ব্রিটিশরা ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে দাঙ্গা লাগাতো

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১০:৪১ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০২১ সোমবার

ব্রিটিশরা ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে দাঙ্গা লাগাতো

বাম গণতান্ত্রিক জোটের জেলা সমন্বয়ক নিখিল দাস বলেছেন, নোয়াখালীতে হামলার ঘটনায় সেখানকার নেতারা বলছেন, আমরা এসপি, ওসি, এমপি, স্থানীয় আওয়ামী নেতাদের ফোন দিয়ে পাইনি। সংঘাতের ২ ঘন্টা পর তারা তৎপরতা শুরু করেছে। এতেই বোঝা যায় এর পেছনে কোন ঘটনা রয়েছে। বর্তমানে পুলিশ ও আওয়ামী লীগ অত্যান্ত শক্তিশালী। এরপরেও এই ঘটনা ঘটার পরে এর দায় তারা এড়াতে পারে না। পশ্চিমবঙ্গে দীর্ঘদিন বাম শাসন ছিলো। তখনকার মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসুকে প্রশ্ন করা হয়েছিলো সারা ভারতে দাঙ্গা হলেও পশ্চিমবঙ্গে কেন হয়না? তিনি উত্তরে বলেছেন পশ্চিমবঙ্গের শাসক দাঙ্গা চায় না। সুতরাং সরকার যদি চায় দাঙ্গা হবেনা তাহলে এই দুঃসাহস কেউ দেখাতে পারবে না।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে সাম্প্রতিক ইস্যুতে এই মন্তব্য করেন তিনি। সমাবেশে দ্রব্যমূল্যের দাম কমানো, সিন্ডিকেট ভেঙ্গে দেয়া এবং সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস রুখে দাঁড়াবার আহবান জানান নেতারা।

সমাবেশে জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি হাফিজুল ইসলাম বলেন, যারা আমাদের শোষন এবং শাসন করছে তারা একের পর এক দাম বৃদ্ধি করে চলছে। এই সরকার এবং এর আগের সরকারও পর্যায়ক্রমে দাম বাড়িয়ে চলছে। তারা একেক অজুহাতে দ্রব্যমূলের দাম লাগামহীন বানিয়েছে। সরকারের মন্ত্রী আমলাদের এই খবর রাখতে হয়না, কারন তারা বাজারে যায় না। মানুষের ঘরে এখন খাবার জোগার করা কঠিন হয়ে পড়েছে। এমন পরিস্থিতিতে নজর ঘোরাতে নতুন করে সাম্প্রদায়িক সংঘাত উস্কে দেয়া হয়েছে। যারা দেশ পরিচালনা করে তারা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে দেশ রাখতে চায় না। কারন, ব্রিটিশরা তাদের শাসন টিকিয়ে রাখতে এই হিন্দু মুসলমানে দাঙ্গা লাগিয়ে দিত। সেই একই কায়দায় বর্তমান শাসকরা মানুষের মাঝে সম্প্রীতি নষ্ট করে দিচ্ছে। প্রশাসন বলে এমন পরিস্থিতিতে হবে তা তারা জানতো না। আপনারা হেফাজতের শফী হুজুরকে বশে আনতে পারেন আর কারা এসব করছে তা জানেন না? কিছুদিন পর পর হিন্দুদের উপর হামলা করে আপনারা ক্ষমতায় টিকে থাকতে চান।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন জেলা সিপিবির সাধারণ সম্পাদক শিবনাথ চক্রবর্ত্তী, বাসদ নেতা আবু নাঈম খান বিপ্লব, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক আবু হাসান টিপু, গণসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়ক তরিকুল সুজন, নির্বাহী সমন্বয়ক অঞ্জন দাস প্রমুখ।



নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও