এক শ্বশুরে বিএনপির কান্না

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:০৪ পিএম, ৯ এপ্রিল ২০২১ শুক্রবার

এক শ্বশুরে বিএনপির কান্না

বৃহস্পতিবার ৮ এপ্রিল গণমাধ্যমের মেইলে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির প্যাডে একটি বিবৃতি আসে। সেটা প্রকাশের অনুরোধ করেন জেলা বিএনপির সদস্য রিয়াজুল ইসলাম রিয়াজ। তিনি মূলত জেলা বিএনপির সদস্য সচিব মামুন মাহমুদের পক্ষে ওই বিবৃতি প্রকাশের আবেদন করেন। বিবৃতিতে মামুন মাহমুদের একটি শোকবার্তা ছিল। বিএনপির প্যাডে আহবায়ককে ব্যতিরকে সদস্য সচিবের শোকবার্তায় সাম্প্রতিক শীতলক্ষ্যা নদীতে লঞ্চডুবির ঘটনাটি থাকবে অনুমেয় থাকলেও সেটা ছিল না। বরং বিএনপির একজন অঘোষিত নিয়ন্ত্রক নজরুল ইসলামের আজাদের শ্বশুরের মৃত্যুর ঘটনায় ওই শোক বার্তা পাঠান মামুন মাহমুদ। এ নিয়ে বিএনপির ভেতরে দেখা দিয়েছে নানা প্রশ্ন। সম্প্রতি হেফাজতের হরতাল ও সোনাররগাঁয়ে মামুনুল হক ইস্যুতে ১০টি পৃথক মামলা হয় যেখানে মামুন মাহমুদ সহ বিএনপির বিভিন্ন স্তরের নেতাদের আসামী করা হয়েছে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে বিএনপি দলীয় কাউন্সিলর ইকবাল হোসেনকে। এসব নিয়ে কোন ধরনের বিবৃতি আসেনি জেলা বিএনপির প্যাডে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এর আগে জেলা বিএনপির সেক্রেটারী হয়েছিলেন মামুন মাহমুদ। মূলত তখন বিএনপির অঘোষিত নিয়ন্ত্রক হিসেবে পরিচিত জিয়া পরিবার ঘেঁষা নজরুল ইসলাম আজাদের বদন্যতায় তল্পিবাহক হয়েই মামুন মাহমুদ সেক্রেটারী হন। আর ওই পদ পেয়েই একের পর এক এজেন্ডা বাস্তবায়ন শুরু করেন। আজাদের প্রেসক্রিপশনে বিএনপিতে ডিম পাড়া হাস খ্যাত শাহআলমের অনুগামীদের বড় পদে পদায়িত করেন। এসব নিয়ে দেখা দেয় নানা প্রশ্ন।

সবশেষ জেলা বিএনপির সদস্য সচিব পদেও মামুন মাহমুদের পদায়িত ছিল রীতিমত চমক। আর এর পেছনেও আজাদের হস্তক্ষেপ লবিং ছিল জানান দলের একাধিক সূত্র। আর সে কারণেই এবার আজাদের শ্বশুরের মৃত্যুতে বিবৃতি পাটালেন মামুন মাহমুদ।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘‘বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সহ-সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদ এর শশুর খন্দকার নজরুল ইসলামের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদ। ০৮/০৪/২০২১ইং তারিখ গণমাধ্যমে পাঠানো এক শোকবার্তায় অধ্যাপক মামুন মাহমুদ এই শোক প্রকাশ করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবার ও পরিজনের প্রতি সমবেদনা এবং সহমর্মিতা জানান। কেন্দ্রীয় বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সহ-সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদের শ্বশুর খন্দকার নজরুল ইসলাম গত বুধবার ৭ এপ্রিল সকাল আনুমানিক ১০ঃ৩০টা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার নিউ লাইফ হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন ইন্নালিল্লাহে ওয়া ইন্নাইলাইহের রাজেউন) মৃত্যুতে তার বয়স হয়েছিল ৬৬ বছর।’’

যদিও লঞ্চ ডুবির ঘটনায় এরই মধ্যে ৩৪ জনের মৃত্যুর ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা ভাবছেন বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির আহবায়ক অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার। ৬ এপ্রিল মঙ্গলবার বিকেলে এক বিবৃতিতে তিনি এই তথ্য জানান।

এখানে উল্লেখ্য জেলা বিএনপির প্যাড ব্যবহারে কোন নিয়ম মানা হচ্ছে না। এর আগেও আইনজীবী সমিতির নির্বাচনের পরেও এ ধরনের অভিযোগ ছিল। ওই সময়ে জেলা বিএনপি’র আহবায়ক অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকারকে কৌশলে পাশ কাটিয়ে জেলা বিএনপি’র বিবৃতি দিলেন এমন এক ব্যক্তি যিনি অধ্যাপক মামুন মাহমুদের পিএস। নাম রিয়াজুল ইসলাম রিয়াজ। এই বিবৃতি দারুণভাবে সমালোচিত হয়েছে। বিবৃতিটি খুবই সাদামাটা।

বিএনপির একাধিক নেতা জানান, যেখানে তৈমূরের বিবৃতি নিয়ে হৈ চৈ সেখানে আবার জেলা বিএনপির প্যাড ব্যবহার করে বিবৃতি দৃষ্টিকটু। এ ধরনের বিবৃতিতে প্রকৃত ঘটনা আড়াল করা হয়েছে। এর আগেও জেলা বিএনপির সময়ে এ ধরনের কর্মকান্ড হতো। মন চাইলে বিবৃতি দেওয়া হতো না। না চাইলে দেওয়া হতো না।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও