আইভীকে হুংকার হেফাজতের

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১০:১৯ পিএম, ১২ জানুয়ারি ২০২১ মঙ্গলবার

আইভীকে হুংকার হেফাজতের

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীকে মাদ্রাসা বন্ধের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবী জানিয়েছেন হেফাজত ও ওলামা পরিষদ নেতারা। তাঁরা বলেছেন, আইভী যদি তাঁর সিদ্ধান্ত থেকে সরে না আসনে তাহলে সামনে কঠোর কর্মসূচী দেওয়া হবে। হেফাজত নামলে আইভী পালানোর জায়গাও পাবে না। সুতরাং এ বিবৃতি আইভীকে গুরুত্ব সহকারেই নিতে হবে।

১২ জানুয়ারী হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ প্রচার সম্পাদক ও নারায়ণগঞ্জ মহানগর হেফাজতে ইসলামের সভাপতি মাওলানা ফেরদাউসুর রহমান নিউজ নারায়ণগঞ্জকে এসব কথা বলেন। তিনি একই সঙ্গে ওলামা পরিষদের জেলার সেক্রেটারী।

প্রসঙ্গত নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়ায় বাগে জান্নাত মাদ্রাসার বর্ধিত অংশের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিয়েছে সিটি করপোরেশন। সম্প্রতি সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবু আল আমিনের নেতৃত্বে একটি টিম ওই কাজ বন্ধ করে দেয়।

সিটি করপোরেশনের সার্ভেয়ার কালাম মোল্লা জানান, সিএস আরএসের রেকর্ড মোতাবেক এর মালিক সিটি করপোরেশন। সাবেক পৌরসভা আমলেই ৩৫ বাই ৬০ ফিট জায়গা মসজিদের জন্য দেওয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার মাদ্রাসা ও মসজিদ কমিটির সঙ্গে বৈঠক হয়েছে। তখন মেয়র জানিয়েছে এখান বহুতল ভবন হবে। ওই সময়ে জানানো হয় ভবনের প্রয়োজনীয় ফ্লোর মসজিদের জন্য দেওয়া হবে। সেই সময়ে মসজিদের ভেতরেই মাদ্রাসার একটি অংশ নেওয়ার কথা। কিন্তু মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ আলাদা জমি চেয়েছিল। তারা ১৫ শতাংশ দাবী করলেও মেয়র নিজেই ১৭ শতাংশ প্রদান করে। এখন না জানিয়েই মাদ্রাসা ও মসজিদের কাজ সম্প্রসারণ করছে। সে কারণেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। মসজিদ কমিটি ওয়াকফ করে না নেয় তাহলে সেটা অবৈধ হবে।

এ ব্যাপারে ফেরদাউসুর নিউজ নারায়ণগঞ্জকে আরো বলেন, ‘মসজিদ মাদ্রাসার যে দলিলপত্র রয়েছে সেখানে স্পষ্ট লেখা আছে যে এ সম্পত্তি ধর্মীয় কাজে ব্যবহার হবে। কিন্তু মেয়র আইভী এটা মানছেন না। এখানে যে বর্ধিত অংশ নির্মাণ হচ্ছে সেটা তো আর বাণিজ্যিক বা অন্য কোন কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে না। এটা মূলত মসজিদ ও মাদ্রাসার কাজেই ব্যবহার হচ্ছে। কিন্তু কোন একটি মহলের কারণে আইভী এটা সহ্য করতে পারছে না। আমার মতে, এ মাদ্রাসাটি কওমী পন্থী মাদ্রাসা। সে কারণেই মেয়র এটাকে সহ্য করতে পারছেন না। আমরা অতীতে দেখেছি মেয়র মাজারে ঢু মারে, বেদাতীদের নিয়ে চলাফেরা করেন। নারায়ণগঞ্জের মাসদাইরে কেন্দ্রীয় মসজিদটিও আকিদা মোতাবেক পরিচালিত হচ্ছে না। সে কারণেই মাজারপন্থীদের উস্কানিতে আইভী বাগে জান্নাত মাদ্রাসার মত শহরের বুকে কোরআনের আলো ছড়ানো একটি কওমিপন্থী মাদ্রাসা বন্ধ করে দিচ্ছে।

ফেরদাউস নিউজ নারায়ণগঞ্জকে আরো বলেন, ‘হেফাজত ইসলাম কোন গোষ্ঠীর না। এটা ইসলামকে হেফাজত করার জন্য কাজ করেছে। যেখানে বাতিলপন্থী, শাহাবাগী নাস্তিকেরা মাথাচাড়া দিয়েছে সেখানেই হেফাজতে ইসলাম ও ওলামা পরিষদ আন্দোলন করেছে প্রতিবাদ করেছে। এবার যেহেতু মসজিদ মাদ্রাসাতে মেয়র হাত দিচ্ছে সে কারণে আমরাও বসে থাকবো না। আপাতত বিবৃতির মাধ্যমে মেয়রকে সতর্ক করে দিচ্ছি। এতে তিনি গুরুত্ব দিয়ে যদি পিছু না হটে তাহলে আমরাও আঙুল বাকা করতে বাধ্য হবো।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও