নদীতে ঝাঁপ দিয়ে দিপু বাঁচলেও হারিয়েছেন মাকে

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৫৫ পিএম, ৯ এপ্রিল ২০২১ শুক্রবার

নদীতে ঝাঁপ দিয়ে দিপু বাঁচলেও হারিয়েছেন মাকে

নারায়ণগঞ্জে শীতলক্ষ্যায় সাবিত আল হাসান নামের লঞ্চ ডুবিতে ৩৪ যাত্রী নিহত হওয়ার ঘটনায় প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতদের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ৮ এপ্রিল সকাল ১০টা থেকে সৈয়দপুর কয়লাঘাট এলাকায় ওই গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়। ওই গণশুনানিতে সাক্ষী দিতে এসে ছিলেন ভাগ্যক্রমে দুর্ঘটনা থেকে বেঁচে ফেরা দিপু কুমার পাতর। কর্মকর্তাদের কাছে সাক্ষী দেওয়ার পর সাংবাদিকদের কাছে ওই দিনের ঘটনার বর্ণনা দেয় দিপু পাতর।

দিপু জানায়, এসকেএল-৩ নামের যে জাহাজটা ছিল ওই জাহাজটা আমাদের লঞ্চটাকে ডুবিয়ে ফেলছে। প্রথমে যাওয়ার পথে লঞ্চটির পেছনের অংশের বাম পাশে ধাক্কা দেয় জাহাজটি। এরপর লঞ্চটিকে মাঝ বরাবর ডুবিয়ে দিয়ে চলে যায়। লঞ্চে থাকা যাত্রীরা জাহাজটিকে আগে থেকেই সিগন্যাল দিচ্ছিলো। জাহাজের গতি কমানোর জন্য সবাই তাকে ইশারা করে সিগনাল দেয়। কিন্তু জাহাজ থেকে আমাদের সিগনাল মানা হয়নি। তারা আমাদের লঞ্চটি ডুবিয়ে দিয়ে চলে যায়। আমি ছিলাম লঞ্চের দ্বিতীয় তলায়। আমার মা মহারাণী ছিল লঞ্চের দ্বিতীয় তলায়। লঞ্চটিকে ধাক্কা দেওয়ার পর যখন লঞ্চটি ডুবে যাচ্ছিলো তখন আমি লঞ্চ থেকে নদীতে লাফ দেই। পরে সাতাঁরে সেতুর পিলারে গিয়ে উঠি। সেখান থেকে আমাকে ট্রলার দিয়ে উদ্ধার করে নদীর পূর্ব পাড়ে নিয়ে যাওয়া হয়। আমি পরে ট্রলারে পশ্চিমপাড়ে আসি। আমি এখানে এসে সবার কাছে লোকজনকে উদ্ধার করার জন্য সাহায্য চাই। কিন্তু পুলিশও তো গুরুত্ব দেয়নি। হয়তো বৃষ্টির কারণে উদ্ধার কাজ বন্ধ ছিল। পরের দিন আমি আমার মায়ের লাশ পেয়েছি।

প্রসঙ্গত গত ৪ এপ্রিল সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে সৈয়দপুর কয়লাঘাট এলাকায় কার্গো জাহাজ ধাক্কা দিয়ে ‘সাবিত আল হাসান’ নামে লঞ্চটি অর্ধশতাধিক যাত্রীসহ ডুবিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় সাঁতরে ১৫ থেকে ২০জন তীরে উঠতে পারলেও নিখোঁজ ছিল ৩৬জন। পরে রোববার রাত থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত ৩৪জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। যার মধ্যে এখনও নিখোঁজ রয়েছে দুইজন। এ ঘটনায় জেলা প্রশাসন, বিআইডব্লিউটিএ ও নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় পৃথক তিনটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন। তদন্ত কমিটিকে ৭ কার্য দিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়। এ ঘটনায় ৬ এপ্রিল রাতে বন্দর থানায় অজ্ঞাত আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও