ন্যায় বিচার চাই : ব্যবসায়ী মনির

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৭:১৫ পিএম, ২৩ জানুয়ারি ২০২১ শনিবার

ন্যায় বিচার চাই : ব্যবসায়ী মনির

‘আমি ন্যায় বিচার প্রার্থী। অপরাধী হলে যে কোনও শাস্তি মাথা পেতে নিবো। যদি নিরপরাধ হই, তাহলে দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোরতর সাজা চাই। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত অপরাধীর শাস্তি হোক। আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল এবং অনুগত। এরপরও যদি কোন আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা না হয়, তাহলে আমি এ নিয়ে আর কথা বলবো না।’

উপরোক্ত কথাগুলো বলেছেন নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার বিসিক এলাকায় অবস্থিত ইসলাম’স গ্রুপের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মনিরুল ইসলাম।

সম্প্রতি ফতুল্লা মডেল থানায় তাঁর বিরুদ্ধে একটি চাঁদাবাজি মামলা হয়েছে। মামলাটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক বলে দাবি করে আসছেন মনিরুল ইসলাম। মামলাটি সুষ্ঠু তদন্ত করে এর পেছনের প্রকৃত রহস্য উদঘাটনের জন্য প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি তুলেছেন। এ লক্ষ্যে ইতোমধ্যে তিনি ডিআইজি ও জেলা পুলিশ সুপারের (এসপি) কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। পাশাপাশি ন্যায় বিচারের স্বার্থে তিনি সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমানেরও সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

ব্যবসায়ী মনিরুল ইসলাম শনিবার (২৩ জানুয়ারি) এক বিবৃতিতে বলেন, ‘আমি চাই, বাংলাদেশের প্রত্যেকটি ধুলাও যেন আইনের মধ্যে আসে। আইনের ঊর্ধ্বে কেউ হতে পারে না। যেহেতু কাশেম ভাংগী অবৈধ আয়ের টাকা খরচ করে আমাকে হয়রানি করতে চায়, আর আমি তার প্রতিরোধ করতে চাই।’

তিনি বলেন ‘আমি চাই আমার সাথে ন্যায় বিচার করা হোক। আমি অপরাধী হলে শাস্তি দেওয়া হোক। আর যদি আমি নিরপরাধ হই, তাহলে বাদীদের বিরুদ্ধে প্রসিকিউশন দিতে হবে। আমি নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা মডেল থানা এবং মাদারীপুরের শিবচর থানায় কাশেম ভাংগী কর্তৃক হয়রানির শিকার বিষয়ে অভিযোগ দাখিল করেছি।’

উক্ত বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে ব্যবসায়ী মনিরুল ইসলাম রোববার (২৪ জানুয়ারি) পুনরায় ডিআইজি (ঢাকা রেঞ্জ) এর সাথে কথা বলবেন। একই সাথে ফতুল্লা এবং শিবচর থানার ওসিদের সাথেও কথা বলার চেষ্টা করবেন বলে জানিয়েছেন।

মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘সবাইকে নিয়ে সত্যের পক্ষে লড়াই করে যাচ্ছি। এ যাত্রায় যদি ব্যর্থ হই, তাহলে আর কোনদিন হয়রানির শিকার হলেও আইনের আশ্রয় চাইবো না। নীরবে নিভৃতে নিভে যাবো।’


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও