টাকায় বিক্রি হওয়া নেতাদের বয়কট করা হবে ফোরামের এবারের কমিটিতে

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১০:১১ পিএম, ২৮ অক্টোবর ২০২০ বুধবার

টাকায় বিক্রি হওয়া নেতাদের বয়কট করা হবে ফোরামের এবারের কমিটিতে

আগামী মাসের প্রথমদিকে নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী ফোরামের কমিটি গঠনের সম্ভাবনা রয়েছে। আর এই কমিটি ঘোষণাকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী ফোরামের সম্ভাব্য পদ প্রত্যাশীরা সরব হতে শুরু করেছেন। আর এবারের নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী ফোরামের কমিটি সম্মেলনের মাধ্যমে হওয়ার সম্ভাবনাই প্রবল। তবে সম্মেলনের মাধ্যমে হলেও বিভিন্ন সময় টাকায় বিক্রি হওয়া আইনজীবী নেতাদেরকে এবার বয়কটের সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন বিএনপিপন্থী সাধারণ আইনজীবীরা। তারা দলের সাথে বেঈমানি করা কোনো নেতাকে নেতৃত্বে আনতে চান না।

সূত্র বলছে, সবশেষ ২০১৭ সালের ৭ জুন অ্যাডভোকেট সরকার হুমায়ুন কবিরকে সভাপতি এবং অ্যাডভোকেট খোরশেদ আলম মোল্লাকে সাধারণ সম্পাদক করে ২৮৭ বিশিষ্ট কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়ছিল। কিন্তু এই কমিটিকে মেনে নেননি আইনজীবীদের একাংশ। ওই বছরের ১৮ জুন নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের হানিফ খান মিলনায়তনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম নারায়ণগঞ্জ জেলার ব্যানারে সংবাদ সম্মেলনে এ কমিটিকে ‘অগণতান্ত্রিক ও বে-আইনি’ আখ্যায়িত করে তা বাতিলের দাবি জানিয়ে ১৪০ জন আইনজীবী পদত্যাগ করেন।

তারপরেও নারায়ণগঞ্জ জেলা আদালত পাড়ায় সেই কমিটির কার্যক্রম চলে আসছিল। পরবর্তীতে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের হস্তক্ষেপে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সকল জেলা কমিটি বাতিল করা হয়। যার ধারাবাহিকতায় নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের কমিটিও বাতিল হয়ে গিয়েছিল।

এরই মধ্যে ২০১৯ সালের ৩ অক্টোবর জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের কেন্দ্রীয় আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। আর এই কমিটি গঠন হওয়ার পর থেকেই সারাদেশেই সরব হয়ে উঠে আইনজীবী ফোরামের নেতৃবৃন্দরা। যার ধারাবাহিকতায় নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়াতেও জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের নেতৃবৃন্দরা সরব হয়ে উঠেছিলেন। কিন্তু আইনজীবী সমিতির নির্বাচন ও প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের সংক্রমনের কারণে নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী ফোরামের কমিটি গঠন প্রক্রিয়া থেমে যায়। এবার করোনা ভাইরাসের সংক্রমন কমে আসায় আবারও নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়ায় কমিটি নিয়ে সরগরম হয়ে উঠেছেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।

আদালতপাড়া সূত্রে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী ফোরামের এবারের কমিটিকে কেন্দ্র করে সভাপতি সভাপতি হিসেবে আলোচনায় রয়েছেন জেলা আইনজীবী ফোরামের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট সরকার হুমায়ুন কবির ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল হামিদ ভাষানী। সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আলোচনায় রয়েছেন অ্যাডভোকেট আজিজ আল মামুন, অ্যাডভোকেট সুমন মিয়া ও অ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ জাকির। এছাড়া সাংগঠনিক পদে আলোচনায় রয়েছেন অ্যাডভোকেট আলী হোসাইন ও অ্যাডভোকেট ওমর ফারুক নয়ন।

এসকল সম্ভাব্য প্রার্থীরা দুইভাগে বিভক্ত হয়ে যার যার বলয় থেকে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বিএনপিপন্থী সাধারণ আইনজীবীদের সমর্থন আদায়ের জন্য। গোপনতা রক্ষা করে নিজেদের পক্ষে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। সেই সাথে আদালতের কাজ শেষে শহরের বিভিন্ন চাইনিজ রেস্তেরায় সভা মতবিনিময় সভাও করে যাচ্ছেন। তারা প্রত্যেকেই চাচ্ছেন যে কোনো উপায়ে নিজেদের পক্ষে সমর্থন আদায়ের জন্য। পাশাপাশি কেউ কাউকে সহজে ছাড় দিতেও রাজী হচ্ছেন না।

আর এসকল মতবিনিময় বিএনপিপন্থী সকল আইনজীবীদের একই বক্তব্য তারা এবার নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী ফোরামের কমিটিতে টাকায় বিক্রি হওয়া নেতাদের বয়কট করবেন। কমিটিতে এমন কাউকে সুযোগ দিবেন না যারা জেলা আইনজীবী সমিতির বিভিন্ন নির্বাচনে দলের সাথে বেঈমানি করে অন্য দলের কাছে নিজেদের প্যানের বিক্রি করেছেন। তারা ত্যাগী ও যোগ্য আইনজীবী নেতাদেরকে পদে আনতে চান। সেই সাথে সঠিক নেতৃত্বে মাধ্যমে জেলা আইনজীবী সমিতিতে নিজেদের কর্তৃত্ব ফিরিয়ে আনতে চান।

আদালতপাড়া সূত্র বলছে, নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়া বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের মধ্যে এমন অনেক নেতা রয়েছেন যারা নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে নিজের দলের সাথে বেঈমানি করে অন্য দলের কাছে প্যানেল বিক্রি করেছেন। এজন্য কোনো নেতার নামের পাশে ‘দুইলাইক্কা’ যুক্ত রয়েছে।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও