ছুটে চলেছেন এমপি খোকা

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১১:১৫ পিএম, ১৬ জুলাই ২০২১ শুক্রবার

ছুটে চলেছেন এমপি খোকা

নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা করোনাকালিন সময়ে ঘরে থাকছেন না। বিভিন্ন আসনের সংসদ সদস্যরা করোনা সংক্রমণ চলাকালীন সময়ে নিজের জীবনের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে ঘরে বসে থাকলেও এমপি লিয়াকত হোসেন খোকা জনকল্যাণে দিন রাত ছুটে বেড়াচ্ছেন। নিজের জীবন বাজি রেখেই সংশ্লিষ্ট আসনের একপ্রাপ্ত থেকে অন্যপ্রান্তে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। যখন যার যা প্রয়োজন হচ্ছে তিনি সকল চাহিদা পূরণ করার চেষ্টা করছেন। প্রায় প্রতিদিনই কোনো না কোনো এলাকায় জনকল্যাণে বিভিন্ন কাজকর্ম করে বেড়াচ্ছেন।

দিন দিন করোনা সংক্রমণের সংখ্যা উর্ধ্বমুখী থাকলেও এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার যেন সেদিকে তাকানোর সময় নেই। করোনা সংক্রমণের ঝুঁকিকে উপেক্ষা করেই তিনি জনগণের সেবায় আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

জানা যায়, গত ১৫ জুলাই সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মেহেদী ইকবাল ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সোনারগাঁ অংশে যানজট নিরসন ও সোনারগাঁয়ে সার্বিক যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে সড়ক ও জনপদ কর্তৃপক্ষের হয়ে তিনি নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা এমপিকে সঙ্গে নিয়ে মোগরাপাড়া চৌরাস্তার ফুটওভার ব্রিজ ও মোগরাপাড়া থেকে আনন্দবাজার হয়ে তালতলা সড়ক পরিদর্শন করেন।

পরিদর্শন শেষে এমপি খোকার নিজস্ব কার্যালয়ে এক সভায় সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মেহেদী ইকবাল সোনারগাঁকে নিয়ে সওজ কর্তৃপক্ষের পরিকল্পনা সম্পর্কে বলেন, ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের এই অংশে যানজট নিরসনে মোগরাপাড়া চৌরাস্তার কাঁচাবাজার সংলগ্ন আরেকটি ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ করা হবে। পাশাপাশি চৌরাস্তা থেকে আনন্দ বাজার হয়ে তালতলা পর্যন্ত ২০ কিলোমিটার রাস্তা পুনঃসংস্কার ও ১৮ ফিট থেকে ৩৬ ফিটে বর্ধিত করা হবে। এই অঞ্চলের মানুষের স্বাস্থ্য সেবা সহজলভ্য করতে মেনিখালী সেতু থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পর্যন্ত নতুন ৩ কিলোমিটার নতুন বাইপাস রাস্তা নির্মাণ করা হবে। ঝুঁকিপূর্ণ সেতু হিসেবে আনন্দবাজার ও বৈদ্যেরবাজার সেতু পুনঃসংস্কারের কাজ আগামী ১ মাসের মধ্যে শুরু হবে। মোগরাপাড়া চৌরাস্তায় লোকাল যান চলাচল নির্বিঘœ করতে গোলচত্ত্বর নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের।

গত ১২ জুলাই সোনারগাঁ উপজেলার বৈদ্যের বাজার ইউনিয়নের বামনা দিগিরপাড় এলাকায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের জন্য নির্মিত ও নির্মাণাধীন ঘরগুলোর গুণগত মান যাচাইয়ে পরির্দশন করেন লিয়াকত হোসেন খোকা। দেশের অনেক জায়গায় অনিয়ম হলেও সোনারগাঁ উপজেলায় আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরগুলোর গুণগত মান ঠিক রয়েছে।

গত ১০ জুলাই সোনারগাঁয়ের সাদিপুরে বরগাঁও বেড়িবাঁধ এলাকায় ৫ শতাধিক পানিবন্ধী পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী ও উপহার বিতরণ করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা। এসময় তিনি পানিবন্ধী মানুষের বিভিন্ন সমস্যার কথা শুনে তাৎক্ষনিক সেখানে উপস্থিত পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মকর্তাদের বিদ্যুৎ সমস্যার সমাধান করতে নির্দেশ দিয়ে সমাধানের ব্যবস্থা গ্রহণ করে পাম্পের মাধ্যমে পানি নিষ্কাশনের জন্য ব্যবস্থা করে দিয়েছেন।

এদিকে করোনার উর্ধ্বমুখী সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকার কর্তৃক ঘোষিত কঠোর লকডাউনে করোনায় আক্রান্ত পরিবারের পাশাপাশি অসহায় হয়ে পড়া রিকসা, ব্যাটারীচালিত রিকসা ও ভ্যান চালকসহ অসহায় পরিবারের মাঝে প্রতিদিনের মত গত ৯ জুলাই প্রায় চারশত পরিবারের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ করেছেন। এসকল উপহার সামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, ডাল, তেল, লবণ, পিঁয়াজ, আলু, চিনি, সাবানসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী।

এসময় লিয়াকত হোসেন খোকা বলেন, করোনা ভাইরাসের এই বিপদের মুহূর্তে আমি অবশ্যই বেকার, দুঃস্থ ও অসহায় মানুষের পাশে থাকবে। গতবছরের ন্যায় এবছরও প্রতিদিন গ্রামে গ্রামে গিয়ে দুস্থ, অসহায় ও নিম্ন আয়ের পরিবারের মাঝে চাল, ডাল, লবণ, পিয়াজ, তৈল ও আলুসহ বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রী জীবাণুনাশক, সাবান, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্ক বিতরণ করছি। যতোদিন পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হবে ততোদিন এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। প্রতিদিন হটলাইন ফোন দিলেই মাইক্রোবাস সার্ভিসে খাবার সামগ্রী নিয়ে ঘরে ঘরে হাজির হচ্ছেন আমার স্বেচ্ছাসেবকরা। করোনায় আক্রান্ত রোগীর জন্য বিশেষ ব্যবস্থায় এখনো অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস চালু আছে। রোগীদেরকে ঢাকার হাসপাতালে আনা-নেয়া করার জন্য প্রতিনিয়ত এসব অ্যাম্বুলেন্স কাজ করছে।

গত ৫ জুলাই সোনারগাঁয়ে মোগড়া পাড়া, পৌরসভায় করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের মাঝে খাদ্য উপহার সামগ্রী পৌছে দিয়েছেন এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার সেচ্ছাসেবী সোনারগাঁ টিম। এভাবে একের পর এক জনসেবামূলক কাজ করে যাচ্ছেন লিয়াকত হোসেন খোকা। সামান্য সময়ের জন্যও তিনি বসে থাকছেন না।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও