মেয়র যেখানেই হাত দেন শামীম ওসমানের ফোসকা পড়ে যায়

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৫:২২ পিএম, ৬ মার্চ ২০২১ শনিবার

মেয়র যেখানেই হাত দেন শামীম ওসমানের ফোসকা পড়ে যায়

সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের যুগ্ম আহবায়ক ও নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মাহবুবুর রহমান মাসুম বলেছেন, ‘যতদিন পর্যন্ত ত্বকী হত্যার বিচার না হবে আমরা এ রাজপথ ছাড়বো না। ত্বকী হত্যার ৮ বছর। আইনের শাসন, গণতন্ত্রের দেশে ত্বকী হত্যার বিচার হয় না। সাগর রুনি হত্যার বিচার হয় না। মুশতাককে নির্মম মৃত্যুর শিকার হতে হয়েছে। আজকে চঞ্চল, ভুলু , মিঠু হত্যার বিচার পাইনি। অনেক হত্যাকা-ের বিচার পাইনি। কেন পাচ্ছি না এর প্রতিউত্তর নেই। র‌্যাব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কারো কাছে নেই। ত্বকী হত্যার বিচার নারায়ণগঞ্জের মাটিতে হবেই। যতদিন পর্যন্ত ত্বকী হত্যার বিচার হবে না ততদনি আমরা রাজপথ ছাড়বো না।

৫ মার্চ শুক্রবার বিকেলে শহরের ডিআইটি এলাকায় সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের উদ্যোগে তানভীর মুহাম্মদ ত্বকী হত্যা ও বিচারহীনতার ৮বছর উপলক্ষ্যে সমাবেশে বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ত্বকী হত্যার নির্দেশ দাতা শামীম ওসমান। এ সন্ত্রাসী গডফাদার শামীম ওসমান এখন নাকি সারা রাত তাহাজুত নামাজ পড়েন। এখন নাকি ওনি সারা দিনে রাতে ১০০ থেকে ১৫০ রাকাত নফল নামাজ পড়েন। এখন কেন নামাজ পড়েন? ত্বকী হত্যা করিয়েছেন, ত্বকী হত্যার জন্য আপনার পরিবারের সদস্যরা জড়িত। কিন্তু এটা আমরা বলিনি তদন্তকারী কর্মকর্তা র‌্যাব বলেছে। র‌্যাব বলেছে, আজমেরী ওসমান জড়িত।

তিনি বলেন, ‘রফিউর রাব্বীর দোষ তিনি কেন প্রতিবাদ করে, মেয়র আইভীর পক্ষ নিয়েছে। এটাও আমরা বলিনি র‌্যাব বলেছে খসড়া চার্জশীটে। প্রধানমন্ত্রীর মন গলে না। প্রধানমন্ত্রীর কঠিন মানুষ। প্রধানমন্ত্রী শুধু সহজ হয়ে যায় তাঁর ভাইয়ের বেলায়। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হয়েছে, সাত খুনের বিচার হয়েছে, আমরা আশা করে ছিলাম ত্বকী হত্যার বিচার পারবো। কিন্তু যখন ওই সংসদে প্রধানমন্ত্রী বললো ওসমান পরিবারের পক্ষে আমরা আছি নাসিম ওসমানের শোক সভায়। আর সাথে সাথে বন্ধ হয়ে গেলে সমস্ত কার্যক্রম। ত্বকী হত্যার বিচার প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ ছাড়া হবে না এটা দিবালোকের মতো পরিষ্কার। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী আমরা ত্বকী হত্যার বিচার আদায় করে নিবো। এখন নারায়ণগঞ্জে ষড়যন্ত্র চলছে। মেয়র যেখানেই হাত দেন শামীম ওসমানের ফোসকা পড়ে যায়। মসজিদ করতে গেলেও দোষ ও উন্নয়ন করলেও দোষ। হেফাজতকে লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে। যখন শামীম ওসমান মাথায় মুকুট পরলো তখন কিছু বললো না।’

সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহবায়ক রফিউর রাব্বীর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন সদস্য সচিব কবি হালিম আজাদ, নাগরিক কমিটির সভাপতি এবি সিদ্দিক, সিপিবি জেলার সভাপতি হাফিজুল ইসলাম প্রমুখ।

পরে সন্ধ্যায় ডিআইটি থেকে বঙ্গবন্ধু সড়কে সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের উদ্যোগে তানভীর মুহাম্মদ ত্বকী হত্যার বিচার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। পরে মিছিলটি চাষাঢ়া শহীদ মিনারে গিয়ে শেষ হয়।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও