চুনকা জোহার উত্তরসূরীরা কাঁদা ছোড়াছুড়িতে : আনোয়ার

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১১:৩৩ পিএম, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ শনিবার

চুনকা জোহার উত্তরসূরীরা কাঁদা ছোড়াছুড়িতে : আনোয়ার

২৭ ফেব্রুয়ারি শনিবার বাদ আসর নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের আয়োজনে মুক্তিযোদ্ধা সংগঠক ভাষা সৈনিক জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক এমপি এ কে এম সামুসুজ্জোহা এবং সাবেক পৌরপিতা জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি আলী আহাম্মদ চুনকা মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

এতে নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন বলেন, তৎকালীন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি একেএম শামসুজ্জোহার শিষ্য হিসেবে আমি তাঁকে সালাম করে ছাত্র রাজনীতিতে অংশ নেই। তিনি তখন আমাকে বলল, আনোয়ার রাজনীতিতে আছো সততা ও নিষ্ঠার সাথে ছাত্র রাজনীতি করো। পরে তখন বলেছিলাম, আপনার নির্দেশ ছাড়া কোন রাজনীতি করবো। তোলারাম কলেজের তৎকালীন বিশৃঙ্খলা কমিটি ভেঙ্গে আমি বিপুল ভোটে সেক্রেটারী নির্বাচিত হলাম। জোহা সাহেব উত্তর মেরু ও চুনকা সাহেবের দক্ষিণ মেরু রাজনীতি ছিল। তাদের মধ্যে সাপ বেজি সম্পর্ক ছিল। তাদের উত্তরসূরীদের মধ্যে আজ কাঁদা ছোড়াছুড়ি চলছে। জোহা সাহেব ও চুনকার মধ্যে রাজনীতি বিরোধ ছিল কিন্তু আজ তাদের উত্তরসূরীরা একে অপরকে গালি ও কাপড় ছিড়ে ফেলে। আজ নারায়ণগঞ্জের রাজনীতিতে যে কলংক জনক অধ্যায় চলছে তখন সে রাজনীতি ছিল না। গ্রুপিং রাজনীতি ছিল কিন্তু এমন অসুস্থ রাজনীতি ছিলো না।

আনোয়ার হোসেন বলেন, একেএম শামসুজ্জোহা আমাকে শিখিয়েছেন, সৎ ও নিষ্ঠাবান ব্যক্তিদের রাজনীতিতে অংশগ্রহণ করাও। খারাপরা যদি আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে প্রবেশ করাও তাহলে দল খারাপ দিকে যাবে। এখন রাজনীতি বিক্রি করে মাদক সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ জড়িয়ে যাচ্ছে। দলের সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন, আমার নতুন লোক দরকার নাই, আমার পুরাতন আওয়ামীলীগের নেতা রয়েছে তাদের পদ পদবী দিয়ে আনতে পারি। তাহলে আওয়ামীলীগ শক্তিশালী হবে।

তিনি বলেন, আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সুরে আনোয়ার বলেন, বসন্তের কোকিল বসন্ত যখন আসে, তখন হু হু করে আসে। যখন বসন্ত চলে যায় তখন তারাও হু হু করে চলে যায়। আসুন আমরা দল লীগ করি। আমাদের কিন্তু মানুষ সালাম দেয় ভয়বিহীন। অনেকে ভয়ে সালাম দেয়। আজ বসন্ত কোকিল কারা আমরা জানি, আপনাদের জানতে হবে। আজ ছাত্র নেতা জি এম আরাফাত, খাজা রহমত উল্লাহ, জাহাঙ্গীর আলম ছোট ঘটনা নিয়ে জেল খেটেছে। ৫ বছরের জেল হয়েছিল, রাষ্ট্রের ক্ষমতা বলে তারা আজ মুক্ত হয়েছে। অপরাধীদের হাত থেকে আমরা মুক্ত থাকতে চাই। আপনাদের মধ্যে কোন বিরোধ থাকে তাহলে সেটা ঘরের বসে সমস্যা সম্ভব। আজ যদি এখানে আইভী-শামীমের বিরুদ্ধে কথা বলি তাহলে দলের বদনাম হবে। আজ যদি গালাগালি করি তাহলে দলের দুর্নাম হবে। এক টেবিলে বসে সকল সমস্যার সমাধান করা যাবে।

উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি নুরুল ইসলাম চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এস এম আহসান হাবিব, জি এম আরমান, সাংগঠনিক সম্পাদক জি এম আরাফাত, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. আতিকুজ্জামান সোহেল, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রশিদ, কার্যকরি সদস্য সাখাওয়াত হোসেন সুমন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সেলিম হাসান দিনার, মোশারফ হোসেন জনি, অ্যাডভোকেট মামুন সিরাজুল মজিদ, নুরুন্নাহার সন্ধ্যা প্রমুখ।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও