দুঃসময়ে এগিয়ে আসলেন দিপু ভূইয়া

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১০:২০ পিএম, ১ মার্চ ২০২১ সোমবার

দুঃসময়ে এগিয়ে আসলেন দিপু ভূইয়া

নারায়ণগঞ্জ বিএনপির একজন তরুণ ও যোগ্য নেতৃত্ব হচ্ছেন রূপগঞ্জের মোস্তাফিজুর রহমান ভূইয়া দিপু। প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে দলীয় আন্দোলন সংগ্রামে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করার পাশাপাশি নেতাকর্মীদেরও সবসময় তিনি আগলে রাখেন। তারই ধারাবাহিকতায় এবারও দুঃসময়ে কাছের মানুষ হিসেবে পরিচয় দিলেন মোস্তাফিজুর রহমান ভূইয়া দিপু। রাজধানী ঢাকার সমাবেশে পুলিশ ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনায় আহতদের পাশে দাঁড়ালেন তিনি। সাথে সাথে হাসপাতালে ছুটে গেলেন তিনি। সেই সাথে তাদের বিভিন্ন রকম সমস্যার সমাধানও করেছেন মোস্তাফিজুর রহমান ভূইয়া দিপু।

জানা যায়, গত ২৮ ফেব্রুয়ারী সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ‘বীর উত্তম’ খেতাব বাতিল করার সিদ্ধান্ত ও কারাগারে লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর ঘটনার প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের পূর্ব ঘোষিত সমাবেশ ছিল। আর সেই নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ ছাত্রদলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরাও অংশগ্রহণ করেন। কিন্তু সমাবেশ শুরু হওয়ার আগেই পুলিশ বাঁধা দেন এবং এক পর্যায়ে পুলিশের সাথে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এই সংঘর্ষে ছাত্রদলের অনেক নেতাকর্মী আহত হন।

আর এসকল আহতদের মধ্যে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের ছাত্রদল নেতা সুলতান মাহমুদ, নাসিম হোসেন প্রিন্স, আরিফ হাসান ও রাকিবুল হাসান, মেহেদী হাসানসহ ১২ ছাত্রদল নেতাকর্মী আহত হন। সেই সাথে নারায়ণগঞ্জের অন্যান্য থানার ছাত্রদল নেতাকর্মীরাও আহত হন। তাদের অনেককেই হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়। আর আহত ছাত্রদল নেতা কর্মীদের দেখতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছুটে যান বিএনপির নির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য ও রুপগঞ্জের জনপ্রিয় নেতা মুস্তাফিজুর রহমান ভূইয়া দিপু ভাই। তাদের বিভিন্ন বিষয়ে খোঁজ খবর নেন তিনি।

এর আগেও বিভিন্ন সময় সংকটকটকালিন সময়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন বিএনপির এই জনপ্রিয় নেতা মুস্তাফিজুর রহমান ভূইয়া দিপু। করোনাকালিন সময়েও বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মাঝে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন। প্রায় সবসময় তিনি নেতাকর্মীদের আশ্রয় পশ্রয় দিয়ে থাকেন।

সূত্র বলছে, মোস্তাফিজুর রহমান ভূইয়া দিপু নারায়ণগঞ্জ বিএনপির একজন তরুণ ও যোগ্য নেতৃত্ব। বর্তমানে তিনি বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির কার্য্যকারী সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। সেই সাথে নারায়ণগঞ্জ বিএনপির একজন অন্যতম অভিভাবকও বটে। রূপগঞ্জ সহ পুরো জেলাতেই রয়েছে তার জনপ্রিয়তা। বিশেষ করে রূপগঞ্জ এলাকায় তার সর্বমহলেই গ্রহযোগ্যতা রয়েছে। আর এ কারণে অনেক সময় তাকে টার্গেটে পরিণত হতে হয়।

মোস্তাফিজুর রহমান ভূঁইয়া দিপু নাম হলেও রূপগঞ্জের কৃষক, দিনমজুর, শ্রমিক, পেশাজীবী, ব্যবসায়ী, সামাজিক ও রাজনৈতিক নেতাকর্মী সহ প্রায় সকলেই তাকে দিপু ভূঁইয়া নামে ডাকতেও বলতে ভালোবাসেন। দিপু ভূঁইয়াও খুব সহজেই সাধারণ মানুষকে কাছে টানে বলে রূপগঞ্জ অবস্থান থাকলে মানুষের ভীড় থাকতে দেখা যায়। এছাড়াও বিএনপির রাজনৈতিক প্রবীন ও নবীন নেতাকর্মীদের অসুস্থ্যতা, সমস্যা ও কারাবান্দি হলেও ছুটে যাওয়ার ফলে তাদের কাছের আত্মীয় হয়ে উঠেছেন তিনি। আর তরুন সমাজের কাছে তিনি হলে আইকন

দিপু ভূঁইয়া ছাত্র জীবন থেকেই রাজনৈতিক কর্মকান্ড সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। তবে তখনও কোন পদ পদবী ছিল না। এলাকায় মানুষের সমস্যা ও সেবায় সবর্দা কাজ করে যেতেন তিনি। রাজনৈতিক কর্মকান্ড ও মানুষের ভালোবাসায় দলীয় ভাবে বেগম খালেদা জিয়ার নির্দেশে ২০০৭ সালে বিএনপি সহযোগি সংগঠন যুবদল কেন্দ্রীয় কমিটির অর্থ বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পান। মূলত তিনি বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের প্রতি অনুপ্রাণিত হয়েই বিএনপির রাজনীতিতে আসেন।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও