কুপ্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় কলেজছাত্রীকে উত্ত্যক্ত, সহপাঠীকে মারধরের অভিযোগ

|| নিউজনারায়ানগঞ্জ২৪.নেট ০১:০১ এএম, ১ জানুয়ারি ২০১৫ বৃহস্পতিবার

কুপ্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় কলেজছাত্রীকে উত্ত্যক্ত, সহপাঠীকে মারধরের অভিযোগ
নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার তক্কার মাঠ এলাকায় এক কলেজ ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত ও কুপ্রস্তাবের প্রতিবাদ করায় ওই কলেজছাত্রীর সহপাঠীকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে বখাটেদের বিরুদ্ধে। বখাটেদের হাত থেকে রক্ষা পেতে ওই কলেজছাত্রী ও তার সহপাঠী অপর এক বান্ধবীর বাড়িতে আশ্রয় নিলে সেখানেও তান্ডব চালায় বখাটেরা। এ ঘটনায় ওই কলেজ ছাত্রীটির মা ফতুল্লার উত্তর শিয়ারচর তক্কার মাঠ এলাকার আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী ফৌজিয়া পারভীন ফতুল্লা মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। তবে ঘটনার দু’দিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ ঘটনাটি তদন্তে কোন ধরনের পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ ভুক্তভোগীদের।   অভিযোগে জানা গেছে, ফতুল্লা তক্কার মাঠের আনোয়ার হোসেনের ছেলে শান্ত (২২), ইমানের ছেলে শামীম (১৯), আরাফতের ছেলে আয়নাল (৪৫) মিজানের ছেলে ওবাইদুল (১৮), শহিদুলের ছেলে ইমন (১৯), হবির ছেলে বিল্লাল (১৬), রাতুল (২০), চাষাঢ়া রেলস্টেশন পার্টস এর দোকান মালিকের পুত্র সুজন (২২)সহ অজ্ঞাতনামা আরো ৫/৭ জন প্রায়ই নারায়ণগঞ্জ সরকারী মহিলা কলেজে অধ্যায়নরত ওই কলেজছাত্রীটিকে উত্ত্যক্ত করতো ও বিভিন্ন ধরনের কুপ্রস্তাব দিতো। গত ২৯ সেপ্টেম্বর বিকেল পৌনে ৬ টার দিকে ওই কলেজছাত্রী ও তার সহপাঠী বন্ধু সিরাজুল আলম মুনকে নিয়ে কলেজ থেকে ফেরার পথে তক্কার মাঠ মসজিদের সামনে বখাটেরা লাঠিসোটা নিয়ে তাদের গতিরোধ করে ও ভয়ভীতির মাধ্যমে ওই কলেজছাত্রীটিকে উত্ত্যক্ত করতে থাকে। এসময় সিরাজুল প্রতিবাদ করলে বখাটেরা লাঠিসোটা দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। পরে তারা বখাটেদের হাত থেকে রক্ষা পেতে পার্শ্ববর্তী এক বান্ধবীর বাড়িতে আশ্রয় নিলে সেখানেও বখাটেরা হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে ও এক লাখ টাকার ক্ষতিসাধন করে। পরে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে বখাটেরা বেশী বাড়াবাড়ি না করার হুমকী দিয়ে চলে যায়।   অভিযুক্তরা জেলা যুবলীগের এক প্রভাবশালী নেতার নাম ভাঙ্গিয়ে এলাকায় প্রভাব বিস্তার করে আসছে বলে জানা গেছে। ঘটনার পরেও ওই যুবলীগ নেতার নাম ব্যবহার করে ভয়ভীতি প্রদর্শণের মাধ্যমে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা চলছে বলে জানা যায়। বেশী বাড়াবাড়ি করলে ওই কলেজছাত্রীটির পরিবারকে এলাকা থেকে উৎখাতের হুমকীও দেয়া হয়েছে। কলেজ ছাত্রীটির পরিবারটি বর্তমানে অসহায় জীবনযাপন করছেন।   ফতুল্লা মডেল থানার এসআই কামরুজ্জামান জানান, অভিযোগের দায়িত্ব তাকে দেয়া হয়েছে। তিনি অভিযোগকারীনি ফৌজিয়া পারভীনের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করেছিলেন। ফৌজিয়া তাকে জানিয়েছেন বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করা হচ্ছে।  

বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও