট ০১:০১ এএম, ১ জানুয়ারি ২০১৫ বৃহস্পতিবার

না.গঞ্জ আদালতে শো ডাউন বিএনপি নেতাকর্মীদের
দীর্ঘদিন পর নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়ায় শো ডাউন করেছে স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মীরা। সোমবার জেলা বিএনপির সভাপতি কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার ও সাধারণ সম্পাদক কাজী মনিরুজ্জামান মনির, নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামালসহ আদালতপাড়ায় প্রায় কয়েকশ শীর্ষ নেতাদের ছিল অবস্থান। তবে অধিকাংশ নেতাকর্মীরা ছিলেন হরতাল অবরোধসহ বিভিন্ন মামলায় হাজিরায়। আর অন্যদিকে বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দীনের জামিন আবেদন শুনানীর দিন থাকায় আরও নেতাকর্মীদের উপস্থিতি দেখা গেছে। কয়েক হাজার নেতাকর্মীরা ছিলেন সোমবার আদালতপাড়ায়। আরো সংবাদ পড়তে ক্লিক করুন   অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার এসেছিলেন নেতাকর্মীদের মামলা পরিচালনার জন্য। আদালতে হাজির দিতে এসেছিলেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী মনিরুজ্জামান মনির। এছাড়াও বিভিন্ন মামলায় আদালতে হাজির দিতে এসেছিলেন নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল, জেলা সেচ্ছাসেবকদলের আহ্বায়ক জাহিদ হাসান রোজেল, জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি মাজহারুল ইসলাম জোসেফ, মহানগর যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক রানা মুজিব, সরকার আলম, মাসুদ রানা, জুয়েল প্রধান, জুয়েল রানা, নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক মাসুকুল ইসলাম রাজীব, যুগ্ম আহ্বায়ক আনোয়ার সাদাত সায়েম, মহানগর ছাত্রদলের আহ্বায়ক মনিরুল ইসলাম সজল, যুগ্ম আহ্বায়ক রশিদুর রহমান রশু, ফতুল্লা থানা বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম পান্না মোল্লা, ফতুল্লা থানা যুবদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক গিযাসউদ্দীন লাভলু, যুবদল নেতা মাহাবুবুল হাসান জুলহাসসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা।   অন্যদিকে সিদ্ধিরগঞ্জের ওলামালীগ নেতার ছেলে দেলোয়ার হোসেন মোরসালিন হত্যা মামলার জামিন আবেদন করেছিলেন বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দীন। এ মামলাল অনেক আগেই আশংকা ছিল গিয়াসউদ্দীনের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করা হতে পারে। এমন আশংকা নারায়ণগঞ্জ জেলার সাতটি থানা এলাকার নেতাকর্মীরা সকাল থেকেই উপস্থিত হয় আদালতপাড়ায়।   সকাল দশটায় জেলা ও দায়রা জজ আদালতে উপস্থিত হন গিয়াসউদ্দীন। পরে সেখানে উপস্থিত হন বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য আতাউর রহমান আঙ্গুরসহ আড়াইহাজার থানা বিএনপির নেতাকর্মীরাও উপস্থিত হয়। এছাড়াও কেন্দ্রীয় জাসাসের সহ-সভাপতি আনিসুল ইসলাম সানি, ফতুল্লা থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি অধ্যাপক খন্দকার মনিরুল ইসলাম, বর্তমান যুগ্ম সম্পাদক কবির প্রধান, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা বিএনপির সাবেক আব্দুল হাই রাজু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এমএ হালিম জুয়েলসহ নেতাকর্মীরা। নারায়ণগঞ্জ জেলা মহিলা দলের সভানেত্রী নুরুন্নাহার, সাধারণ সম্পাদিকা রহিমা শরীফ মায়াসহ মহিলা দলের নেত্রীরাও উপস্থিত ছিলেন। সোনারগাঁ থানা যুবদলের সভাপতি জাকির হোসেন বাবুল, সহ-সভাপতি শহিদুল ইসলাম স্বপন, সোনারগাঁ পৌর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক গাজী জহির, মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন খোকন, আবুল কাউসার আশা, ছাত্রদল নেতা রুবেল সর্দারসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীরা উপস্থিত হয়।   মোরসালিন হত্যা মামলায় গিয়াসউদ্দীনসহ তার তিন ছেলেকে আসামী করা হয়। সোমবার গিয়াসউদ্দীন ও তার দুই ছেলে স্বশরীরে উপস্থিত থাকলেও ছোট ছেলে অসুস্থতার কারনে উপস্থিত ছিলেন না।

বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও