আলোকিতের প্রত্যাশায় শ্যামা কালী পূজা

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:২৪ পিএম, ১৪ নভেম্বর ২০২০ শনিবার

আলোকিতের প্রত্যাশায় শ্যামা কালী পূজা

অমাবস্যা রজনীর সমস্ত অন্ধকার দূর করে পৃথিবীকে আলোকিত করার অভিপ্রায়ে নারায়ণগঞ্জে অনুষ্ঠিত হয়েছে শ্যামা কালী পূজা। শ্যামা কালী পূজা সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দ্বিতীয় অন্যতম বড় উৎসব। এদিন প্রতিটি ঘরে প্রদীপ প্রজ্জলন করা হয়।

১৪ নভেম্বর শনিবার রাত ১০টা থেকে শহরের বিভিন্ন মন্দির, অস্থায় মন্ডপ ও বাসা বাড়ির ছাদে পূজা শুরু হয়। আর পূজা শেষ হবে পরদিন ভোরে।

শনিবার দুপুরে সরেজমিনে দেখা যায়, শ্যামা পূজাকে কেন্দ্র করে শহরের বিভিন্ন পূজামন্ডপে সাজসজ্জার কাজ শেষ হয়েছে। ইতোমধ্যে মন্দিরে ও মন্ডপে আশিন হয়েছেন দেবী কালী। পূজা উপলক্ষ্যে রাস্তায় ও বিভিন্ন এলাকায় আলোকসজ্জা করা হয়েছে। বিভিন্ন অস্থায়ী মন্ডপের সামনে তৈরি করা হয়েছে ছোট বড় ফটক।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মতে, দূর্গাপূজার বিজয়ার পরবর্তী অমাবসার রাতেই দীপাবলীর আয়োজন করা হয়। আর সেই দীপাবলীর রাতে অনুষ্ঠিত হয় শ্যামা কালীপূজা। দিওয়ালী নামেও পরিচিত দীপাবলী। অমাবস্যা রজনীর সমস্ত অন্ধকার দূর করে পৃথিবীকে আলোকিত করার অভিপ্রায়ে প্রতিটি ঘরে ঘরে প্রজ্জ্বলন করা হয় প্রদীপ। পৃথিবীর সকল অন্ধকারের অমানিশা দূর করতেই এ আয়োজন।’

শারদীয় দুর্গাপূজার সংখ্যায় শ্যামা কালী পূজা বেশি হওয়ায় এর নির্দিষ্ট সংখ্যা জানাতে পারেননি বাংলাদেশ পুজা উদযাপন পরিষদ নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সভাপতি রঞ্জিত মন্ডল।

তিনি বলেন, ‘শান্তি সংহতি সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায় সংগ্রামের প্রতীক দেবী মা শ্যামা কালী। দুষ্টের দম শিষ্টের পালন বিশ্বব্যাপী অবারিত মঙ্গলধ্বনি বয়ে যাক, মহাশক্তি ত্রিনয়নী এমন প্রত্যয়ের বার্তা নিয়ে পৃথিবীতে আসছেন। এবার আমরা মায়ের কাছে প্রার্থনা করছি পৃথিবী যেন এ করোনা মহামারী থেকে রক্ষা পায়।’

পুলিশ প্রশাসনেরর পক্ষ থেকে জানা গেছে শ্যামা কালী পূজা উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জের অস্থায়ী ও স্থায়ী মন্ডপ সহ কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

এদিকে নারায়ণগঞ্জ নন্দীপাড়া ডিএনরোড এলাকার কাচারীবাড়ী কমিশনার গলি পূজা কমিটির উদ্যোগে শ্যামা কালী পূজা অর্চনার আয়োজন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে পূজা মন্ডপের ও রাস্তায় আলোকসজ্জার কাজ শেষ হয়েগেছে। পূজার দর্শনার্থী ও ভক্তদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

কাচারীবাড়ী কমিশনার গলি পূজা কমিটির পক্ষ থেকে শ্যামা পূজা উপলক্ষে বিশেষ আয়োজন করা হয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে ১৪ নভেম্বর শনিবার রাত ১২টায় পূজার শুভ সূচনা, ১৫ নভেম্বর সকালে প্রদাস বিতরণ করা হবে। এছাড়াও রাতে লাইটিং ও ভক্তিমূলক সঙ্গিত পরিবেশন করা হবে। আগামী মঙ্গলবার প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যে দিয়ে শ্যামা কালীপূজার সমাপ্তী ঘটবে। তবে অনেকই সাতদিন পর্যন্ত পূজার অনুষ্ঠানের আয়োজন করে থাকেন।


বিভাগ : ধর্ম


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও