মেয়র তো উল্টো থ্রেড দেয়

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১২:৪৪ পিএম, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২১ শনিবার

মেয়র তো উল্টো থ্রেড দেয়

হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমীর ও ডিআইটি রেলওয়ে কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আব্দুল আউয়াল বলেন, আমরা কোনো ব্লকের লোক না। আমরা কোনো রাজনৈতিক ব্লকের লোক না। আমরা আল্লাহপাকের সৈনিক। আমরা মসুলমানদের একজন মুখপাত্র ইমানদারদের মুখপাত্র। আমরা কোনোদিন অন্তরে মুনাফেকি লালন করে কথা বলি না। খোদার কসম অন্তরে যা আছে তাই বলে দেই। আপনারা ইলেকশনে কে আসবেন কে ফেল করবেন এগুলো আমাদের দেখার বিষয় না।

১৯ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার জুমআর নামাজের খুতবার বয়ানে তিনি এসব কথা বলেন।

মাওলানা আব্দুল আউয়াল বলেন, পত্রিকায় আসছে আপনি মাসদাইর মাদরাসা ভাঙ্গছেন। পত্রিকায় আসছে বাগে জান্নাত মাদরাসায় হাত দিচ্ছেন। পত্রিকায় আসতেছে আপনি মাজারে গেছেন। পত্রিকায় আসছে সিরাজ শাহর মাজারে গিয়ে নাচানাচি করছেন। পত্রিকায় তো সবই আসে। আমরা পত্রিকার কথা বলছি আমি মিথ্যা কেমন করে বললাম। পত্রিকার কথা আমরা পত্রিকার মতোই বলবো। এটা সত্য হতে পারে মিথ্যা হতে পারে। যদি সত্য না হয় তাহলে পত্রিকাওয়ালাদের ধরেন তোমরা কেন আমার নামে মিথ্যা লিখলা। তাদেরকে ধরবেন না আমাদেরকে মিথ্যাবাদী বানাবেন। এটা তো হতে পারে না কোনোদিন।

তিনি আরও বলেন, কতদিন কতদিন! ক্ষমতায় আল্লাহ সবসময় রাখে না। আল্লাহ বলেন, আমি যাকে মসনদে রাখি যাকে ইচ্ছা মসনদ থেকে উষ্টা দিয়ে ফেলে দেই। আমি কাউকে ইজ্জত দেই কাউকে বেইজ্জত করে দেই। এ সমস্ত কিছুই আমার হাতে। কেন আমাদের এভাবে কালারিং করছেন। কেউ যদি কোনো নোট পেয়ে থাকে তারা পেয়েছে। মিম্বরে বসে আল্লাহ স্বাক্ষী আমরা এসমস্ত ব্যাপারে খোদার কসম কোনো দিন একটা টাকা হাতের কাছে আনি নাই। বরং এসমস্ত প্রস্তাব এসে লাথি মেরে ফেলে দিতে চাই। টাকার গোলামী করি না আমরা আল্লাহর গোলামী করি।

আবদুল আউয়াল বলেন, আপনার এখানে মাজারওয়ালারা জায়গা পায় গাউসিয়াওয়ালারা জায়গা পায় স্কুলওয়ালারা জায়গা পায় শুধু মাদরাসাওয়ালারা জায়গা পায় না এখন বেতন নাই বিধায়। আসলে আপনার মনের উদ্দেশ্য খারাপ। আপনি আমাদেরকে সহ্য করতে পারেন না। এ কারণে আমাদের ভিন্নভাবে দেখছেন। কোনো কথা উত্তর দিলেন না। এমন একটা বিষয় নিয়ে এসে পুরো সাংবাদিকদের ক্ষেপিয়ে তুললেন। ফোনলাপ হয়েছিল আপনার সাথে আমার সাথে। এটা সাংবাদিকদের কাছে গেল কেমনে। উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবেই আপনি এটা তৈরি করেছেন। আপনিও তো বিরাট করে সন্ত্রাসী কায়দায় হুমকি দিলেন। আমি বারবার বলছি আমি কখনও বলি নাই আপনার কবর রচিত হবে। ডিআইটি মসজিদে হাত দিলে তার খবর রচিত হবে সে যে কেউই হোক না কেন। আপনারা এভাবে করে গত ১৫দিন নারায়ণগঞ্জে পত্রিকাগুলোর মধ্যে এটাই ছাড়ছেন। যেন আর কোনো বিষয় নাই। সরকারী জায়গা জনগণের হক। জনগণের জন্য পার্ক থাকতে পারে স্কুল থাকতে পারে তাহলে মসজিদ মাদরাসা মাদরাসা কেন থাকবে না। আমাদেরকে থ্রেড দিচ্ছে আপনারা। বড় আপসোস লাগে।

মেয়র আইভীর সঙ্গে আবদুল আউয়ালের একটি ফোনালাপ প্রচার ও প্রকাশ করে নিউজ নারায়ণগঞ্জ ও সময়ের নারায়ণগঞ্জ। এ নিয়েও কথা বলেন আবদুল আউয়াল। তিনি বলেন, ফোনালাপ হইছিলো আপনার সাথে। সেটা সাংবাদিকদের কাছে গেলো কেমনে? তার মানে আপনি উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবেই এটা তৈরি করেছিলেন। গত ১৫ দিন ধরে নারায়ণগঞ্জের পত্রিকাগুলোকে শুধু এটার মধ্যেই রাখছেন। দুনিয়াতে আর যেমন কোন বিষয় নাই। আপনি বার বার বলছেন, মায়ের জাতের কথার প্রসঙ্গ এনে। এসব কথা বলে আমাদের দুর্বল করছেন। আমরা তো আপনাকে গালি দেই নাই।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও