‘ড্রেন নির্মাণে বাধায় খোকন সাহার পানিতেই হাঁটা উচিত’

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১০:৪৫ পিএম, ৪ জুলাই ২০২১ রবিবার

‘ড্রেন নির্মাণে বাধায় খোকন সাহার পানিতেই হাঁটা উচিত’

নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহার পানিতেই হাঁটা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও নারায়ণগঞ্জ জেলা ট্রাক কাভার্ডভ্যান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শফিউদ্দিন প্রধান। মুঠোফোনে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় তিনি একথা বলেন।

কাউন্সিলর শফিউদ্দিন প্রধান জানান, নারায়ণগঞ্জ পৌরসভার আমলে গলাচিপায় এলাকায় অ্যাডভোকেট খোকন সাহার বাসভবনের সামনে রাস্তা ও ড্রেন করার জন্য গেলে তার বাধার কারণে ড্রেন করতে পারি নাই। তার বাধার কারণে ফান্ড বরাদ্দ হলেও সেটা পরে ফেরত গেছে। এবারও নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে রাস্তা ও ড্রেন করতে অর্থ বরাদ্দ করিয়েছিলাম। কিন্তু এবারে তিনি একবার অনুমতি দিলেও পরে আবারো মানা করেছে। এছাড়া অ্যাডভোকেট খোকন সাহার বাড়ির সামনে তার শিষ্য ডিস মাসুম ড্রেনের উপরে সিপটিন ও বালুসহ অন্যান্য নির্মাণ সামগ্রী রেখে বাড়ি নির্মাণের কাজ করছে। এতে করে ড্রেন ভরাট হয়ে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি করছে। মূলত অ্যাডভোকেট খোকন সাহার প্রশ্রয়েই ডিস মাসুম এমনটি করছে। মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা একজন সচেতন নাগরিক হয়েও এলাকার প্রতি কোন ধরনের নজরদারী করেননা। যে কারণে তাঁর (খোকন সাহা) পানিতেই হাঁটা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন কাউন্সিলর শফিউদ্দিন প্রধান।

উল্লেখ্য নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা সাম্প্রতিক সময়ে নিজেকে সবসময় আলোচনায় রাখার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বক্তব্য প্রদান সহ নানা কর্মকান্ড করে আসছেন। অনেক সময় যুক্তিহীন বিষয় নিয়েও নিজেকে আলোচনা রাখার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। সেই সাথে একাট্টাভাবে পক্ষাবলম্বন করে যাচ্ছেন।

তারই ধারবাহিকতায় খোকন সাহা প্রতিবাদের অংশ হিসেবে পানি দাঁড়িয়ে ছবি তুলেছেন। লুঙ্গি ও শার্ট পরিহিত খোকন সাহার দুটি ছবি গত ২২ জুন ফেসবুকে আপলোডের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল ও বিষয়টি চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে। এই ছবির মাধ্যমে তিনি নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানানোর চেষ্টা করেছেন।

কিন্তু অ্যাডভোকেট খোকন সাহার এই ছবির প্রেক্ষিতে নাগরিকবাসী তাকে ফতুল্লায় যাওয়ার কথা বলেছেন। কেউ কেউ বলছেন, ‘অ্যাডভোকেট খোকন সাহা যদি এখানে দাঁড়িয়ে ছবি তুলে থাকেন তাহলে প্রতিবাদ হিসেবে এবার ফতুল্লা এলাকায় গিয়ে সাঁতার কেটে আসুক। দীর্ঘদিন ধরে ফতুল্লা এলাকার জনগণ জলাবদ্ধতায় ভুগছেন। সেখানে হাঁটু পানির পরিবর্তে কোথাও কোথাও ময়লা পানিতে সাঁতার কেটে যাতায়াত করার উপক্রম হয়েছে। সেখানে যদি অ্যাডভোকেট খোকন সাহা গিয়ে সাঁতার কেটে আসতেন তাহলে ফতুল্লা এলাকাবাসীর উপকার হতে পারতো।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও