বিতর্কে বন্দরের কমিটি : শুক্কুর মাহমুদের নির্দেশ উপেক্ষিত!

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:৫১ পিএম, ১৬ অক্টোবর ২০২০ শুক্রবার

বিতর্কে বন্দরের কমিটি : শুক্কুর মাহমুদের নির্দেশ উপেক্ষিত!

দীর্ঘ ৩দশক পর বন্দর উপজেলার বন্দর ইউনিয়ন শ্রমিকলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলনে কোন ভোট গ্রহণ ছাড়াই আসলাম নামের নিতান্তই অচেনা এক যুবককে সাধারন সম্পাদক করা হয়েছে।

তৃনমূলের দাবী উপেক্ষা করে পদ বঞ্চিত করা হয়েছে আওয়ামী লীগের পরীক্ষিত নজরুল ইসলামকে।

এনিয়ে সম্মেলনস্থলে তীব্র প্রতিবাদ ও সমালোনচনার সৃষ্টি হলেও থানা শ্রমিকলীগের সভাপতি মোজাম্মেল হকের কুট কৌশল আর তার ছেলে নয়নের বাহিনীর কাছে অসহায়ত্ব প্রকাশ করেছেন সিনিয়র নেতারা।

এমনকি সম্মেলন মঞ্চে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক কাাজিম উদ্দিন উপস্থিত থাকলেও তিনি ছিলেন অনেকটাই নিরুপায়।

তৃনমূল কর্মীদের অভিযোগ, পুরো ঘটনার নেপথ্যেও কুট কৌশলে ছিলেন সাবেক কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনু যার নেপথ্য ইশারায় পুরো বন্দর উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃত্ব নির্ধারণ হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

সম্মেলনে থাকা শত শত কর্মীরা জানান, শ্রমিকলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি ও বর্ষিয়ান নেতা প্রয়াত শুক্কুর মাহমুদ মৃত্যূর আগে বন্দর ইউনিয়নসহ উপজেলা শ্রমিকলীগকে ঢেলে সাজাতে চেয়েছিলেন। তিনি বন্দর ইউনিয়ন শ্রমিকলীগের নেতৃত্ব দিতে চেয়েছিলেন বন্দরের প্রবীন আওয়ামীলীগ নেতা ফজল করিমের ছেলে নজরুল ইসলামকে। প্রবীন ফজল করিম জীবদ্দশায় প্রয়াত সামসুজ্জোহার সাথেও রাজনীতি করেছেন। গত বিএনপি আমলে রাতের আধারে ছেলেদের নিয়ে তিনি পোস্টার লাগিয়েছেন। এখন যেকোন দলীয় অনুষ্ঠানে প্রবীন এই নেতা উপস্থিত হন। এই পরিবারটি কয়েক দশক ধরেই ওসমান পরিবারের পাশে আছেন। কিন্তু সেই পরীক্ষিত পরিবারের সন্তান নজরুল ইসলামকে সম্মেলনে নিগ্রহের শিকার হতে হয়েছে।

কর্মীরা জানান, সাধারন সম্পাদক পদে যাকে আসীন করা হয়েছে সেই আসলামকে কখনওই দলীয় অনুষ্ঠানের অগ্রভাগেই দেখা যায়নি। সম্মেলন মঞ্চেই এনিয়ে প্রতিবাদ করেছেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা পনির হোসেন।

কিন্তু পুরো অনুষ্ঠানেই শত শত বহিরাগত নিয়ে মহড়া চলে আসলামের নেতৃত্বে। আর এই মহড়ার নেতৃত্ব দেন বন্দর থানা শ্রমিকলীগের সভাপতি মোজাম্মেল হকের ছেলে নয়ন। মোজাম্মেল হক বন্দর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুর রশীদের ভাই।

কর্মীরা আরো জানায়, আসলাম একজন রাজমিস্ত্রি ছিল। কর্মীরা জানান, বৃহস্পতিবার রাতের আধারে সাবেক কাউন্সিলর আনুর ঘনিষ্ঠ সাবেক জেলা ছাত্রলীগের এক নেতার নেতৃত্বে মোজাম্মেল হক ও তার নয়নের সাথে মিলেই পুরো নাটকটি রচনা করা হয়েছে।

বন্দর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজিম উদ্দিন জানান, সম্মেলনের আগে আমি যে কয়েকজনের নাম শুনেছিলাম সেখানে আসলাম নামের কারো নামই শুনিনি। কিন্তু থানা শ্রমিকলীগের নেতারাই নেতৃত্ব নির্ধারণ করেছেন। যদি কোন ত্যাগী পরীক্ষিত নেতাকে রেখে অচেনা বা দলের জন্য কাজ করেনি এমন কাউকে নেতৃত্বে রাখা হয় বলে জানা যায় তবে অবশ্যই সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়ার সুযোগ রয়েছে।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও