মসজিদ উদ্বোধন করাটাই আমার অপরাধ : আইভী

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১০:৩৭ পিএম, ১ মার্চ ২০২১ সোমবার

মসজিদ উদ্বোধন করাটাই আমার অপরাধ : আইভী

নারায়ণগঞ্জ শহরের মন্ডলপাড়ায় মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে যে মসজিদ নির্মাণ করা হচ্ছে সেটা এখন আলোচনায়। ইতোমধ্যে ওই মসজিদের নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী। কিন্তু এটা নিয়ে শুরু হয়েছে নাটকীয়তা। ইতোমধ্যে এ মসজিদের কাজ থামাতে উঠেপড়ে লেগেছে স্থানীয় একটি গ্রুপ। ইতোমধ্যে মসজিদ কমিটি ২৭ ফেব্রুয়ারী নারায়ণগঞ্জ শহরের রাইফেল ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। সেখানে মসজিদ কমিটির লোকজন আইভীর বিরুদ্ধে মসজিদের জায়গা দখলেরও অভিযোগ তুলেন।

এসব নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী। তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সারাদেশে ৫৪০টি মসজিদ করে দিচ্ছেন। সেখানে নারায়ণগঞ্জ শহর, সিদ্ধিরগঞ্জ এবং বন্দরে একটি করে মসজিদ হবে। শহরে মন্ডলপাড়ায় ওয়াকফা এস্টেটের একটি জায়গা আমাদের সিটি করপোরেশনের সহযোগীতা নিয়েই তারা করছে। প্রায় ১০ কোটি টাকার টেন্ডার দেওয়া হয়েছে। আমি সেটা উদ্বোধন করেছি। এখন আমি এটা কেন উদ্বোধন করলাম এটাই হয়ে গেল আমার চরম অপরাধ। কেন আমি ওয়াকফ স্ট্যাট এর জায়গা ইসলামি ফাউন্ডেশনকে বললাম এই জায়গায় করেন এটা আমার চরম অপরাধ। অথচ দেখেন এতো একটি মসজিদ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে উপহার দেওয়া হচ্ছে নারায়ণগঞ্জ বন্দর এবং সিদ্ধিরগঞ্জকে আমরা সেই দিকে তাকাচ্ছি। কিন্তু শত্রুতার কারণে মেয়র আইভীকে ভূমিদস্যু বানাতেই হবে সেজন্য কত ধরনের চক্রান্ত।

আইভী বলেন, মসজিদের কাজ সিটি করপোরেশন করছেন না। এটা ইসলামী ফাউন্ডেশন করছেন। সম্প্রতি নির্মাণ কাজ শুরু হলে সিটি করপোরেশনের সহযোগিতা চাওয়া হয়। সহযোগিতার অংশ হিসেবে চারদিকের কিছু অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। সেখানে যেসব দোকানপাট ও স্থাপনা ভাঙচুর করা হয় সেগুলো মূলত মসজিদ উন্নয়নে কোন কাজে আসত না। এটি ব্যক্তিগতভাবে ভাড়া তোলা হয়। একেক জন ভাগবাটোয়ারা করে ভাড়া আদায় করেন। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয় যে সেখানে নাকি সিটি করপোরেশন বহুতল বাণিজিক ভবন করবে। এটা আদৌ সত্য না। আমাকে এখন অযাচিতভাবে জড়ানো হচ্ছে।

আইভী আরো বলেন, আসলে এসব কিছুই না। মসজিদ আমি উদ্বোধন করেছি এটা একটি অপরাধ। আর আসছে নির্বাচন। এ নির্বাচনকে নিয়েই যত মাথাব্যাথা। আমাকে বিতর্কিত করতে চলেছে নানা খেলা। এটি আরও একটি নোংরা রাজনৈতিক কুটকৌশল। এমপি শামীম ওসমানের কথায় কয়েকজন আমার বিরুদ্ধে লেগেছে। তাদেরও হয়তো চাপ দেওয়া হচ্ছে।

গত ২৩ ফেব্রুয়ারি নারায়ণগঞ্জের সহকারী জজ চতুর্থ আদালতে মসজিদ কমিটির করা মামলায় বিবাদী করা হয়েছে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী ও তিনটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিকদের। মামলায় মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী ও তিনটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিকদের বিরুদ্ধে মডেল মসজিদের ৪৩ শতাংশসহ ওয়াক্ফ সম্পত্তির প্রায় ৮৩ শতাংশ জমি দখল চেষ্টার অভিযোগ আনা হয়েছে। এর মধ্যে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মডেল মসজিদ নির্মাণের কাজটি পেয়েছে।

মামলার বিবরণীতে বলা হয়েছে, মন্ডলপাড়া মসজিদ ও মসজিদ সংলগ্ন বিভিন্ন দাগে ৮২ দশমিক ৯০ শতাংশ মীর শরিয়ত উল্লাহ (মন্ডলপাড়া জামে মসজিদ) ওয়াক্ফ এস্টেট রয়েছে। এই জমি দখলের অপচেষ্টা চালাচ্ছেন বলে সিটি মেয়রের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা হয়। তবে এই এস্টেট থেকে ৪৩ শতাংশ জমি নারায়ণগঞ্জ জেলা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণের জন্য দেওয়া হয়েছে।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও