নূর হোসেনের ৩ মামলায় ৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০২:২৬ পিএম, ১৪ অক্টোবর ২০২০ বুধবার

নূর হোসেনের ৩ মামলায় ৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ

নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সাত খুন মামলায় ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত প্রধান আসামি নূর হোসেনের অস্ত্র, মাদক ও চাঁদাবাজিসহ ৭টি মামলার মধ্যে তিন মামলায় ৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

১৪ অক্টোবর বুধবার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালত বেগম সাবিনা ইয়াসমিনের আদালতে ওই সাক্ষ্যগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। স্বাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত আগামী ১২ নভেম্বর পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য করেছেন। 

সাক্ষ্যদাতারা হলেন মোখলেসুর রহমান, রফিকুল ইসলাম, মাসুদ আলম ও তুষার কান্তি দাস। এদিন আদালতে নূর হোসেন ছাড়াও মোঃ আলী, জামাল ও সেলিম উপস্থিত ছিলেন। আর বাকী আসামীরা জামিনে রয়েছেন।

এর আগে নুর হোসেনকে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে সকাল ৯টায় গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার থেকে আদালতে আনা হয়। আদালত পাড়ায় বাড়তি নিরাপত্তা জোরদার করা হয় এবং স্বাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আবারো গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে ৭ খুনের পর নূর হোসেন ভারতে পালিয়ে গেলে তার বৈধ অস্ত্রের লাইসেন্স বাতিল করা হয়। এছাড়া, তার সিদ্ধিরগঞ্জের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বেশ কয়েকটি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। এসব ঘটনায় ন‚র হোসেনের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে ৩টি মামলা করে পুলিশ। এছাড়া ২০১৪ সালের ১২ জুন ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবীর অভিযোগে অটোরিকশা চালক সাইদুল ইসলামের মামলায় ন‚র হোসেন, তার ভাই ন‚র উদ্দিন, তাদের ভাতিজা শাহজালাল বাদল, লোকমানসহ ৪ জনকে আসামী করা হয়।

তাছাড়া শিমরাইলে নূর হোসেনের মাদক স্পট থেকে ২৯শ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধারের মামলায় বাদী পুলিশের এসআই শওকত হোসেন। ২০১৩ সালের ৩০ মে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার হিরাঝিল এলাকার ইকবাল হোসেন নামের এক ব্যক্তির কাছে ন‚র হোসেন ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। দাবিকৃত চাঁদা না পেয়ে ইকবালের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাংচুর করে ন‚র হোসেন ও তার সহযোগীরা। এ ঘটনায় ইকবাল হোসেন বাদী হয়ে ন‚র হোসেন তার ভাতিজা কাউন্সিলর শাহজালাল বাদল সহ ৬ জনের বিরুদ্ধে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করেছিলেন।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও