মাতৃত্বকালীন ছুটি চাওয়ায় চাকরি ছাড়ার নির্দেশ

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১১:০৯ এএম, ৭ অক্টোবর ২০২১ বৃহস্পতিবার

মাতৃত্বকালীন ছুটি চাওয়ায় চাকরি ছাড়ার নির্দেশ

নারায়ণগঞ্জ মহানগরের গোদনাইলের ৪২/১ ওয়াটার ওয়ার্কস রোডস্থ এইচ এন এপারেলস কর্তৃপক্ষ শ্রম আইন মানে না বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শ্রম আইন অনুযায়ী এক নারী শ্রমিক মাতৃত্বকালীন ছুটি চাইলে তাকে উল্টো চাকরি ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের নারায়ণগঞ্জ কার্যালয়ের উপ মহাপরিদর্শকের বরাবরে অভিযোগ দিয়েছেন এইচ এন এপারেলস এর নারী শ্রমিক মোসলেমা বেগম।

অভিযোগে নারী শ্রমিক মোসলেমা বেগম বলেন, তিনি কারখানাটিতে ২০১৬ সালের ১ নভেম্বর থেকে সুইং শাখায় ফেডলক মেশিন অপারেটর পদে কাজ করছেন। তার আইডি নম্বর ৯৮০। মোসলেমা গর্ভধারণের পরে আলট্রাসনো রিপোর্ট ও রেজিষ্টার্ড চিকিৎসকের মতে আগামী ১০ অক্টোবর মোসলেমার সন্তান প্রসবের সম্ভাবনা রয়েছে। মোসলেমার এটি দ্বিতীয় সন্তান জন্ম নিতে চলেছে। তিনি এ বিষয়ে কারখানাটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে অবহিত করার পরে প্রয়োজনীয় মেডিকেল রিপোর্ট জমা দিতে চাইলে কারখানা কর্তৃপক্ষ তা গ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানান।

কর্তৃপক্ষ মৌখিকভাবে মোসলেমাকে জানায়, তাদের কারখানায় মাতৃত্বকালীন ছুটি দেওয়ার নিয়ম নেই। কাজ করলে টাকা পাবে কাজ করতে না পারলে চাকরি ছেড়ে চলে যাও। অতিরিক্ত কাজের চাপে মোসলেমার শারীরিক সমস্যা দেখা দিলে গত ৩ আগষ্ট থেকে মোসলেমা কাজে যোগ দেয়নি। এদিকে মোসলেমা কাজে যোগ না দেয়ায় তাকে জুলাই মাসের বেতনসহ অদ্যাবধি কোন ধরনের বেতন প্রদান করেনি মালিকপক্ষ। যে কারণে মোসলেমা শ্রম আইন অনুযায়ী মাতৃত্বকালীন পাওনা ছুটিসহ বকেয়া বেতন আদায়ে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের নারায়ণগঞ্জ কার্যালয়ের উপ মহাপরিদর্শকের দ্বারস্থ হয়েছেন।

গার্মেন্টস শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি এম এ শাহীন জানান, মাতৃত্বকালীন ছুটি পাওয়া যেকোন নারী শ্রমিকের অধিকার। কিন্তু মালিকপক্ষ ওই নারী শ্রমিককে বঞ্চিত করার লক্ষ্যে নানা টালবাহানা করছে। এ বিষয়টি কোনভাবেই মেনে নেওয়ার মতো নয়। আমরা এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের উর্ধ্বতনদের সুদৃষ্টি কামনা করছি।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও