হিন্দু মুসলিম দাঙ্গা, সারাদেশে অরাজকতার পাঁয়তারা : আইভী

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৬:৫৫ পিএম, ১২ অক্টোবর ২০২১ মঙ্গলবার

হিন্দু মুসলিম দাঙ্গা, সারাদেশে অরাজকতার পাঁয়তারা : আইভী

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, সামনে নির্বাচন। একটু খেয়াল করে দেখবেন শহরের মধ্যে অযথা কিছু যানজট থেকে শুরু করে বিভিন্ন ধরনের প্রতিবন্ধকতা তৈরি করা হচ্ছে। এই নারায়ণগঞ্জ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির শহর। বহু পূর্বে থেকে এখানে আমরা হিন্দু মসুলমান বৌদ্ধ খ্রিষ্টান একসাথে বসবাস করে আসছি। কিন্তু ইদানিং কে বা কারা পূজামন্ডপে জোর করে একটি ব্যানার পাঠিয়েছে। সেই ব্যানারে আমার বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক আইভী বলা হয়েছে।

জাতীয় শ্রমিক লীগের ৫২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জ জেলা শ্রমিক লীগের উদ্যোগে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে শহরের ২নং রেল গেইট এলাকার আওয়ামী লীগে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, যেখানে অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী জননেত্রী শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থী একজন মেয়র প্রার্থী আমি ছিলাম। জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি। যেখানে কিভাবে আমার দলের একটি চক্র এইভাবে সাম্প্রদায়িক আইভী বলে প্রত্যেকটি পূজামন্ডপে ব্যানার পাঠিয়ে পাঁচ হাজার করে টাকা পাঠিয়ে নারায়ণগঞ্জকে অস্থির করার চেষ্টা করছে। হিন্দু মসুলমান দাঙ্গা লাগানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। বিভিন্ন জায়গায় জঙ্গি আস্তানা বলে নারায়ণগঞ্জকে জঙ্গি খেতার দেয়ার চেষ্টা করছে। কে করছে? তারা আওয়ামী লীগের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা ব্যক্তিস্বার্থকে দেখার জন্য করছে। আমরা শেখ হাসিনার কর্মী। উনি যাকে ভাল করতে তাকেই নমিনেশন দিবে। কিন্তু এইভাবে একজন নারীকে হেনেস্তা করা যা খুশি বলা নারায়ণগঞ্জের পরিবশকে অস্থির করা উৎসবমুখর পরিবেশ প্রত্যেক জায়গায় কালো ছায়া তৈরি করা এই অশুভ সংকেত দিচ্ছে কারা? তারা কি একবার চিন্তা করে দেখেছে নারায়ণগঞ্জ এক আইভীকে ঠেকাতে গিয়ে জাতীয়ভাবে কোনো দুর্যোগ ডেকে আনছে কিনা?

আইভী বলেন, এমন নেতা রয়েছে যার কোনো ব্যবসা নেই কিন্তু কোটি কোটি টাকা ইনকাম। এই শহরে তাদের টাকার কোনো অভাব নেই। টাকা দিয়ে তারা সবকিছু করতে পারে। তাদের কাছ থেকে আমরা যেন সাবধান থাকি। যে কোনো ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে রুখে দেয়ার মতো সাহস আমাদের রয়েছে। নারায়ণগঞ্জে এখন যে কথাটা সবচেয়ে বেশি শোনা যাচ্ছে আসন্ন নির্বাচনকে সামনে রেখে যে কোনো ধরনের সংঘাতে লিপ্ত হতে চাচ্ছে। পরিকল্পিতভাবে শহরকে অস্থির করতে চাচ্ছে। সেটা আপনাদের খেয়াল রাখতে হবে দেখতে হবে। হুট হাট করে কিছু করবেন না। চিন্তা ভাবনা করে করবেন। যোগাযোগ রাখবেন।

জাতীয় শ্রমিক লীগের ৫২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জ জেলা শ্রমিক লীগের উদ্যোগে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে শহরের ২নং রেল গেইট এলাকার আওয়ামী লীগে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

আইভী বলেন, আমরা শেখ হাসিনার কর্মী। শেখ হাসিনার কর্মী। ভয় অবশ্যই পাই নাই। ২০০৩ সালে নির্বাচন করেছি যখন শহরে কোনো লোক পাই নাই সুবিধাভোগীরা এই শহরে ছিল না। সেই দুঃসময়ে আমি আপনাদের সহযোগিতা নিয়ে পাশ করেছি। ২০১১ সালে পরিস্থিতি কি ছিল সেটা দেখেছেন। ২০১৬ সালেও কি পরিমাণ অত্যাচার করা হয়েছে আমার প্রতিকী ফাঁসি দেয়া হয়েছে। আমি সেখান থেকে উঠে এসে নেত্রী স্নেহভাজন হিসেবে মনোনয়ন পেয়ে আমি মেয়র নির্বাচিত হয়েছি।

তিনি বলেন, সামনে নির্বাচন। একটু খেয়াল করে দেখবেন শহরের মধ্যে অযথা কিছু যানজট থেকে শুরু করে বিভিন্ন ধরণের প্রতিবন্ধকতা তৈরি করা হচ্ছে। এই নারায়ণগঞ্জ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির শহর। বহু পূর্বে থেকে এখানে আমরা হিন্দু মসুলমান বৌদ্ধ খ্রিষ্টান একসাথে বসবাস করে আসছি। কিন্তু ইদানিং কে বা কারা পূজামন্ডপে জোর করে একটি ব্যানার পাঠিয়েছে। সেই ব্যানারে আমার বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক আইভী বলা হয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, মুক্তিযোদ্ধা মাইনউদ্দিন আহমেদ বাবুল, মো: শহীদুল্লাহ, জনতা ব্যাংক সিবিএ নেতা মো: আব্দুস সালাম, সাধারণ সম্পাদক ও সোনালী ব্যাংক সিবিএ নারায়ণগঞ্জ কার্যালয়ের সভাপতি আকতার হোসেন, সহসভাপতি হুমায়ন কবির, সবুজ শিকদার ও খোদেজা খানম নাসরিন অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।


বিভাগ : রাজনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও