জাহাঙ্গীরের ছি! ছি! ছি!

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১১:৫৫ পিএম, ৭ অক্টোবর ২০২১ বৃহস্পতিবার

জাহাঙ্গীরের ছি! ছি! ছি!

আগামী ১১ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জের সদর উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। আর এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে বিএনপির এক নেতাকে। যা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছেন না।

একই সাথে সাথে সংশ্লিষ্ট নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য হচ্ছেন আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা শামীম ওসমান। আর তারই আসনে বিএনপি নেতাকে মনোনয়ন দেয়া হচ্ছে যা নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে চলছে নানা আলোচনা সমালোচনা।

দীর্ঘ বছর ধরে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকা সত্ত্বেও আওয়ামী লীগকে বাদ দিয়ে বিএনপি নেতাকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দিতে হবে যা আওয়ামী লীগের সম্মানের প্রশ্ন হিসেবে দেখা দিয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম বলেন, তারা আওয়ামী লীগের অসম্মান করছেন। কেন্দ্রীয় নেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। কেন্দ্রীয় নেতারা দেখুক নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগকে ধ্বংস করছে কারা। নারায়ণগঞ্জে আওয়ামী লীগে ধ্বংসের মূল তারা। বিভিন্ন জায়গায় বিএনপি জামাত জাতীয় পার্টিকে আশ্রয় প্রশ্রয় দিচ্ছে তারা।

তিনি আরও বলেন, সেন্টু একজন নামধারী বিএনপির লোক। সে আদৌ আওয়ামী লীগে যোগ দেয় নাই। অদ্যাবধি জানি সে বিএনপি করে। সেখানে আওয়ামী লীগের হাজার হাজার নেতাকর্মী আছে। সেখানে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে বিএনপির লোকের কাছ থেকে টাকা খেয়ে মনোনয়ন দিচ্ছে। বিএনপির লোককে নৌকা প্রতিক দিচ্ছে। ছি! ছি! ছি! ঘৃণা লাগে, কষ্ট লাগে যে নৌকার জন্য আমরা আন্দোলন সংগ্রাম করেছি। নেতাকর্মীদের আন্দোলন সংগ্রামের ফসল আজ আওয়ামী লীগ ক্ষমতায়। আজ বিএনপির লোকদের এনে নৌকা প্রতিক দেয়া হয়। কষ্ট আমাদের।

জাহাঙ্গীর বলেন, আমাদের নেত্রী যেখানে বলছেন কোনো ব্যাঙ কাউয়া হাইব্রীড নিবে না। সেখানে কিভাবে মনোনয়ন দেয়। আমাদের নেত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। আজকে নারায়ণগঞ্জে কি হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগ ধ্বংস করে দেয়া হচ্ছে। যেখানে আওয়ামী লীগের হাজার হাজার নেতাকর্মীরা জীবন দেয়ার প্রস্তুত রয়েছে সেখানে বিএনপির লোককে নৌকা প্রতিক দিতে হবে? আল্লাহ না করুন আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় না থাকে তাহলে এই সেন্টু চলে যাবে। তখন আমরাই থাকবো আমরাই ছিলাম থাকবো মৃত্যু পর্যন্ত। ফতুল্লা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের উপড় বিচারের ভার দিলাম।

জানা যায়, আওয়ামী লীগের সকল মনোনয়ন প্রত্যাশীদেরকে পিছনে ফেলে কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের এবারের নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতিকের মনোনয়ন পেতে যাচ্ছেন মনিরুল আলম সেন্টু। যিনি বিগত সময়ে বিএনপির নেতা ছিলেন। সেই সাথে বিএনপির সমর্থনে নির্বাচনও করেছেন। আর এবার তাকেই আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দিতে যাচ্ছেন স্থানীয় পর্যায়ের নেতারা।

ইতোমধ্যে কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ থেকে একমাত্র তার নামটি মনোনয়নের জন্য পাঠানো হয়েছে। যার ফলে এখানে অন্য কারও আসার সুযোগও নেই। যদিও ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী বলেছেন, যেহেতু এখানে একটি মাত্র নাম এসেছে এবং যার নামটি এসেছে তাকে নিয়ে বিতর্ক রয়েছে তাই এ বিষয়টি আমরা কেন্দ্রের উপড় ছেড়ে দিয়েছি। তারা এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিবে।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও