বিএনপির রেকর্ডগড়া শোডাউন

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:১৮ পিএম, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১ রবিবার

বিএনপির রেকর্ডগড়া শোডাউন

মহান ভাষা দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে রেকর্ডগড়া শোডাউন করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি। অতীতের সকল রেকর্ড ভঙ্গ করে দিয়ে এদিন তারা বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের বিশাল অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে নারায়ণগঞ্জের রাজপথে বিশাল শোডাউন করে চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করেছেন।

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ২১ ফেব্রুয়ারী রোববার সকাল ১০টার আগে থেকেই নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা নগর ভবনের সামনে খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে জড়ো হন। এভাবে একের পর এক খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে জড়ো হতে হতে বিশাল জনসমাবেশে পরিণত হয় নগর ভবন এলাকা।

এরপর সেখান থেকে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির আহবায়ক অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার ও সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদের নেতৃত্বে বিশাল মিছিল নিয়ে চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এসে শ্রদ্ধাঞ্জলী জ্ঞাপন করেন। সেই সাথে মিছিলে নেতাকর্মীদের স্লোগানে স্লোগানে প্রকম্পিত হয়ে উঠে নারায়ণগঞ্জ শহর।

এসময় উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম আহবায়ক মনিরুল ইসলাম রবি, নাছির উদ্দিন, জাহিদ হাসান রোজেল ও নজরুল ইসলাম পান্না মোল্লা, শরীফ আহমেদ, মোশারফ হোসেন, বশির উদ্দিন বাচ্চু, হাজী সেলিম, মোশারফ হোসেন (সোনারগাঁ), আশরাফুল হক রিপন, ওয়াহিদ বিন ইমতিয়াজ বকুল, রিয়াদ মোহাম্মদ চৌধুরী, দুলাল হোসেন, কাশেম ফকির, ইউসুফ আলী ভূঁইয়া, আব্দুল আজিজ মাস্টার, এম এ হালিম জুয়েল, গুলজার হোসেন, শাহ আলম হিরা, নুরুন্নাহার বেগম, একরামুল কবির মামুন, শাহ আলম মুকুল, মোস্তাকুর রহমান, রিয়াজুল ইসলাম, রহিমা শরীফ মায়া, রুহুল আমিন, কামরুজ্জামান মামুন, হামিদুল হক খান, বাকির হোসেন, আল মুজাহিদ মল্লিক ও জুয়েল আহমেদ।

জানা যায়, গত ৩১ ডিসেম্বর রাতে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির ৪১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটির ঘোষণা দিয়েছিলেন। আর এতে আহবায়ক করা হয় অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকারকে এবং সদস্য সচিব করা হয় অধ্যাপক মামুন মাহমুদকে। আর এই কমিটি ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতাকর্মীরা অতীতের সকল রেকর্ড ভঙ্গ করে দিয়ে নেতাকর্মীদের সমাগম ঘটিয়ে চলছেন।

দলীয় সূত্র বলছে, ২০১৭ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারী জেলা বিএনপির ২৬ সদস্য বিশিষ্ট আংশিক কমিটির তালিকা প্রকাশ করা হয়। জেলা বিএনপির সাবেক কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী মনিরুজ্জামানকে সভাপতি ও জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি অধ্যাপক মামুন মাহমুদকে সাধারণ করে জেলা বিএনপির কমিটি গঠন করা হয়। তবে ওই কমিটি নারায়ণগঞ্জ তেমন একটা প্রভাব ফেলতে পারেনি।

এরপর ২০১৯ সালের ২৩ মার্চ দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামান এবং সেক্রেটারী অধ্যাপক মামুন মাহমুদ সহ ২০৫ জনের পূর্ণাঙ্গ কমিটির ঘোষণা দিয়েছিলেন। আর এই পূর্ণাঙ্গ কমিটিও দলীয় আন্দোলন সংগ্রামে জোড়ালো কোনো ভূমিকা রাখতে পারেনি। প্রায় সকল কর্মসূচিতেই তাদের নিরব ভূমিকা লক্ষ্য করা যেত।

কর্মসূচিতে অধ্যাপক মামুন মাহমুদ উপস্থিত থাকলেও সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামান প্রায় সব কর্মসূচিতেই অনুপস্থিত থাকতেন। সেই সাথে নেতাকর্মীদেরও উপস্থিতি থাকতো হাতেগুনা। এবার আহবায়ক অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার ও সদস্য সচিব মামুন মাহমুদের নেতৃত্বে সেই গন্ডি থেকে বেরিয়ে আসছে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও