চুনকার মৃত্যুবার্ষিকীতে আবেগপ্রবণ ভিপি বাদল

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:৩৩ পিএম, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ বৃহস্পতিবার

চুনকার মৃত্যুবার্ষিকীতে আবেগপ্রবণ ভিপি বাদল

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত মো. শহিদ বাদল বলেছেন, ‘মনে পড়ে এই ২নং গেইটে। চুনকা ভাইকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে নিয়ে যাচ্ছে। আমি, শামীম ওসমান, বাবুরাইলের মিলন, মহি, জাহাঙ্গীর আমরা সকলে মিলে ঝাঁপিয়ে পড়ি। এসপিকে বলি, আমার চুনকা ভাই আমার নেতাকে ছাড়তে হবে। আর না হয় এদিকে গাড়ির চাকা ঘুরবে না। ওই সময় আমরা ছিলাম রক্ত টগবগে যুবক। আজকে ওই সময়গুলো মনে পড়ে।’

২৫ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগরের কার্যালয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি, নারায়ণগঞ্জ পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান প্রয়াত আলী আহাম্মদ চুনকার ৩৭তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্যে জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ‘করোনার সয়ম নির্দেশ ছিল ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দিতে। জোহা ভাই চুনকা ভাইয়ের নেতাকর্মীরা সেভাবেই কাজ করেছে। ঘরে বসে থাকি নাই। আজ বড় মর্মাহত, বড় আবেগপ্রবণ এই সময়ে আমরা। চুনকা ভাই আমাদের মাঝে নেই, জোহা ভাই আমাদের মাঝে নেই। আনসার চাচা, অধ্যাপিকা নাজমা রহমান আমাদের মাঝে নেই। মোবারক ভাই আমাদের মাঝে নেই। মনির ভাই আমাদের মাঝে নেই। আমি একটু আবেগপ্রবণ হয়ে যাই। কারণ আমি ছোট থাকতে অনেক কাছে গিয়ে দেখেছি।’

তিনি বলেন, ‘চুনকা ভাইয়ের কথা অনেক সময় বসে বসে হিস্টোরি বলি। আসলে ওনারা আদর করতেন। মাঝে মাঝে ধমকও দিতেন। ওনাদের আদরটা এখন আমাদের আশীর্বাদ হয়ে আছে। আর এই জন্যই আজকে জোহা ভাই, চুনকা ভাইয়ের আদর আর ধমকে নেতৃত্বের হাল ধরতে পেরেছি।’

তিনি বলেন, ‘টিকা নিতে টাকা লাগে না। একটু সাহস লাগে। নেতাদের টিকা নেওয়ার ছবি বের হয়। মানুষ সাহস পায়। চুনকা ভাই, জোহা ভাই জীবিত থাকলে ওনারা দলে দলে সকলকে নিয়ে টিকা দিতে নিয়ে যেতেন। কোনো এলাকা বাদ থাকতো না।’

তিনি বলেন, ‘গাড়িতে বসে বলছিলাম যে কি একটা সময়ে ষড়যন্ত্র আর ষড়যন্ত্র। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেশ পরিচালনার এগেইন্সটে বিদেশ থেকে ষড়যন্ত্র। আমাদের গর্বের সেনাবাহিনী তাঁদেরকে নিয়েও বিতর্ক করতে চায়। কি মহা ষড়যন্ত্র। এমনি একটি মুহূর্তে আমরা নেত্রীর নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করার জন্য আমরা দাঁড়িয়েছি। এটা ২০২১ কোনো ষড়যন্ত্রে মাথা নত করব না।’

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি খবিরউদ্দিন, উপ দপ্তর সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, সদর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা নাজির আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আল মামুন প্রমুখ।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও