অপহরণের ৩৬ ঘণ্টা পর ব্যবসায়ী উদ্ধার

|| নিউজনারায়ানগঞ্জ২৪.নেট ০১:০১ এএম, ১ জানুয়ারি ২০১৫ বৃহস্পতিবার

অপহরণের ৩৬ ঘণ্টা পর ব্যবসায়ী উদ্ধার
নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার কেওঢালা বাগদবাড়ি থেকে অপহরণের ৩৬ ঘণ্টা পর অপহৃত ব্যবসায়ী রুহুল আমিনকে শনিবার সকালে উদ্ধার করেছে বন্দর থানা পুলিশ। এ সময় পুলিশ অপরহণের মূলহোতা সানোয়ারকে গ্রেপ্তার করতে পারলেও তার সাথে থাকা বাকিরা পালিয়ে গেছে। এ ঘটনায় বন্দর থানায় একটি অপহরণ মামলা হয়েছে।   গ্রেপ্তার হওয়া সানোয়ারের বিরুদ্ধে হত্যা ও ডাকাতি সহ বন্দর থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। অপহরণের পর উদ্ধার হওয়া রুহুল আমিন ইট খোলার ব্যবসা করেন।   শনিবার ভোর ৬টায় বন্দর থানার উপ পরিদর্শক (এস আই) জাহাঙ্গীরের নেতৃত্বে এক দল পুলিশ কেওঢালার বাগদবাড়ি এলাকায় সানোয়ারের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে একটি বন্ধ ঘর থেকে হাত পা বাঁধা অবস্থায় রুহুল আমিনকে উদ্ধার করে।   রুহুল আমিনের পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে এস আই জাহাঙ্গীর জানান, বেশ কিছুদিন আগে রুহুল আমিন মিজানুর রহমানের কাছে একটি জমি বিক্রি করে। সে সময় সানোয়ার রুহুল আমিনের কাছে চাঁদা দাবি করলে রুহুল আমিন চাঁদা দিতে অসম্মতি জানালে এর জের ধরে বৃহস্পতিবার রাত ১২টায় রুহুল আমিনকে লোক দিয়ে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায় সানোয়ার। এরপর থেকে রুহুল আমিন নিখোঁজ ছিল।   তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় নিখোঁজ রুহুল আমিনের স্ত্রী বাদী হয়ে শুক্রবার সকালে ধামগড় ফাঁড়িতে একটি সাধারণ ডায়রী করেন। পরে বন্দর থানা পুলিশ শনিবার ভোরে সানোয়ারের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে একটি বন্ধ ঘর থেকে হাতপা বাঁধা অবস্থায় রুহুল আমিনকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় পুলিশ সানোয়ারকে গ্রেপ্তার করতে পারলেও তার সহযোগীরা পালিয়ে গেছে। তবে অপহৃত রুহুল আমিন অপহরণকারীদের মধ্য থেকে আরও দুই তিনজনকে চিনতে পেরেছে বলে পুলিশকে জানিয়েছেন। এ ঘটনায় বন্দর থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের হয়েছে।

বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও