ফেসবুকের সূত্র ধরে বন্দরে কিশোরীকে উদ্ধার

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১২:০৫ এএম, ১৮ জুলাই ২০২১ রবিবার

ফেসবুকের সূত্র ধরে বন্দরে কিশোরীকে উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় এক মানসিক ভারসাম্যহীন কিশোরীকে উদ্ধার করে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছে বন্দর থানা পুলিশ। তাকে উদ্ধার করে ১০০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে শনিবার ১৭ জুলাই তাকে আদালতে প্রবাসন অফিসারের মাধ্যমে গাজীপুর সরকারি আশ্রয় কেন্দ্রে পৌঁছে দেয়া হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মাহমুদা (১৮) নবীগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেনী পর্যন্ত পড়াশোনা করেছিলো। তার মা মারা যাওয়ার পর বাবা টাকা পয়সা নিয়ে অন্যত্র চলে যায়। গৃহহীন হয়ে কিছুদিন এদিক ওদিক থাকলেও পরবর্তীতে সে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে। শুক্রবার রাতে ফেসবুকে কয়েকজন বিষয়টি তুলে ধরেন। পোস্টদাতা এক নারী ওই মেয়েকে নির্যাতন করা হয়েছে জানালে তৎপর হয় পুলিশ।

১৬ জুলাই শুক্রবার মধ্যরাত দেড়টার দিকে বন্দর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দীপক চন্দ্র সাহার নেতৃত্বে থানা পুলিশের টিম মেয়েটিকে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। পরে তাকে নবীগঞ্জ ঘাটের পাশে রাস্তা থেকে উদ্ধার করা হয়। দ্রুত তাকে নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন পুলিশ সদস্যরা।

চিকিৎসা শেষে তার উপর কোন যৌন নির্যাতনের চিহ্ন পাওয়া যায়নি বলে জানায় কর্মরত চিকিৎসক। তবে দীর্ঘদিন না খেয়ে বেশ অসুস্থ হয়ে পড়েছেন তিনি।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের আইসিটি বিভাগের প্রধান উপ পরিদর্শক হাফিজুর রহমান বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যেভাবে বিষয়টি স্পর্শকাতর অভিযোগ তোলা হয়েছে বাস্তবে তা ঘটেনি। পোস্টদাতা এজন্য আমাদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছে। তবে আমরা এই মেয়েটিকে সরকারি আশ্রয় কেন্দ্রে পাঠাতে পেরে খুশি।

বন্দর থানার উপ পরিদর্শক মোদাচ্ছের হোসেন বলেন, আমাদের থানার ওসি সহ অনেকেই রাতভর মেয়েটিকে পাশে ছিলাম। তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসা করিয়ে আদালতের মাধ্যমে গাজীপুর পাঠানো হয়েছে। শুক্রবার বন্ধের দিনেও আমরা মেয়েটিকে উদ্ধারের জন্য কাজ করেছি। তাকে নিরাপদ স্থানে পাঠাতে পেরে আমাদের নিজেদের কাছেও ভালো লাগছে।



নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও